০৬:২৩ অপরাহ্ন, রবিবার, ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১৩ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

 আ.লীগ ও স্বতন্ত্র প্রার্থীদের যে আহ্বান জানালেন শেখ হাসিনা

print news -

 আ.লীগ ও স্বতন্ত্র প্রার্থীদের একজন আরেকজনের খুঁত খুঁজে না বেড়াতে আওয়ামী লীগের পরাজিত প্রার্থীদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন, বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের সভানেত্রী ও  প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এছাড়া যারা দলের মনোনয়ন না পেয়ে আ.লীগ ও স্বতন্ত্র প্রার্থী হয়ে হেরেছেন, তাদেরকেও একই পরামর্শ দিয়েছেন তিনি।

সভায় দলের সভাপতিমণ্ডলী, সম্পাদকমণ্ডলীর সদস্যরা ছাড়াও সহযোগী ও ভাতৃপ্রতীম সংগঠনের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকরা উপস্থিত ছিলেন।

এ সময় শেখ হাসিনা বলেছেন, আওয়ামী লীগের লোকেরা যদি নিজেরা দোষ খুঁজতে থাকে, তাহলে তা বিরোধীদের আরও ‘উৎফুল্ল’ করবে।

সাংবাদিকদের উপস্থিতিতে নির্বাচনে অংশ নেওয়া প্রার্থী ও তাদের সমর্থকদের দোষ না খোঁজার আহ্বান জানিয়ে শেখ হাসিনা বলেন, এই নির্বাচনটা যাতে না হয় এটা নিয়ে অনেক চক্রান্ত ছিল, অনেক ষড়যন্ত্র ছিল। সেই ষড়যন্ত্র মোকাবিলা করেই আমরা নির্বাচনটা করেছি।

তিনি আরও বলেন, আমরা নির্বাচনে সব সময় মনোনয়ন দিয়েছি, আর আমাদের বড় দল, অনেকেই নির্বাচন করতে চায়, সেই জন্য নির্বাচনটা আমরা উন্মুক্ত করে দিয়েছিলাম। সেখানে কেউ জয়ী হয়েছে, কেউ জয়ী হতে পারেনি। সেক্ষেত্রে আমি একটা অনুরোধ করব, একজন আরেকজনকে দোষারোপ করা বা কার কী দোষ ছিল খুঁজে বের করা, এগুলো বন্ধ করতে হবে।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, কাউকে বেশি দোষারোপ করা এবং একে অপরের দোষ ধরা নিয়ে যদি ব্যস্ত থাকি, তাহলে এটা কিন্তু আমাদের বিরোধী দলকে আরও উত্ফুল্ল করবে।

শেখ হাসিনা বলেন, আমাদের দল এবং আরও কয়েকটি দল নির্বাচনে অংশগ্রহণ করেছে। আমরা জনগণের যে সমর্থন পেয়েছি সেটা কাজের স্বীকৃতি। আমরা জনগণের জন্য কাজ করেছি, সেই জন্য মানুষ আমাদের ভোট দিয়েছে। সেখানে হয়ত কেউ জিততে পেরেছে, কেউ পারেনি। হারা জিতা যাই হোক, সেটা মেনে নিয়ে দেশের জন্য, দেশের কল্যাণের জন্য কাজ করতে হবে।

ট্যাগঃ

 আ.লীগ ও স্বতন্ত্র প্রার্থীদের যে আহ্বান জানালেন শেখ হাসিনা

প্রকাশিত হয়েছেঃ ০৭:৫৮:১০ অপরাহ্ন, বুধবার, ১৭ জানুয়ারী ২০২৪
print news -

 আ.লীগ ও স্বতন্ত্র প্রার্থীদের একজন আরেকজনের খুঁত খুঁজে না বেড়াতে আওয়ামী লীগের পরাজিত প্রার্থীদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন, বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের সভানেত্রী ও  প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এছাড়া যারা দলের মনোনয়ন না পেয়ে আ.লীগ ও স্বতন্ত্র প্রার্থী হয়ে হেরেছেন, তাদেরকেও একই পরামর্শ দিয়েছেন তিনি।

সভায় দলের সভাপতিমণ্ডলী, সম্পাদকমণ্ডলীর সদস্যরা ছাড়াও সহযোগী ও ভাতৃপ্রতীম সংগঠনের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকরা উপস্থিত ছিলেন।

এ সময় শেখ হাসিনা বলেছেন, আওয়ামী লীগের লোকেরা যদি নিজেরা দোষ খুঁজতে থাকে, তাহলে তা বিরোধীদের আরও ‘উৎফুল্ল’ করবে।

সাংবাদিকদের উপস্থিতিতে নির্বাচনে অংশ নেওয়া প্রার্থী ও তাদের সমর্থকদের দোষ না খোঁজার আহ্বান জানিয়ে শেখ হাসিনা বলেন, এই নির্বাচনটা যাতে না হয় এটা নিয়ে অনেক চক্রান্ত ছিল, অনেক ষড়যন্ত্র ছিল। সেই ষড়যন্ত্র মোকাবিলা করেই আমরা নির্বাচনটা করেছি।

তিনি আরও বলেন, আমরা নির্বাচনে সব সময় মনোনয়ন দিয়েছি, আর আমাদের বড় দল, অনেকেই নির্বাচন করতে চায়, সেই জন্য নির্বাচনটা আমরা উন্মুক্ত করে দিয়েছিলাম। সেখানে কেউ জয়ী হয়েছে, কেউ জয়ী হতে পারেনি। সেক্ষেত্রে আমি একটা অনুরোধ করব, একজন আরেকজনকে দোষারোপ করা বা কার কী দোষ ছিল খুঁজে বের করা, এগুলো বন্ধ করতে হবে।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, কাউকে বেশি দোষারোপ করা এবং একে অপরের দোষ ধরা নিয়ে যদি ব্যস্ত থাকি, তাহলে এটা কিন্তু আমাদের বিরোধী দলকে আরও উত্ফুল্ল করবে।

শেখ হাসিনা বলেন, আমাদের দল এবং আরও কয়েকটি দল নির্বাচনে অংশগ্রহণ করেছে। আমরা জনগণের যে সমর্থন পেয়েছি সেটা কাজের স্বীকৃতি। আমরা জনগণের জন্য কাজ করেছি, সেই জন্য মানুষ আমাদের ভোট দিয়েছে। সেখানে হয়ত কেউ জিততে পেরেছে, কেউ পারেনি। হারা জিতা যাই হোক, সেটা মেনে নিয়ে দেশের জন্য, দেশের কল্যাণের জন্য কাজ করতে হবে।