১০:০৫ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ১৯ মে ২০২৪, ৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

বাবা ও বন্ধুর হাতে ধর্ষিতা তরুণীর মামলা

print news -

সিলেট অফিস:

হবিগঞ্জের চুনারুঘাট উপজেলায় বাবা ও তার বন্ধুর নামে দলবেঁধে ধর্ষণের মামলা দায়ের করেছে এক কিশোরী।
বুধবার (৮ ডিসেম্বর) দুপুরে চুনারুঘাট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আলী আশরাফ এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।
এর আগে মঙ্গলবার (৭ ডিসেম্বর) রাত ১২টার দিকে চুনারুঘাট থানায় এ মামলা করে ওই কিশোরী। মামলার আগেই র‍্যাব ওই দুজনকে আটক করেছে।

কিশোরীর চাচা আব্দুল মালেক বলেন, তার ভাই আব্দুল খালেক মালয়েশিয়া প্রবাসী তিনি ১ বছর আগে করোনার কারণে দেশে আসেন। আসার পর থেকে বিভিন্ন বিষয়ে স্ত্রীর সঙ্গে ঝগড়া হত। তিনি তাহার স্ত্রীকে শারীরিক নির্যাতনও করতেন। গত মাসে তার স্ত্রী মেয়েকে রেখে বাবার বাড়ি চলে যান।
তিনি আরও বলেন, গত ১ ডিসেম্বর রাতে খালেক ও তার এক ঘনিষ্ঠ বন্ধু আব্দুল কাদির মেয়েটিকে জোরপূর্বক ধর্ষণ করেন। তবে সে ভয়ে কাউকে এ ব্যাপারে কিছু বলে নি। এরপর থেকে ধারাবাহিকভাবে প্রতি রাতেই তাকে শারীরিক নির্যাতন এবং ধর্ষণে বাধ্য করা হতো। গত ৬ ডিসেম্বর রাতে মেয়েটি তার চাচিকে বিষয়টি অবহিত করলে তারা তাৎক্ষণিক র‍্যাবের কাছে অভিযোগ করেন।
র‍্যাব-৯ শায়েস্তাগঞ্জ ক্যাম্পের লেফটেন্যান্ট কমান্ডার নাহিদ হাসান জানান, তারা দলবেঁধে ধর্ষণের অভিযোগ পেয়ে মেয়েটির বাবা ও বাবার বন্ধুকে মঙ্গলবার (৭ ডিসেম্বর) বিকেলে নিজেদের বাড়ি থেকে আটক করা হয়েছে। তাদের চুনারুঘাট থানায় হস্তান্তর করা হবে।
চুনারুঘাট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আলী আশরাফ বলেন, ভুক্তভোগী মেয়েটি ধর্ষণ মামলা করেছে। তার ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য হবিগঞ্জ সদর আধুনিক হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

ট্যাগঃ
জনপ্রিয় সংবাদ

উপজেলা পরিষদ নির্বাচন : ২০৪ নেতাকে বহিষ্কার করল বি.এন.পি

বাবা ও বন্ধুর হাতে ধর্ষিতা তরুণীর মামলা

প্রকাশিত হয়েছেঃ ০৪:২৫:১৩ অপরাহ্ন, বুধবার, ৮ ডিসেম্বর ২০২১
print news -

সিলেট অফিস:

হবিগঞ্জের চুনারুঘাট উপজেলায় বাবা ও তার বন্ধুর নামে দলবেঁধে ধর্ষণের মামলা দায়ের করেছে এক কিশোরী।
বুধবার (৮ ডিসেম্বর) দুপুরে চুনারুঘাট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আলী আশরাফ এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।
এর আগে মঙ্গলবার (৭ ডিসেম্বর) রাত ১২টার দিকে চুনারুঘাট থানায় এ মামলা করে ওই কিশোরী। মামলার আগেই র‍্যাব ওই দুজনকে আটক করেছে।

কিশোরীর চাচা আব্দুল মালেক বলেন, তার ভাই আব্দুল খালেক মালয়েশিয়া প্রবাসী তিনি ১ বছর আগে করোনার কারণে দেশে আসেন। আসার পর থেকে বিভিন্ন বিষয়ে স্ত্রীর সঙ্গে ঝগড়া হত। তিনি তাহার স্ত্রীকে শারীরিক নির্যাতনও করতেন। গত মাসে তার স্ত্রী মেয়েকে রেখে বাবার বাড়ি চলে যান।
তিনি আরও বলেন, গত ১ ডিসেম্বর রাতে খালেক ও তার এক ঘনিষ্ঠ বন্ধু আব্দুল কাদির মেয়েটিকে জোরপূর্বক ধর্ষণ করেন। তবে সে ভয়ে কাউকে এ ব্যাপারে কিছু বলে নি। এরপর থেকে ধারাবাহিকভাবে প্রতি রাতেই তাকে শারীরিক নির্যাতন এবং ধর্ষণে বাধ্য করা হতো। গত ৬ ডিসেম্বর রাতে মেয়েটি তার চাচিকে বিষয়টি অবহিত করলে তারা তাৎক্ষণিক র‍্যাবের কাছে অভিযোগ করেন।
র‍্যাব-৯ শায়েস্তাগঞ্জ ক্যাম্পের লেফটেন্যান্ট কমান্ডার নাহিদ হাসান জানান, তারা দলবেঁধে ধর্ষণের অভিযোগ পেয়ে মেয়েটির বাবা ও বাবার বন্ধুকে মঙ্গলবার (৭ ডিসেম্বর) বিকেলে নিজেদের বাড়ি থেকে আটক করা হয়েছে। তাদের চুনারুঘাট থানায় হস্তান্তর করা হবে।
চুনারুঘাট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আলী আশরাফ বলেন, ভুক্তভোগী মেয়েটি ধর্ষণ মামলা করেছে। তার ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য হবিগঞ্জ সদর আধুনিক হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।