০৪:১৬ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ২৪ মে ২০২৪, ১০ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

বাংলাদেশ থেকে কর্মী নিতে চায় রোমানিয়া ও সার্বিয়া

print news -

বাংলাদেশ থেকে কর্মী নিতে চায় রোমানিয়া ও সার্বিয়া

বাংলাদেশ থেকে বিভিন্ন খাতে কর্মী নিতে চায় ইউরোপের দেশ রোমানিয়া ও সার্বিয়া। ন্যাম সম্মেলনে অংশগ্রহণ ও দেশ দুটি সফর শেষে ঢাকায় ফিরে এ কথা জানিয়েছেন পররাষ্ট্র মন্ত্রী ডক্টর এ কে আব্দুল মোমেন।

রোমানিয়ার সাথে যোগাযোগ বাড়ছে জানিয়ে মন্ত্রী বলেন, ভিসা জটিলতা কমাতে দূতাবাস চালু না হওয়া পর্যন্ত কনস্যুলার সেবা দিতে আগ্রহী দেশটি। পাশাপাশি ইউরোপের এই দেশটি থেকে বাংলাদেশি শিক্ষার্থীরা বৃত্তিও পাবে বলে জানান তিনি। রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনে ন্যামের পাশাপাশি সার্বিয়াও পাশে থাকবে বলে জানান তিনি।

এছাড়াও তিনি জানান, জলবায়ু সম্মেলনে অংশ নিতে ৩১ অক্টোবর প্রধানমন্ত্রী গ্লাসগো যাচ্ছেন। জলবায়ু শীর্ষ সম্মেলন কপ-২৬-এ যোগদানের জন্য ১ থেকে ৩ নভেম্বর পর্যন্ত গ্লাসগোতে অবস্থান করবেন প্রধানমন্ত্রী। এরপর দ্বিপক্ষীয় বৈঠকের জন্য লন্ডনে যাবেন প্রধানমন্ত্রী।

‘বিশ্বজুড়ে সাম্প্রদায়িক উস্কানি, রেশ পড়েছে বাংলাদেশেও’

কুমিল্লায় মণ্ডপে হামলার ঘটনায় তদন্ত চলছে। হামলা যারাই করুক না কেন তাদের বিচার করা হবে বলে জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এসময় নিজেদের সংখ্যালঘু মনে না করতে সনাতন ধর্মাবলম্বীদের প্রতি আহ্বান জানান প্রধানমন্ত্রী। তিনি বলেন, সবাই এদেশের নাগরিক। আত্মবিশ্বাস নিয়ে সবাই বাংলাদেশের মাটিতে বসবাস করবে। এসময় তিনি বলেন, বিশ্বজুড়ে সাম্প্রদায়িক উস্কানি রয়েছে আর তার রেশ বাংলাদেশেও পড়ছে। এ বিষয়ে সবাইকে সতর্ক থাকার অনুরোধ জানান প্রধানমন্ত্রী।

বৃহস্পতিবার (১৪ অক্টোবর) বিকেলে গণভবন থেকে ঢাকেশ্বরী জাতীয় মন্দিরে আয়োজিত অনুষ্ঠানে ভার্চুয়ালি যোগ দেন তিনি। শারদীয় দূর্গাপূজা উপলক্ষে ঢাকেশ্বরী মন্দিরে পূজার্থীদের সাথে শুভেচ্ছা বিনিময়ের সময় এ কথা জানান প্রধানমন্ত্রী। তিনি বলেন, কিছু দুষ্ট চক্র এ ধরনের ঘটনা ঘটিয়ে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি করতে চায়। এসময় প্রধানমন্ত্রী প্রতিবেশী দেশকেও সতর্ক থাকতে অনুরোধ করেন। তিনির বলেন, সেখানে এমন কোনো ঘটনা যাতে না ঘটে যার প্রভাব বাংলাদেশে পড়তে পারে।

দেশে বিদ্যমান সম্প্রীতি নষ্ট করার অপচেষ্টা করছে কিছু দুষ্টচক্র। তারাই কিছু ঘটনা ঘটিয়ে দেশকে অস্থিতিশীল করতে চায়। কুমিল্লার ঘটনাও তারই ধারাবাহিকতায় ঘটেছে। তবে এ বিষয়ে যথাযথ ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে। এসময় সম্প্রীতি রক্ষায় দেশের জনগণকে ঐক্যবদ্ধ থাকার আহ্বান জানান প্রধানমন্ত্রী। তিনি বলেন, কোনো নির্দিষ্ট গোষ্ঠী নয় সবার ভাগ্য উন্নয়নে কাজ করছে তার সরকার।

ট্যাগঃ
জনপ্রিয় সংবাদ

আনোয়ারুল আজীমকে খুন করতে ৫ কোটি টাকার চুক্তি

বাংলাদেশ থেকে কর্মী নিতে চায় রোমানিয়া ও সার্বিয়া

প্রকাশিত হয়েছেঃ ০২:৫৮:০৩ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ১৫ অক্টোবর ২০২১
print news -

বাংলাদেশ থেকে কর্মী নিতে চায় রোমানিয়া ও সার্বিয়া

বাংলাদেশ থেকে বিভিন্ন খাতে কর্মী নিতে চায় ইউরোপের দেশ রোমানিয়া ও সার্বিয়া। ন্যাম সম্মেলনে অংশগ্রহণ ও দেশ দুটি সফর শেষে ঢাকায় ফিরে এ কথা জানিয়েছেন পররাষ্ট্র মন্ত্রী ডক্টর এ কে আব্দুল মোমেন।

রোমানিয়ার সাথে যোগাযোগ বাড়ছে জানিয়ে মন্ত্রী বলেন, ভিসা জটিলতা কমাতে দূতাবাস চালু না হওয়া পর্যন্ত কনস্যুলার সেবা দিতে আগ্রহী দেশটি। পাশাপাশি ইউরোপের এই দেশটি থেকে বাংলাদেশি শিক্ষার্থীরা বৃত্তিও পাবে বলে জানান তিনি। রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনে ন্যামের পাশাপাশি সার্বিয়াও পাশে থাকবে বলে জানান তিনি।

এছাড়াও তিনি জানান, জলবায়ু সম্মেলনে অংশ নিতে ৩১ অক্টোবর প্রধানমন্ত্রী গ্লাসগো যাচ্ছেন। জলবায়ু শীর্ষ সম্মেলন কপ-২৬-এ যোগদানের জন্য ১ থেকে ৩ নভেম্বর পর্যন্ত গ্লাসগোতে অবস্থান করবেন প্রধানমন্ত্রী। এরপর দ্বিপক্ষীয় বৈঠকের জন্য লন্ডনে যাবেন প্রধানমন্ত্রী।

‘বিশ্বজুড়ে সাম্প্রদায়িক উস্কানি, রেশ পড়েছে বাংলাদেশেও’

কুমিল্লায় মণ্ডপে হামলার ঘটনায় তদন্ত চলছে। হামলা যারাই করুক না কেন তাদের বিচার করা হবে বলে জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এসময় নিজেদের সংখ্যালঘু মনে না করতে সনাতন ধর্মাবলম্বীদের প্রতি আহ্বান জানান প্রধানমন্ত্রী। তিনি বলেন, সবাই এদেশের নাগরিক। আত্মবিশ্বাস নিয়ে সবাই বাংলাদেশের মাটিতে বসবাস করবে। এসময় তিনি বলেন, বিশ্বজুড়ে সাম্প্রদায়িক উস্কানি রয়েছে আর তার রেশ বাংলাদেশেও পড়ছে। এ বিষয়ে সবাইকে সতর্ক থাকার অনুরোধ জানান প্রধানমন্ত্রী।

বৃহস্পতিবার (১৪ অক্টোবর) বিকেলে গণভবন থেকে ঢাকেশ্বরী জাতীয় মন্দিরে আয়োজিত অনুষ্ঠানে ভার্চুয়ালি যোগ দেন তিনি। শারদীয় দূর্গাপূজা উপলক্ষে ঢাকেশ্বরী মন্দিরে পূজার্থীদের সাথে শুভেচ্ছা বিনিময়ের সময় এ কথা জানান প্রধানমন্ত্রী। তিনি বলেন, কিছু দুষ্ট চক্র এ ধরনের ঘটনা ঘটিয়ে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি করতে চায়। এসময় প্রধানমন্ত্রী প্রতিবেশী দেশকেও সতর্ক থাকতে অনুরোধ করেন। তিনির বলেন, সেখানে এমন কোনো ঘটনা যাতে না ঘটে যার প্রভাব বাংলাদেশে পড়তে পারে।

দেশে বিদ্যমান সম্প্রীতি নষ্ট করার অপচেষ্টা করছে কিছু দুষ্টচক্র। তারাই কিছু ঘটনা ঘটিয়ে দেশকে অস্থিতিশীল করতে চায়। কুমিল্লার ঘটনাও তারই ধারাবাহিকতায় ঘটেছে। তবে এ বিষয়ে যথাযথ ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে। এসময় সম্প্রীতি রক্ষায় দেশের জনগণকে ঐক্যবদ্ধ থাকার আহ্বান জানান প্রধানমন্ত্রী। তিনি বলেন, কোনো নির্দিষ্ট গোষ্ঠী নয় সবার ভাগ্য উন্নয়নে কাজ করছে তার সরকার।