০৩:৩১ অপরাহ্ন, সোমবার, ২৪ জুন ২০২৪, ১০ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

বঙ্গবন্ধু সাংস্কৃতিক জোটের কেন্দ্রীয় যুগ্ন-সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হলেন মোঃ শহীদ-উল ইসলাম প্রিন্স

print news -

হানিফ পারভেজ—

বঙ্গবন্ধু সাংস্কৃতিক জোট কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী কমিটির যুগ্ন-সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হলেন বিশিষ্ট নাট্যজন ও কবি মোঃ শহীদ-উল ইসলাম প্রিন্স।

গত ১০ জুন জোটের কেন্দ্রীয় কমিটির সমন্বয়ক ও মূপাত্র মোঃ আহসান সিদ্দিকী এবং সমন্বয়ক ও সাংগঠনিক সম্পাদক এম.এ মিলন মিয়া স্বাক্ষরিত এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

মোঃ শহীদ-উল ইসলাম প্রিন্স ১৯৯০ খ্রী. থেকে নাট্য, সাংস্কৃতিক, সাহিত্য ও ছাত্রলীগের রাজনীতির সাথে জড়িত। ১৯৯২ সাথে মৌলভীবাজার জেলার কুলাউড়া উপজেলার ৯নং টিলাগাঁও ইউনিয়ন ছাত্রলীগের প্রতিষ্ঠাকালীন আহবায়ক এবং পরবর্তীতে একটানা ১০ বছর সাধারণ সম্পাদক ও কুলাউড়া ডিগ্রী কলেজ ও উপজেলা ছাত্রলীগের সাংগঠনিক সম্পাদকের দায়িত্ব পালন করেন।

তিঁনি সিলেটের ডাক, সাপ্তাহিক পাতাকুঁডির দেশ, কুলাউড়ার ডাক, মনুবার্তা এবং কুলাউড়ার ঠিকানা পত্রিকাসহ বিভিন্ন পত্রিকায় সাংবাদিকতা করার পাশাপাশি বিভিন্ন দেয়ালিকা ও পত্রিকায় গল্প, কৌতুক, নাটক, ছড়া ও কবিতা লিখেছেন এবং এখনোও লিখে যাচ্ছেন।

এছাড়াও তিঁনি ছোটবেলা থেকেই মঞ্চ ও টিভি নাটকের সাথে জড়িত। ইতিমধ্যে নাট্য রচনা, পরিচালনা ও অভিনয়ে দেশ-বিদেশে সুনাম কুড়াচ্ছেন।

এ গুরুত্বপূর্ণ পদে মনোনীত হওয়ায় বিষয়ে তাঁর প্রতিক্রিয়া জানতে চাইলে তিঁনি বলেন, ছোটবেলায় পিতার কাছ থেকে বঙ্গবন্ধু এবং কুলাউড়ার মাটি ও গণমানুষের নেতা সাবেক এমপি মরহুম আব্দুল জব্বার’র গুণের কথা শুনে নবম শ্রেণীতে পড়াবস্থায় জাতির জনকের আদর্শকে লালন করে ছাত্রলীগের রাজনীতিতে নাম লিখিয়েছিলাম।
সাবেক এমপি মরহুম আব্দুল জব্বার ‘র সাথে ছিলো আমার পিতার গভীর সখ্যতা।
তিনি বলেন আমি এ দায়িত্ব পেয়ে ছোটবেলায় আমার পিতার দেয়া সে-ই উপদেশ স্মৃতির পাতায় ভেঁসে বেড়াচ্ছে।
আমার এ প্রাপ্তি আমার পিতাকে উৎসর্গ করলাম।
যতদিন বেঁচে থাকবো। ততদিন বঙ্গবন্ধুর আদর্শ ও স্বপ্নকে বুকে ধারণ করে জননেত্রী মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্ত্বে কাজ করে যাবো। আমাকে এ দায়িত্ব অর্পন করায় জোটের কেন্দ্রীয় সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা আকবর হোসেন পাঠান (চিত্রনায়ক ফারুক) এমপি মহোদয়, কেন্দ্রীয় সমন্বয়ক ও মূখপাত্র মোঃ আহসান সিদ্দিকী, সমন্বয়ক ও সাংগঠনিক সম্পাদক এম.এ মিলন মিয়া এবং সাংগঠনিক সম্পাদক এইচ.আর শাকিল ভাইসহ সংশ্লিষ্টদের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করছি।

ট্যাগঃ
জনপ্রিয় সংবাদ

বন্যা পরিস্থিতির অবনতি সিলেট, সুনামগঞ্জ ও কুড়িগ্রাম

বঙ্গবন্ধু সাংস্কৃতিক জোটের কেন্দ্রীয় যুগ্ন-সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হলেন মোঃ শহীদ-উল ইসলাম প্রিন্স

প্রকাশিত হয়েছেঃ ০১:৫১:৩৫ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ১৫ জুন ২০২২
print news -

হানিফ পারভেজ—

বঙ্গবন্ধু সাংস্কৃতিক জোট কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী কমিটির যুগ্ন-সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হলেন বিশিষ্ট নাট্যজন ও কবি মোঃ শহীদ-উল ইসলাম প্রিন্স।

গত ১০ জুন জোটের কেন্দ্রীয় কমিটির সমন্বয়ক ও মূপাত্র মোঃ আহসান সিদ্দিকী এবং সমন্বয়ক ও সাংগঠনিক সম্পাদক এম.এ মিলন মিয়া স্বাক্ষরিত এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

মোঃ শহীদ-উল ইসলাম প্রিন্স ১৯৯০ খ্রী. থেকে নাট্য, সাংস্কৃতিক, সাহিত্য ও ছাত্রলীগের রাজনীতির সাথে জড়িত। ১৯৯২ সাথে মৌলভীবাজার জেলার কুলাউড়া উপজেলার ৯নং টিলাগাঁও ইউনিয়ন ছাত্রলীগের প্রতিষ্ঠাকালীন আহবায়ক এবং পরবর্তীতে একটানা ১০ বছর সাধারণ সম্পাদক ও কুলাউড়া ডিগ্রী কলেজ ও উপজেলা ছাত্রলীগের সাংগঠনিক সম্পাদকের দায়িত্ব পালন করেন।

তিঁনি সিলেটের ডাক, সাপ্তাহিক পাতাকুঁডির দেশ, কুলাউড়ার ডাক, মনুবার্তা এবং কুলাউড়ার ঠিকানা পত্রিকাসহ বিভিন্ন পত্রিকায় সাংবাদিকতা করার পাশাপাশি বিভিন্ন দেয়ালিকা ও পত্রিকায় গল্প, কৌতুক, নাটক, ছড়া ও কবিতা লিখেছেন এবং এখনোও লিখে যাচ্ছেন।

এছাড়াও তিঁনি ছোটবেলা থেকেই মঞ্চ ও টিভি নাটকের সাথে জড়িত। ইতিমধ্যে নাট্য রচনা, পরিচালনা ও অভিনয়ে দেশ-বিদেশে সুনাম কুড়াচ্ছেন।

এ গুরুত্বপূর্ণ পদে মনোনীত হওয়ায় বিষয়ে তাঁর প্রতিক্রিয়া জানতে চাইলে তিঁনি বলেন, ছোটবেলায় পিতার কাছ থেকে বঙ্গবন্ধু এবং কুলাউড়ার মাটি ও গণমানুষের নেতা সাবেক এমপি মরহুম আব্দুল জব্বার’র গুণের কথা শুনে নবম শ্রেণীতে পড়াবস্থায় জাতির জনকের আদর্শকে লালন করে ছাত্রলীগের রাজনীতিতে নাম লিখিয়েছিলাম।
সাবেক এমপি মরহুম আব্দুল জব্বার ‘র সাথে ছিলো আমার পিতার গভীর সখ্যতা।
তিনি বলেন আমি এ দায়িত্ব পেয়ে ছোটবেলায় আমার পিতার দেয়া সে-ই উপদেশ স্মৃতির পাতায় ভেঁসে বেড়াচ্ছে।
আমার এ প্রাপ্তি আমার পিতাকে উৎসর্গ করলাম।
যতদিন বেঁচে থাকবো। ততদিন বঙ্গবন্ধুর আদর্শ ও স্বপ্নকে বুকে ধারণ করে জননেত্রী মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্ত্বে কাজ করে যাবো। আমাকে এ দায়িত্ব অর্পন করায় জোটের কেন্দ্রীয় সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা আকবর হোসেন পাঠান (চিত্রনায়ক ফারুক) এমপি মহোদয়, কেন্দ্রীয় সমন্বয়ক ও মূখপাত্র মোঃ আহসান সিদ্দিকী, সমন্বয়ক ও সাংগঠনিক সম্পাদক এম.এ মিলন মিয়া এবং সাংগঠনিক সম্পাদক এইচ.আর শাকিল ভাইসহ সংশ্লিষ্টদের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করছি।