০৬:১৩ অপরাহ্ন, সোমবার, ২২ জুলাই ২০২৪, ৭ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

সিলেট পল্লী বিদ্যুৎ সমিতিতে অনির্দিষ্টকালের কর্মবিরতী চলছে

print news -

বিভিন্ন দাবিতে সিলেট পল্লী বিদ্যুৎ সমিতিতে অনির্দিষ্টকালের কর্মবিরতী চলছে

সিলেট পল্লী বিদ্যুৎ সমিতিতে অনির্দিষ্টকালের কর্মবিরতী চলছে। দেশ ব্যাপী বিভিন্ন দাবিতে কর্মবিরতীর অংশ হিসেবে সিলেট পল্লী বিদ্যুৎ সমিতিতে অনির্দিষ্টকালের কর্মবিরতী চলছে। বুধবার (১০জুলাই) সকাল ১০টায় সিলেট পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি অফিস, কদমতলীর কার্যালয়ের সামনে কর্মবিরতী শুরু হয়। এ সময় সিলেট পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির শত শত কর্মকর্তা ও কর্মচারীরা কার্যালয়ের সামনে দাবি আদায়ে বিভিন্ন শ্লোগান, বক্তব্য ও অবস্থান করেন।

কর্মবিরতী পালনকালে সিলেট পল্লী সমিতির ডিজিএম (কারিগরি) আরিফ শাহরিয়ার ফাহাদ সভাপতিত্বে ও জুনিয়র প্রকৌশলী মোঃ জামাল উদ্দিন এর পরিচালনায় এ সময় বক্তব্য রাখেন ওসমানীনগর জোনাল ডিজিএম নাইনুল হাসান, বিশ্বনাথ জোনাল ডিজিএম সাইফুল ইসলাম, ফেঞ্চুগঞ্জ জোনাল ডিজিএম জিল্লুর রহমান সোহেল, জকিগঞ্জ জোনাল ডিজিএম মোতাসির বিল্লাহ, গোলাপগঞ্জ  জোনাল ডিজিএম গোপাল চন্দ্র শিব, এজিএম গোলাপগঞ্জ মোহাম্মদ শাহ আলম, এজিএম অর্থ মোঃ মনসুর হোসেন, এজিএম সদস্য সেবা প্রকৌশলী মোনতানসির মজুমদার, এজিএম ই এন্ড সি সঞ্জয় ভৌমিক, এজিএম আব্দুল্লাহ সিকদার, এজিএম এএফএম মাহমুদুল হাসান,

এজিএম আলাউর হক সরকার, এজিএম আইটি সালমান খান, এজিএম প্রশাসন মোঃ মাকসুদুর রহমান তানভীর, এজিএম মোঃ কাজল মিয়া, এজিএম আবু কাওয়সার মোঃ ওমর ফারুক, এজিএম আবুল ফজল, নুর মোহাম্মদ, মোঃ লুৎফুর রহমান, রিপন কুমার চন্দ, মিঠুন কুমার রায়, রুপন মিয়া, ধ্রুব চন্দ আচার্য্য, শান্ত দাস, মোঃ জহিরুল ইসলাম, শ্যামল মিস্ত্রী, কবির মিয়া, গোপাল সরকার, মনিরুল ইসলাম খান, আবু মুসা সরকার, মোঃ জহিরুল হক, লিযাকত আলী প্রমুখ। এ সময় কার্যালয়ের সামনে সমিতির সকল কর্মকর্তা ও কর্মচারীবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

সিলেট পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি -১এর কদমতলী অফিসে বুধবার সকাল ১০টা থেকে ৪টা পর্যন্ত কর্মকর্তা কর্মচারীরা তাঁদের কর্ম থেকে বিরত থাকেন। এ সময় তারা জরুরি পরিসেবা চালু রাখেন।
প্রধানমন্ত্রী ও বিদ্যুৎ বিভাগের নির্দেশনা অমান্য করে পল্লী বিদ্যুতায়ন বোর্ড কর্তৃক পল্লী বিদ্যুৎ অফিস সমূহে শোষন, নির্যাতন নিপীড়ন বন্ধ করা, গুনগত মানহীন মালামাল ক্রয় করে গ্রাহক ভোগান্তি বৃদ্ধি করার প্রতিবাদে স্মার্ট ও টেকসই বাংলাদেশ বিনির্মানে ইজঊই -চইঝ একিভূতকরন সহ অভিন্ন চাকুরীবিধি বাস্তবায়ন ও সকল চুক্ত  ভিত্তিক/অনিয়মিত কর্মচারীদের চাকরি নিয়মিত করার দাবিতে কর্ম বিরতী দেশব্যাপী ১ম দফায় ৫মে শুরু হয়।

কোটা আন্দোলন : পুলিশের ব্যারিকেড ভেঙে শাহবাগে শিক্ষার্থীদের মিছিল

আন্দোলনের প্রতিক্রিয়ায় বিদ্যুৎ বিভাগের সিনিয়র সচিব মোঃ হাবিবুর রহমানের সাথে আন্দোলনকারীদের আলাপ আলোচনা শুরু করা হয়। পরবর্তীতে কর্মকর্তা ও কর্মচারীদের দাবি পুরন না হওয়ায় ২য় দফা আন্দোলনের শুরু হয় ২ জুলাই। এক প্রতিক্রিয়ায় আন্দোলনকারী নেতা শ্যামল মিস্ত্রী জানান, কর্মকর্তা ও কর্মচারীদের দাবী আদায় না হওয়া পর্যন্ত আন্দোলন চলবে বলে জানান।

ট্যাগঃ

কোটা সংস্কার এর দাবিতে আন্দলনরত শিক্ষার্থীদের নিরাপত্তা নিয়ে চিন্তিত প্রধানমন্ত্রী: পলক

সিলেট পল্লী বিদ্যুৎ সমিতিতে অনির্দিষ্টকালের কর্মবিরতী চলছে

প্রকাশিত হয়েছেঃ ০২:২৪:৩০ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১১ জুলাই ২০২৪
print news -

বিভিন্ন দাবিতে সিলেট পল্লী বিদ্যুৎ সমিতিতে অনির্দিষ্টকালের কর্মবিরতী চলছে

সিলেট পল্লী বিদ্যুৎ সমিতিতে অনির্দিষ্টকালের কর্মবিরতী চলছে। দেশ ব্যাপী বিভিন্ন দাবিতে কর্মবিরতীর অংশ হিসেবে সিলেট পল্লী বিদ্যুৎ সমিতিতে অনির্দিষ্টকালের কর্মবিরতী চলছে। বুধবার (১০জুলাই) সকাল ১০টায় সিলেট পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি অফিস, কদমতলীর কার্যালয়ের সামনে কর্মবিরতী শুরু হয়। এ সময় সিলেট পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির শত শত কর্মকর্তা ও কর্মচারীরা কার্যালয়ের সামনে দাবি আদায়ে বিভিন্ন শ্লোগান, বক্তব্য ও অবস্থান করেন।

কর্মবিরতী পালনকালে সিলেট পল্লী সমিতির ডিজিএম (কারিগরি) আরিফ শাহরিয়ার ফাহাদ সভাপতিত্বে ও জুনিয়র প্রকৌশলী মোঃ জামাল উদ্দিন এর পরিচালনায় এ সময় বক্তব্য রাখেন ওসমানীনগর জোনাল ডিজিএম নাইনুল হাসান, বিশ্বনাথ জোনাল ডিজিএম সাইফুল ইসলাম, ফেঞ্চুগঞ্জ জোনাল ডিজিএম জিল্লুর রহমান সোহেল, জকিগঞ্জ জোনাল ডিজিএম মোতাসির বিল্লাহ, গোলাপগঞ্জ  জোনাল ডিজিএম গোপাল চন্দ্র শিব, এজিএম গোলাপগঞ্জ মোহাম্মদ শাহ আলম, এজিএম অর্থ মোঃ মনসুর হোসেন, এজিএম সদস্য সেবা প্রকৌশলী মোনতানসির মজুমদার, এজিএম ই এন্ড সি সঞ্জয় ভৌমিক, এজিএম আব্দুল্লাহ সিকদার, এজিএম এএফএম মাহমুদুল হাসান,

এজিএম আলাউর হক সরকার, এজিএম আইটি সালমান খান, এজিএম প্রশাসন মোঃ মাকসুদুর রহমান তানভীর, এজিএম মোঃ কাজল মিয়া, এজিএম আবু কাওয়সার মোঃ ওমর ফারুক, এজিএম আবুল ফজল, নুর মোহাম্মদ, মোঃ লুৎফুর রহমান, রিপন কুমার চন্দ, মিঠুন কুমার রায়, রুপন মিয়া, ধ্রুব চন্দ আচার্য্য, শান্ত দাস, মোঃ জহিরুল ইসলাম, শ্যামল মিস্ত্রী, কবির মিয়া, গোপাল সরকার, মনিরুল ইসলাম খান, আবু মুসা সরকার, মোঃ জহিরুল হক, লিযাকত আলী প্রমুখ। এ সময় কার্যালয়ের সামনে সমিতির সকল কর্মকর্তা ও কর্মচারীবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

সিলেট পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি -১এর কদমতলী অফিসে বুধবার সকাল ১০টা থেকে ৪টা পর্যন্ত কর্মকর্তা কর্মচারীরা তাঁদের কর্ম থেকে বিরত থাকেন। এ সময় তারা জরুরি পরিসেবা চালু রাখেন।
প্রধানমন্ত্রী ও বিদ্যুৎ বিভাগের নির্দেশনা অমান্য করে পল্লী বিদ্যুতায়ন বোর্ড কর্তৃক পল্লী বিদ্যুৎ অফিস সমূহে শোষন, নির্যাতন নিপীড়ন বন্ধ করা, গুনগত মানহীন মালামাল ক্রয় করে গ্রাহক ভোগান্তি বৃদ্ধি করার প্রতিবাদে স্মার্ট ও টেকসই বাংলাদেশ বিনির্মানে ইজঊই -চইঝ একিভূতকরন সহ অভিন্ন চাকুরীবিধি বাস্তবায়ন ও সকল চুক্ত  ভিত্তিক/অনিয়মিত কর্মচারীদের চাকরি নিয়মিত করার দাবিতে কর্ম বিরতী দেশব্যাপী ১ম দফায় ৫মে শুরু হয়।

কোটা আন্দোলন : পুলিশের ব্যারিকেড ভেঙে শাহবাগে শিক্ষার্থীদের মিছিল

আন্দোলনের প্রতিক্রিয়ায় বিদ্যুৎ বিভাগের সিনিয়র সচিব মোঃ হাবিবুর রহমানের সাথে আন্দোলনকারীদের আলাপ আলোচনা শুরু করা হয়। পরবর্তীতে কর্মকর্তা ও কর্মচারীদের দাবি পুরন না হওয়ায় ২য় দফা আন্দোলনের শুরু হয় ২ জুলাই। এক প্রতিক্রিয়ায় আন্দোলনকারী নেতা শ্যামল মিস্ত্রী জানান, কর্মকর্তা ও কর্মচারীদের দাবী আদায় না হওয়া পর্যন্ত আন্দোলন চলবে বলে জানান।