০৫:১২ অপরাহ্ন, সোমবার, ২৪ জুন ২০২৪, ১০ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

জয়পুরহাট র‍্যাব-৫ কর্তৃক প্রতারক চক্রের ২ জন গ্রেফতার

print news -

জয়পুরহাট র‍্যাব-৫ ক্যাম্পের অধিনায়ক মেজর মোস্তফা জামান জানান,সিপিসি-৩, র‍্যাব-৫ ক্যাম্পের একটি চৌকস আভিযানিক দল কোম্পানী অধিনায়ক মেজর মোঃ মোস্তফা জামান, আর্টিলারি ও সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার মোঃ মাসুদ রানা এর নেতৃত্বে গত ২১ অক্টোবর শুক্রবার গভীর রাতেনওগাঁ জেলার ধামইরহাট থানার জাহানপুর বাজারে অভিযান চালিয়ে ভূয়া নিয়োগপত্র,ভূয়া সিল,মোবাইল,সীম কার্ড, মেমোরী কার্ড ও প্রতারণার কাজে ব্যবহৃত ২টি অনিবন্ধিত মোটরসাইকেলজব্দ করে। সেই সাথে প্রতারক চক্রের মূল হোতা মোঃ শাহ আলম (৪৫), পিতা-মৃত আঃ গণি, সাং-উদয়সাগর, থানা-পলাশবাড়ি, জেলা-গাইবান্ধা, ও মোঃ শাহাজুল(৩০), পিতা- মোঃ আজাদ আলী, সাং-জাংগই বাজার, থানা-হাকিমপুর, জেলা-দিনাজপুরদ্বয়কে হাতে নাতে আটক করে। উল্লেখ্য, অভিযুক্ত মোঃ শাহ আলম হলো এই চক্রের মূল হোতা। যে ৪/৫ জনের একটি সিন্ডিকেট চালাচ্ছে।

যেখানে সবাই ২০১২ সাল থেকে সাধারণ মানুষের সাথে প্রতারণামূলক কাজ করে যাচ্ছে।

মোঃ শাহাজুলও সেই সিন্ডিকেটের একজন সক্রিয় সদস্য। তারা কখনও অবৈধ নিয়োগের মিথ্যা আশ্বাস দিয়ে বা ভূয়া নিয়োগপত্র দিয়ে চাকুরী প্রার্থীদের কাছ থেকে লক্ষ লক্ষ টাকা হাতিয়ে নিত। কিছুদিন আগে বাংলাদেশ সেনাবাহিনীতে নিয়োগ চলাকালে মোঃ শাহ আলম ও মোঃ শাহাজুল ১জন প্রার্থীর সাথে যোগাযোগ করে চাকরি দেয়ার প্রলোভন দেখিয়ে ১০ লক্ষ টাকা হাতিয়ে নেয় এবং ভূয়া নিয়োগপত্র দেয়। র‍্যাবের গোয়েন্দা সোর্সের মাধ্যমে এ খবর পেয়ে র‍্যাবের একটি চৌকশ দল কয়েকটি ভূয়া নিয়োগপত্র ও ভূয়া সীলসহ তাদের আটক করে।
এ বিষয়ে ধৃত আসামীদ্বয়ের বিরুদ্ধে নওগাঁ জেলার ধামইরহাট থানায় মামলা দায়ের করা হয়।

ট্যাগঃ
জনপ্রিয় সংবাদ

বন্যা পরিস্থিতির অবনতি সিলেট, সুনামগঞ্জ ও কুড়িগ্রাম

জয়পুরহাট র‍্যাব-৫ কর্তৃক প্রতারক চক্রের ২ জন গ্রেফতার

প্রকাশিত হয়েছেঃ ০৫:২৮:১৯ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৭ অক্টোবর ২০২২
print news -

জয়পুরহাট র‍্যাব-৫ ক্যাম্পের অধিনায়ক মেজর মোস্তফা জামান জানান,সিপিসি-৩, র‍্যাব-৫ ক্যাম্পের একটি চৌকস আভিযানিক দল কোম্পানী অধিনায়ক মেজর মোঃ মোস্তফা জামান, আর্টিলারি ও সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার মোঃ মাসুদ রানা এর নেতৃত্বে গত ২১ অক্টোবর শুক্রবার গভীর রাতেনওগাঁ জেলার ধামইরহাট থানার জাহানপুর বাজারে অভিযান চালিয়ে ভূয়া নিয়োগপত্র,ভূয়া সিল,মোবাইল,সীম কার্ড, মেমোরী কার্ড ও প্রতারণার কাজে ব্যবহৃত ২টি অনিবন্ধিত মোটরসাইকেলজব্দ করে। সেই সাথে প্রতারক চক্রের মূল হোতা মোঃ শাহ আলম (৪৫), পিতা-মৃত আঃ গণি, সাং-উদয়সাগর, থানা-পলাশবাড়ি, জেলা-গাইবান্ধা, ও মোঃ শাহাজুল(৩০), পিতা- মোঃ আজাদ আলী, সাং-জাংগই বাজার, থানা-হাকিমপুর, জেলা-দিনাজপুরদ্বয়কে হাতে নাতে আটক করে। উল্লেখ্য, অভিযুক্ত মোঃ শাহ আলম হলো এই চক্রের মূল হোতা। যে ৪/৫ জনের একটি সিন্ডিকেট চালাচ্ছে।

যেখানে সবাই ২০১২ সাল থেকে সাধারণ মানুষের সাথে প্রতারণামূলক কাজ করে যাচ্ছে।

মোঃ শাহাজুলও সেই সিন্ডিকেটের একজন সক্রিয় সদস্য। তারা কখনও অবৈধ নিয়োগের মিথ্যা আশ্বাস দিয়ে বা ভূয়া নিয়োগপত্র দিয়ে চাকুরী প্রার্থীদের কাছ থেকে লক্ষ লক্ষ টাকা হাতিয়ে নিত। কিছুদিন আগে বাংলাদেশ সেনাবাহিনীতে নিয়োগ চলাকালে মোঃ শাহ আলম ও মোঃ শাহাজুল ১জন প্রার্থীর সাথে যোগাযোগ করে চাকরি দেয়ার প্রলোভন দেখিয়ে ১০ লক্ষ টাকা হাতিয়ে নেয় এবং ভূয়া নিয়োগপত্র দেয়। র‍্যাবের গোয়েন্দা সোর্সের মাধ্যমে এ খবর পেয়ে র‍্যাবের একটি চৌকশ দল কয়েকটি ভূয়া নিয়োগপত্র ও ভূয়া সীলসহ তাদের আটক করে।
এ বিষয়ে ধৃত আসামীদ্বয়ের বিরুদ্ধে নওগাঁ জেলার ধামইরহাট থানায় মামলা দায়ের করা হয়।