০১:১১ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ২৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১১ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ
ওসমানীনগর উপজেলায় মাইক্রোবাসের সঙ্গে ধাক্কায় মোটরসাইকেল আরোহী নিহত

ওসমানীনগর উপজেলায় মাইক্রোবাসের সঙ্গে ধাক্কায় মোটরসাইকেল আরোহী নিহত

print news -

ওসমানীনগর উপজেলায় মাইক্রোবাসের সঙ্গে ধাক্কায় মোটরসাইকেল আরোহী নিহত হয়েছেন। বুধবার(১৭ জানুয়ারী) সকাল ৮টার দিকে ওসমানীনগরের তেরমাইল এলাকায় সিলেট-ঢাকা মহাসড়কে এই ঘটনা ঘটে।

নিহত ব্যক্তি হলেন শফিউল হাসান (২৯)। তিনি ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশে কনস্টেবল পদে কর্মরত ছিলেন। সম্প্রতি তিনি সাময়িক বরখাস্ত হওয়ায় সিলেটের দক্ষিণ সুরমার লালাবাজারের ভালকি গ্রামে বসবাস করছিলেন। তাঁর বাবার নাম নজরুল ইসলাম।

সিলেটের তামাবিল হাইওয়ে পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, শফিউল হাসান সিলেট থেকে মোটরসাইকেল যোগে ওসমানীনগরের গোয়ালাবাজের যাচ্ছিলেন। সকাল ৮টার দিকে ওসমানীনগরের তেরমাইল এলাকায় পৌঁছালে ঢাকা থেকে আসা একটি মাইক্রোবাসের সঙ্গে তাঁর মোটরসাইকেলে ধাক্কা লাগে। এতে গুরুতর আহত হয়ে তিনি ঘটনাস্থলে মারা যান। খবর পেয়ে, ওসমানীনগর থানা-পুলিশ ও তামাবিল হাইওয়ে থানা-পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে লাশটি উদ্ধার করে সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠায়। এ সময় মোটরসাইকেল ও মাইক্রোবাস জব্দ করেছে পুলিশ।

পুলিশ কনস্টেবল শফিউল হাসান সাময়িক বরখাস্ত থাকার বিষয়টি নিশ্চিত করে তামাবিল হাইওয়ে থানার উপ-পরিদর্শক (এস.আই) ইব্রাহিম আকন্দ বলেন, মাইক্রোবাসটি ঢাকার উত্তরা থেকে সিলেটে যাত্রী নিয়ে বেড়াতে এসেছিল বলে প্রাথমিকভাবে জানা গেছে। মাইক্রোবাসের চালক দুর্ঘটনার পর পালিয়ে গেছেন। ঘটনাস্থলে গিয়ে যাত্রীদেরও পাওয়া যায়নি। মোটরসাইকেল ও মাইক্রোবাস জব্দ করে থানায় নেওয়া হয়েছে। আইনি প্রক্রিয়া শেষে লাশ পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হবে।

ট্যাগঃ

ওসমানীনগর উপজেলায় মাইক্রোবাসের সঙ্গে ধাক্কায় মোটরসাইকেল আরোহী নিহত

ওসমানীনগর উপজেলায় মাইক্রোবাসের সঙ্গে ধাক্কায় মোটরসাইকেল আরোহী নিহত

প্রকাশিত হয়েছেঃ ০২:০৯:০৬ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৮ জানুয়ারী ২০২৪
print news -

ওসমানীনগর উপজেলায় মাইক্রোবাসের সঙ্গে ধাক্কায় মোটরসাইকেল আরোহী নিহত হয়েছেন। বুধবার(১৭ জানুয়ারী) সকাল ৮টার দিকে ওসমানীনগরের তেরমাইল এলাকায় সিলেট-ঢাকা মহাসড়কে এই ঘটনা ঘটে।

নিহত ব্যক্তি হলেন শফিউল হাসান (২৯)। তিনি ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশে কনস্টেবল পদে কর্মরত ছিলেন। সম্প্রতি তিনি সাময়িক বরখাস্ত হওয়ায় সিলেটের দক্ষিণ সুরমার লালাবাজারের ভালকি গ্রামে বসবাস করছিলেন। তাঁর বাবার নাম নজরুল ইসলাম।

সিলেটের তামাবিল হাইওয়ে পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, শফিউল হাসান সিলেট থেকে মোটরসাইকেল যোগে ওসমানীনগরের গোয়ালাবাজের যাচ্ছিলেন। সকাল ৮টার দিকে ওসমানীনগরের তেরমাইল এলাকায় পৌঁছালে ঢাকা থেকে আসা একটি মাইক্রোবাসের সঙ্গে তাঁর মোটরসাইকেলে ধাক্কা লাগে। এতে গুরুতর আহত হয়ে তিনি ঘটনাস্থলে মারা যান। খবর পেয়ে, ওসমানীনগর থানা-পুলিশ ও তামাবিল হাইওয়ে থানা-পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে লাশটি উদ্ধার করে সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠায়। এ সময় মোটরসাইকেল ও মাইক্রোবাস জব্দ করেছে পুলিশ।

পুলিশ কনস্টেবল শফিউল হাসান সাময়িক বরখাস্ত থাকার বিষয়টি নিশ্চিত করে তামাবিল হাইওয়ে থানার উপ-পরিদর্শক (এস.আই) ইব্রাহিম আকন্দ বলেন, মাইক্রোবাসটি ঢাকার উত্তরা থেকে সিলেটে যাত্রী নিয়ে বেড়াতে এসেছিল বলে প্রাথমিকভাবে জানা গেছে। মাইক্রোবাসের চালক দুর্ঘটনার পর পালিয়ে গেছেন। ঘটনাস্থলে গিয়ে যাত্রীদেরও পাওয়া যায়নি। মোটরসাইকেল ও মাইক্রোবাস জব্দ করে থানায় নেওয়া হয়েছে। আইনি প্রক্রিয়া শেষে লাশ পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হবে।