১১:৫৩ অপরাহ্ন, রবিবার, ২১ এপ্রিল ২০২৪, ৮ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

জাতীয় জনতা পার্টির উদ্যোগে বঙ্গবীর ওসমানীর ৪০তম মৃত্যুবার্ষিকী পালন

print news -

জাতীয় জনতা পার্টির প্রতিষ্ঠাতা, মুক্তিযুদ্ধের সর্বাধিনায়ক বঙ্গবীর ওসমানীর ৪০তম মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে মরহুমের সমাধিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ, জিয়ারত ও দোয়া অনুষ্ঠিত হয়েছে।
বৃহস্পতিবার (১৫ ফেব্রুয়ারী) বাদ আছর হযরত শাহজালাল (রহ.) মাজার কবরস্থানে জাতীয় জনতা পার্টির কেন্দ্রীয় আইন বিষয়ক সম্পাদক ও সিলেট জেলা কমিটির সভাপতি এডভোকেট তাহমিনুল ইসলাম খানের নেতৃত্বে পুষ্পস্তবক অর্পণ, জিয়ারত ও দোয়া অনুষ্ঠিত হয়।

এসময় উপস্থিত ছিলেন-প্রয়াত জাতীয় জনতা পার্টির চেয়ারম্যান নুরল ইসলাম খানের সহোদর যুক্তরাজ্য প্রবাসী সাইদুল ইসলাম খান, জাতীয় জনতা পার্টির চেয়ারম্যান শাহ আবিদ আলী, মুক্তিযুদ্ধা বিষয়ক সম্পাদক বীর মুক্তিযোদ্ধা কাজী গোলাম মর্তুজা, সিলেট জেলা কমিটির সাধারণ সম্পাদক আকলিছ আহমদ চৌধুরী, সহ-সভাপতি সাবেক সেনা কর্মকর্তা দেলোয়ার হোসেন খান, সেলিম আহমদ চৌধুরী, সাংগঠনিক সম্পাদক আমিনুল ইসলাম বকুল, মহানগর কমিটির সাধারণ সম্পাদক শফিকুর রহমান শফিক, সাংগঠনিক সম্পাদক ফারুক আহমদ চৌধুরী, জেলা কমিটির সাংস্কৃতিক বিষয়ক সম্পাদক তুহিন আহমদ খান, দপ্তর সম্পাদক কিরণ দেবনাথ, মহিলা নগর কমিটির দপ্তর সম্পাদক এম এ রহিম, সদস্য কামাল আহমদ তালুকদার, আবু বক্কর সাদ সহ ওসমানী অনুরাগী বিশিষ্ট ব্যাক্তিবর্গ।

জিয়ারত শেষে গণমাধ্যমের সাথে আলাপকালে পার্টির চেয়ারম্যান শাহ আবিদ আলী বলেন, দলের নীতি নির্ধারকরা আমাকে পার্টির গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্ব পালন করার জন্য চেয়ারম্যান নিযুক্ত করেছেন। ইনশাআল্লাহ আমি বঙ্গবীর জেনারেল এম এ জি ওসমানীর নীতি আদর্শের ভিত্তিতে দলকে এগিয়ে নেয়ার চেষ্টা করব। আমাকে চেয়ারম্যান নিযুক্ত করায় আমি জাতীয় কমিটির ও সিলেটের সকল নেতৃবৃন্দ কে ধন্যবাদ জানাই।

জাতীয় জনতা পার্টির কেন্দ্রীয় আইন বিষয়ক সম্পাদক এডভোকেট তাহমিনুল ইসলাম খান বলেন, দেশ ও জাতি আজ চরম রাজনৈতিক সংকটে আছে এবং নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্য মূলের উর্ধগতি সাধারণ মানুষের ক্রয় ক্ষমতার বাইরে। দেশের মানুষ খুব কষ্টে আছে। এই সময়ে বঙ্গবীর জেনারেল এম এ জি ওসমানীর নীতি আদর্শ বাস্তবায়নের মাধ্যমে জনতার পাশে দাড়াতে হবে। বিজ্ঞপ্তি

ট্যাগঃ
জনপ্রিয় সংবাদ

মুক্তিযুদ্ধা সংগঠক আব্দুর রাজ্জাকের ইন্তেকাল।। বিশিষ্টজনের শোক প্রকাশ

জাতীয় জনতা পার্টির উদ্যোগে বঙ্গবীর ওসমানীর ৪০তম মৃত্যুবার্ষিকী পালন

প্রকাশিত হয়েছেঃ ০৩:০২:৩১ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ১৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৪
print news -

জাতীয় জনতা পার্টির প্রতিষ্ঠাতা, মুক্তিযুদ্ধের সর্বাধিনায়ক বঙ্গবীর ওসমানীর ৪০তম মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে মরহুমের সমাধিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ, জিয়ারত ও দোয়া অনুষ্ঠিত হয়েছে।
বৃহস্পতিবার (১৫ ফেব্রুয়ারী) বাদ আছর হযরত শাহজালাল (রহ.) মাজার কবরস্থানে জাতীয় জনতা পার্টির কেন্দ্রীয় আইন বিষয়ক সম্পাদক ও সিলেট জেলা কমিটির সভাপতি এডভোকেট তাহমিনুল ইসলাম খানের নেতৃত্বে পুষ্পস্তবক অর্পণ, জিয়ারত ও দোয়া অনুষ্ঠিত হয়।

এসময় উপস্থিত ছিলেন-প্রয়াত জাতীয় জনতা পার্টির চেয়ারম্যান নুরল ইসলাম খানের সহোদর যুক্তরাজ্য প্রবাসী সাইদুল ইসলাম খান, জাতীয় জনতা পার্টির চেয়ারম্যান শাহ আবিদ আলী, মুক্তিযুদ্ধা বিষয়ক সম্পাদক বীর মুক্তিযোদ্ধা কাজী গোলাম মর্তুজা, সিলেট জেলা কমিটির সাধারণ সম্পাদক আকলিছ আহমদ চৌধুরী, সহ-সভাপতি সাবেক সেনা কর্মকর্তা দেলোয়ার হোসেন খান, সেলিম আহমদ চৌধুরী, সাংগঠনিক সম্পাদক আমিনুল ইসলাম বকুল, মহানগর কমিটির সাধারণ সম্পাদক শফিকুর রহমান শফিক, সাংগঠনিক সম্পাদক ফারুক আহমদ চৌধুরী, জেলা কমিটির সাংস্কৃতিক বিষয়ক সম্পাদক তুহিন আহমদ খান, দপ্তর সম্পাদক কিরণ দেবনাথ, মহিলা নগর কমিটির দপ্তর সম্পাদক এম এ রহিম, সদস্য কামাল আহমদ তালুকদার, আবু বক্কর সাদ সহ ওসমানী অনুরাগী বিশিষ্ট ব্যাক্তিবর্গ।

জিয়ারত শেষে গণমাধ্যমের সাথে আলাপকালে পার্টির চেয়ারম্যান শাহ আবিদ আলী বলেন, দলের নীতি নির্ধারকরা আমাকে পার্টির গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্ব পালন করার জন্য চেয়ারম্যান নিযুক্ত করেছেন। ইনশাআল্লাহ আমি বঙ্গবীর জেনারেল এম এ জি ওসমানীর নীতি আদর্শের ভিত্তিতে দলকে এগিয়ে নেয়ার চেষ্টা করব। আমাকে চেয়ারম্যান নিযুক্ত করায় আমি জাতীয় কমিটির ও সিলেটের সকল নেতৃবৃন্দ কে ধন্যবাদ জানাই।

জাতীয় জনতা পার্টির কেন্দ্রীয় আইন বিষয়ক সম্পাদক এডভোকেট তাহমিনুল ইসলাম খান বলেন, দেশ ও জাতি আজ চরম রাজনৈতিক সংকটে আছে এবং নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্য মূলের উর্ধগতি সাধারণ মানুষের ক্রয় ক্ষমতার বাইরে। দেশের মানুষ খুব কষ্টে আছে। এই সময়ে বঙ্গবীর জেনারেল এম এ জি ওসমানীর নীতি আদর্শ বাস্তবায়নের মাধ্যমে জনতার পাশে দাড়াতে হবে। বিজ্ঞপ্তি