০৫:২১ অপরাহ্ন, বুধবার, ১৯ জুন ২০২৪, ৫ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ইজতেমা র দুই মুসল্লির মৃ ত্যু

print news -

নিউজ ডেস্ক:  গাজীপুরের টঙ্গীতে ৫৭তম প্রথম পর্বের ইজতেমার দুই মুসল্লির মৃত্যু হয়েছে। বৃহস্পতিবার (৩১ জানুয়ারি) দুপুর আড়াইটায় এবং সন্ধ্যা সাড়ে ৬টার দিকে দুই জনের মৃত্যু হয়।

নিহতরা হলেন– ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সরাইল উপজেলার অরুয়াইল ইউনিয়নের ধামাউরা গ্রামের মৃত বুদু মিয়ার ছেলে ইউনুছ মিয়া (৬০) এবং চাঁপাইনবাবগঞ্জ সদর উপজেলার চৌহদ্দী গ্রামের সাইফুল ইসলামের ছেলে জামাল উদ্দিন (৪০)।

নিহত ইউনুছ মিয়ার সঙ্গে থাকা মুসল্লি মজিবুর রহমান জানান, একটি কাফেলায় তারা ২৩ জন ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সরাইল থেকে ইজতেমার উদ্দেশ্যে রওনা দেন। তাদের মধ্যে ইউনুছ মিয়া টঙ্গীর কাছাকাছি আসার পর দুবার বমি করেন এবং বাসের ছিট থেকে হেলে পড়েন। টঙ্গীর শহীদ আহসান উল্লাহ মাস্টার জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

https://youtube.com/shorts/TVIj5ygP1HE?feature=share

ওই হাসপাতালের জরুরি বিভাগের চিকিৎসক লুনা আক্তার বলেন, ‘হাসপাতালে নিয়ে আসার আগেই ওই মুসুল্লির মৃত্যু হয়েছে।’

অপরদিকে, বুধবার সকালে চাঁপাইনবাবগঞ্জ থেকে ৪০ জন মুসুল্লির একটি জামাত টঙ্গীর ইজতেমা ময়দানে আসে। ওই দলের আমির (দলনেতা) মনসুর রহমান জানান, বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় নিহত মুসুল্লি জামালসহ কয়েকজন রাতের খাবার প্রস্তুত করছিলেন। এ সময় জামাল হঠাৎ অসুস্থ হয়ে পড়েন। পরে টঙ্গীর শহীদ আহসান উল্লাহ মাস্টার জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

হাসপাতালের জরুরি বিভাগের চিকিৎসক ফারহানা তাসমিন জানান, হাসপাতালে নিয়ে আসার আগেই ওই মুসল্লির মৃত্যু হয়েছে। ধারণা করা হচ্ছে, হৃদযন্ত্রের ক্রিয়া বন্ধ হয়ে তার মৃত্যু হয়েছে।

টঙ্গীর তুরাগ তীরে আয়োজিত বিশ্ব ইজতেমার প্রথম পর্বের আয়োজক কমিটির আমির প্রকৌশলী গিয়াস উদ্দিন জানান, এখন পর্যন্ত ইজতেমায় অংশ নিতে আসা দুই মুসল্লির মৃত্যু হয়েছে। ইজতেমা ময়দানে জানাজা শেষে তাদের লাশ স্বজনদের কাছে বুঝিয়ে দেওয়া হবে।

 

সুত্র: বাংলা ট্রিবিউন

ট্যাগঃ
জনপ্রিয় সংবাদ

বন্যা পরিস্থিতির অবনতি সিলেট, সুনামগঞ্জ ও কুড়িগ্রাম

ইজতেমা র দুই মুসল্লির মৃ ত্যু

প্রকাশিত হয়েছেঃ ০৪:৫৬:০৬ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১ ফেব্রুয়ারী ২০২৪
print news -

নিউজ ডেস্ক:  গাজীপুরের টঙ্গীতে ৫৭তম প্রথম পর্বের ইজতেমার দুই মুসল্লির মৃত্যু হয়েছে। বৃহস্পতিবার (৩১ জানুয়ারি) দুপুর আড়াইটায় এবং সন্ধ্যা সাড়ে ৬টার দিকে দুই জনের মৃত্যু হয়।

নিহতরা হলেন– ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সরাইল উপজেলার অরুয়াইল ইউনিয়নের ধামাউরা গ্রামের মৃত বুদু মিয়ার ছেলে ইউনুছ মিয়া (৬০) এবং চাঁপাইনবাবগঞ্জ সদর উপজেলার চৌহদ্দী গ্রামের সাইফুল ইসলামের ছেলে জামাল উদ্দিন (৪০)।

নিহত ইউনুছ মিয়ার সঙ্গে থাকা মুসল্লি মজিবুর রহমান জানান, একটি কাফেলায় তারা ২৩ জন ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সরাইল থেকে ইজতেমার উদ্দেশ্যে রওনা দেন। তাদের মধ্যে ইউনুছ মিয়া টঙ্গীর কাছাকাছি আসার পর দুবার বমি করেন এবং বাসের ছিট থেকে হেলে পড়েন। টঙ্গীর শহীদ আহসান উল্লাহ মাস্টার জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

https://youtube.com/shorts/TVIj5ygP1HE?feature=share

ওই হাসপাতালের জরুরি বিভাগের চিকিৎসক লুনা আক্তার বলেন, ‘হাসপাতালে নিয়ে আসার আগেই ওই মুসুল্লির মৃত্যু হয়েছে।’

অপরদিকে, বুধবার সকালে চাঁপাইনবাবগঞ্জ থেকে ৪০ জন মুসুল্লির একটি জামাত টঙ্গীর ইজতেমা ময়দানে আসে। ওই দলের আমির (দলনেতা) মনসুর রহমান জানান, বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় নিহত মুসুল্লি জামালসহ কয়েকজন রাতের খাবার প্রস্তুত করছিলেন। এ সময় জামাল হঠাৎ অসুস্থ হয়ে পড়েন। পরে টঙ্গীর শহীদ আহসান উল্লাহ মাস্টার জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

হাসপাতালের জরুরি বিভাগের চিকিৎসক ফারহানা তাসমিন জানান, হাসপাতালে নিয়ে আসার আগেই ওই মুসল্লির মৃত্যু হয়েছে। ধারণা করা হচ্ছে, হৃদযন্ত্রের ক্রিয়া বন্ধ হয়ে তার মৃত্যু হয়েছে।

টঙ্গীর তুরাগ তীরে আয়োজিত বিশ্ব ইজতেমার প্রথম পর্বের আয়োজক কমিটির আমির প্রকৌশলী গিয়াস উদ্দিন জানান, এখন পর্যন্ত ইজতেমায় অংশ নিতে আসা দুই মুসল্লির মৃত্যু হয়েছে। ইজতেমা ময়দানে জানাজা শেষে তাদের লাশ স্বজনদের কাছে বুঝিয়ে দেওয়া হবে।

 

সুত্র: বাংলা ট্রিবিউন