১১:৫৪ অপরাহ্ন, রবিবার, ২১ এপ্রিল ২০২৪, ৮ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

বেইলি রোডের অগ্নিকাণ্ড -৪৬টি লাশের মধ্যে ৪৪টি শনাক্ত হয়েছে, ৩৯টি হস্তান্তর করা হয়েছে

বেইলি রোডের অগ্নিকাণ্ড -৪৬টি লাশের মধ্যে ৪৪টি শনাক্ত হয়েছে, ৩৯টি হস্তান্তর করা হয়েছে,

print news -

নিউজ ডেস্ক: রাজধানীর বেইলি রোডের একটি ভবনে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় নিহতদের পরিচয় শনাক্ত করে নিহতদের মরদেহ স্বজনদের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। ৪৬ জনের মধ্যে ৪৪ জনের লাশ শনাক্ত করা হয়েছে। এর মধ্যে ৩৯ জনের মরদেহ হস্তান্তর করা হয়েছে। এছাড়া বাকি সাতজনের মরদেহ ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ডিএমসি) মর্গে রাখা হয়েছে।

শনাক্তকৃতরা হলেন-

১. ফৌজিয়া আফরিন রিয়া (২২), পিতা: কুরবান আলী; কাকরাইল, ঢাকা।
২. পপি রায় (৩৬), পিতা: প্রলেনাথ রায়, মাতা: বসনা রানী রায়; ২১৬ মালিবাগ, শান্তিবাগ, ঢাকা।
৩. সম্প না পোদ্দা র (১১), পিতা: শিপ ন পোদ্দার, মা: পপি রায়; সূত্রাপু র, দয়াগঞ্জ, ঢাকা।
৪. আশরাফুল ইসলাম আসিফ (২৫), পিতা: মৃত জহিরুল ইসলাম; উত্তর গোগান, খিলগাঁও, ঢাকা। গ্রামের বাড়ি ব্রাহ্মণবাড়িয়ার কসবা।
৫. নাজিয়া আক্তার (৩১), পিতা: মোহাম্মদ আলী, মা: নাজনীন আক্তার বেবি; ১৪ আরামবাগ, ঢাকা।
৬. আরহাম মুস্তফা আহমেদ (৬), পিতা: আশিক, মা: নাজিয়া আক্তার; ১৪ আরামবাগ, ঢাকা।
৭. নুরু ল ইসলা ম (৩২), পিতা: মুসলিম; বংশা ল, বেচারাম দেউরী, ঢা কা।
৮. সম্পা সাহা (৪৬), পিতা: জয়ন্ত কুমার পোদ্দার; নবীপুর, মুরাদনগর, কুমিল্লা।
৯. শান্ত হোসেন (২৪), পিতাঃ আমজাদ হোসেন, নারায়ণগঞ্জ, ফতুল্লা।
১০. মায়শা কবির মাহি (২১), পিতা: কবির খান, (ঠিকানা তাৎক্ষণিকভাবে জানা যায়নি)।
১১. মেহরা কবির দোলা (২৯), পিতা: কবির খান, মতিঝিল এজিবি কলোনি, ঢাকা।
১২. জান্নাতী তাজরিন নিকিতা (২৩), পিতা: গোলাম মহিউদ্দিন; অর্চিত বাড়ি, শান্তিনগর, কাকরাইল। ব্র্যাক বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রী।
১৩. লুৎফুর নাহার করিম (৫০), মা: জহুরা ইসলাম; রমনা সার্কিট হাউস, ঢাকা। ভিকারুননিসা নুন স্কুল অ্যান্ড কলেজের ইংরেজি বিভাগের শিক্ষক।
১৪. মোহাম্মদ জিহাদ (২২), পিতা: জাকির হোসেন; পূর্ব আলীবাগ, কালকিনি, মাদারীপুর।
১৫. কামরুল হাসান (২০), পিতা: কবির হাসান; যশোর সদর উপজেলার মধ্যপাড়া।
১৬. দিদারুল হক (২৩), পিতা: মইনুল হক; উত্তর পাড়া, ভোলা সদর।
১৭. অ্যাডভোকেট আতাউর রহমান শামীম (৬৫), পিতা: ফজলুল রহমান; কুলাউড়া, মৌলভীবাজার। আমেরিকা আওয়ামী লীগের প্রতিষ্ঠাতা নেতা ড.
১৮. মেহেদী হাসান (২৭), পিতা: মোয়াজ্জেম মিয়া; মির্জাপুর, টাঙ্গাইল।
১৯. নুসরাত জাহান শিমু (১৯), পিতা: আব্দুল কুদ্দুস; হাতিগাড়া, কুমিল্লা সদর, কুমিল্লা।
২০. সৈয়দা ফাতেমা তুজ জোহরা (১৬), পিতা: সৈয়দ মোবারক কাওসার; ৩৭৭ মগবাজার, মধুবাগ, ঢাকা। গ্রামের বাড়ি শাহবাজপুর, কসবা, ব্রাহ্মণবাড়িয়া। নিহত হয়েছেন একই পরিবারের পাঁচ সদস্য।
২১. সৈয়দ আবদুল্লাহ (৮), সৈয়দ মোবারক কাউসার (ভাই)। (ঠিকানা অবিলম্বে জানা যায়নি)।
২২. স্বপ্না আক্তার (৪০), আবদুল্লাহর মা। (ঠিকানা অবিলম্বে জানা যায়নি)।
২৩. সৈয় দ মোবারক কাউসা র (৪৮), পিতা: সৈয়দ আবু ল কাশেম; তিনি ইতালির বাসিন্দা ছিলে ন।
২৪. সৈয়দ আমেনা আখতার নূর (১৩), সৈয়দ মোবারক কাওসার। শাহাবাজপুর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া। বাবা ছিলেন ইতালীয় প্রবাসী।
২৫. জারি ন তাসনিম প্রিয় তি (২০), পিতা: আওলা দ হোসেন; বিনোদ পুর, মুন্সীগঞ্জ সদ র।
২৫. জুলে ল গাজী (৩০), পিতা: ইস মাইল গাজী; গুল শান মডেল টাউ ন, বাড্ডা, ঢা কা।
২৬. প্রিয়াঙ্কা রায় (১৮), পিতা: উত্তম কুমার রায়, মাতা: রুবিয়া রায়। ১৩৪, মালিবাগ ফার্স্ট লেন, শাহজাহানপুর।
২৭. রু বি রা য় (৪৮), স্বামী: উত্ত ম কুমা র রা য়।
২৮. তুষার হাওলাদার (২৩), পিতা: দীনেশ চন্দ্র হাওলাদার; ঝালকাঠির তালগাছিয়া, কাঁথালিয়া উপজেলা র মো. বর্তমানে খিলগাঁ ও থাকতেন। একটি প্রাইভে ট কোম্পানিতে চাক রি করতেন।
২৯. কে এম মিনহাজ উদ্দিন (২৫), পিতাঃ ওয়ালীউল্লাহ খান, ইসলামপুর গ্রাম, চাঁদপুর সদর উপজেলা। তিন ভাই বর্তমানে মিরপুরের শেওড়াপাড়ায় থাকেন। জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের সিএসই বিভাগের মাস্টার্সের ছাত্র, একটি আইটি ফার্মে চাকরি করতেন।
৩০. সাগর (২৪), পিতা: তালেব প্রামাণিক, জেলা: ফরিদপুর। সিকিউরিটি গার্ড হিসেবে কাজ করতেন।

বার্ন ইনস্টিটিউটে রাখা ১০টি লাশের পরিচয়

৩১. তানজিলা নওরীন (৩৫), পিতাঃ নুরুল আলম, পিরোজপুর সদর।
৩২. শিপন (২১), পিতা: ফজর আলী, শ্রীবরদী উপজেলা কালাচর, শেরপুর জেলা।
৩৩. আলি সা (১৩), পিতা: ফোরকা ন; কালারচর, রমনা, ১০৪ কাক রাইল।
৩৪. নাহিয়া ন আমিন (১৯), পিতা: রিয়াজু ল আমিন, বরিশাল সদর কাউনি য়া। বুয়েটে কম্পিউটার সায়েন্সে র ছাত্র।
৩৫. সংকল্প সান (৮), পিতা: শিপন পোদ্দার, যাত্রাবাড়ী, 26/সি দয়াগঞ্জ জেলেপাড়া।
৩৬. লামিশা ইসলাম (২০), পিতা: নাসিরুল ইসলাম, রমনা, মালিবাগ। পুলিশের অতিরিক্ত ডিআইজির মেয়ে।
৩৭. মোঃ নাঈম (১৮), পিতাঃ মোঃ নান্টু, বরগুনা।
৩৮. অভিশ্রুতি শাস্ত্রী (২৫), The Report.com নিউজপোর্টালের রিপোর্টার।
৩৯. আসিফ (২৫), পিতা: আবুল খায়ের। সেনাবাগ নোয়াখালী।

এছাড়া শুক্রবার রাতে ঢামেক মর্গে তিনজনের পরিচয় পাওয়া গেছে। তারা হল-

৪০. শাহ জালাল উদ্দিন (৩৪), পিতাঃ বীর মুক্তিযোদ্ধা ডাঃ আবুল কাশেম, পূর্ব গোয়ালিয়া, উখিয়া, কক্সবাজার। তিনি কেরানীগঞ্জের পানগাঁও অফিসে কাস্টমসের সহকারী রাজস্ব কর্মকর্তা হিসেবে কর্মরত ছিলেন।
৪১. মেহরুন নেশা জাহান হেলালী (২৪), পিতা: মুক্তার আলম হেলালী (শাহ জালাল উদ্দিনের স্ত্রী)
৪২. ফাইরুজ কাশেম জামিরা (৩), শাহ জালালউদ্দিন ও মেহরুন নেসা জাহান হেলালীর সন্তান।

যারা বার্ন ইনস্টিটিউট ও ঢাকা মেডিকেলে ভর্তি হয়েছেন

বার্ন ইনস্টিটিউ টে ভর্তি হয়েছেন— ফয়সাল আহমেদ (৩৮), সুজন মণ্ডল (২৪), প্রহিত (২৫), অবিনা (২৩), রাকিব হাসান (২৮), কাজী নওশাদ হাসান আনান (২০), আজাদ আবরার (২৪), মেহেদী হাসান (২৪)। 24)। ৩৫), রাকিব (২৫) ও সুমাই য়া (৩১)। ইকবাল হোসেন (২৪) ও জোবায়ের (২১)

https://youtube.com/shorts/KYhP-OjI_zU?feature=share

ট্যাগঃ
জনপ্রিয় সংবাদ

মুক্তিযুদ্ধা সংগঠক আব্দুর রাজ্জাকের ইন্তেকাল।। বিশিষ্টজনের শোক প্রকাশ

বেইলি রোডের অগ্নিকাণ্ড -৪৬টি লাশের মধ্যে ৪৪টি শনাক্ত হয়েছে, ৩৯টি হস্তান্তর করা হয়েছে

প্রকাশিত হয়েছেঃ ০৫:৩৪:২৯ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ৩ মার্চ ২০২৪
print news -

নিউজ ডেস্ক: রাজধানীর বেইলি রোডের একটি ভবনে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় নিহতদের পরিচয় শনাক্ত করে নিহতদের মরদেহ স্বজনদের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। ৪৬ জনের মধ্যে ৪৪ জনের লাশ শনাক্ত করা হয়েছে। এর মধ্যে ৩৯ জনের মরদেহ হস্তান্তর করা হয়েছে। এছাড়া বাকি সাতজনের মরদেহ ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ডিএমসি) মর্গে রাখা হয়েছে।

শনাক্তকৃতরা হলেন-

১. ফৌজিয়া আফরিন রিয়া (২২), পিতা: কুরবান আলী; কাকরাইল, ঢাকা।
২. পপি রায় (৩৬), পিতা: প্রলেনাথ রায়, মাতা: বসনা রানী রায়; ২১৬ মালিবাগ, শান্তিবাগ, ঢাকা।
৩. সম্প না পোদ্দা র (১১), পিতা: শিপ ন পোদ্দার, মা: পপি রায়; সূত্রাপু র, দয়াগঞ্জ, ঢাকা।
৪. আশরাফুল ইসলাম আসিফ (২৫), পিতা: মৃত জহিরুল ইসলাম; উত্তর গোগান, খিলগাঁও, ঢাকা। গ্রামের বাড়ি ব্রাহ্মণবাড়িয়ার কসবা।
৫. নাজিয়া আক্তার (৩১), পিতা: মোহাম্মদ আলী, মা: নাজনীন আক্তার বেবি; ১৪ আরামবাগ, ঢাকা।
৬. আরহাম মুস্তফা আহমেদ (৬), পিতা: আশিক, মা: নাজিয়া আক্তার; ১৪ আরামবাগ, ঢাকা।
৭. নুরু ল ইসলা ম (৩২), পিতা: মুসলিম; বংশা ল, বেচারাম দেউরী, ঢা কা।
৮. সম্পা সাহা (৪৬), পিতা: জয়ন্ত কুমার পোদ্দার; নবীপুর, মুরাদনগর, কুমিল্লা।
৯. শান্ত হোসেন (২৪), পিতাঃ আমজাদ হোসেন, নারায়ণগঞ্জ, ফতুল্লা।
১০. মায়শা কবির মাহি (২১), পিতা: কবির খান, (ঠিকানা তাৎক্ষণিকভাবে জানা যায়নি)।
১১. মেহরা কবির দোলা (২৯), পিতা: কবির খান, মতিঝিল এজিবি কলোনি, ঢাকা।
১২. জান্নাতী তাজরিন নিকিতা (২৩), পিতা: গোলাম মহিউদ্দিন; অর্চিত বাড়ি, শান্তিনগর, কাকরাইল। ব্র্যাক বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রী।
১৩. লুৎফুর নাহার করিম (৫০), মা: জহুরা ইসলাম; রমনা সার্কিট হাউস, ঢাকা। ভিকারুননিসা নুন স্কুল অ্যান্ড কলেজের ইংরেজি বিভাগের শিক্ষক।
১৪. মোহাম্মদ জিহাদ (২২), পিতা: জাকির হোসেন; পূর্ব আলীবাগ, কালকিনি, মাদারীপুর।
১৫. কামরুল হাসান (২০), পিতা: কবির হাসান; যশোর সদর উপজেলার মধ্যপাড়া।
১৬. দিদারুল হক (২৩), পিতা: মইনুল হক; উত্তর পাড়া, ভোলা সদর।
১৭. অ্যাডভোকেট আতাউর রহমান শামীম (৬৫), পিতা: ফজলুল রহমান; কুলাউড়া, মৌলভীবাজার। আমেরিকা আওয়ামী লীগের প্রতিষ্ঠাতা নেতা ড.
১৮. মেহেদী হাসান (২৭), পিতা: মোয়াজ্জেম মিয়া; মির্জাপুর, টাঙ্গাইল।
১৯. নুসরাত জাহান শিমু (১৯), পিতা: আব্দুল কুদ্দুস; হাতিগাড়া, কুমিল্লা সদর, কুমিল্লা।
২০. সৈয়দা ফাতেমা তুজ জোহরা (১৬), পিতা: সৈয়দ মোবারক কাওসার; ৩৭৭ মগবাজার, মধুবাগ, ঢাকা। গ্রামের বাড়ি শাহবাজপুর, কসবা, ব্রাহ্মণবাড়িয়া। নিহত হয়েছেন একই পরিবারের পাঁচ সদস্য।
২১. সৈয়দ আবদুল্লাহ (৮), সৈয়দ মোবারক কাউসার (ভাই)। (ঠিকানা অবিলম্বে জানা যায়নি)।
২২. স্বপ্না আক্তার (৪০), আবদুল্লাহর মা। (ঠিকানা অবিলম্বে জানা যায়নি)।
২৩. সৈয় দ মোবারক কাউসা র (৪৮), পিতা: সৈয়দ আবু ল কাশেম; তিনি ইতালির বাসিন্দা ছিলে ন।
২৪. সৈয়দ আমেনা আখতার নূর (১৩), সৈয়দ মোবারক কাওসার। শাহাবাজপুর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া। বাবা ছিলেন ইতালীয় প্রবাসী।
২৫. জারি ন তাসনিম প্রিয় তি (২০), পিতা: আওলা দ হোসেন; বিনোদ পুর, মুন্সীগঞ্জ সদ র।
২৫. জুলে ল গাজী (৩০), পিতা: ইস মাইল গাজী; গুল শান মডেল টাউ ন, বাড্ডা, ঢা কা।
২৬. প্রিয়াঙ্কা রায় (১৮), পিতা: উত্তম কুমার রায়, মাতা: রুবিয়া রায়। ১৩৪, মালিবাগ ফার্স্ট লেন, শাহজাহানপুর।
২৭. রু বি রা য় (৪৮), স্বামী: উত্ত ম কুমা র রা য়।
২৮. তুষার হাওলাদার (২৩), পিতা: দীনেশ চন্দ্র হাওলাদার; ঝালকাঠির তালগাছিয়া, কাঁথালিয়া উপজেলা র মো. বর্তমানে খিলগাঁ ও থাকতেন। একটি প্রাইভে ট কোম্পানিতে চাক রি করতেন।
২৯. কে এম মিনহাজ উদ্দিন (২৫), পিতাঃ ওয়ালীউল্লাহ খান, ইসলামপুর গ্রাম, চাঁদপুর সদর উপজেলা। তিন ভাই বর্তমানে মিরপুরের শেওড়াপাড়ায় থাকেন। জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের সিএসই বিভাগের মাস্টার্সের ছাত্র, একটি আইটি ফার্মে চাকরি করতেন।
৩০. সাগর (২৪), পিতা: তালেব প্রামাণিক, জেলা: ফরিদপুর। সিকিউরিটি গার্ড হিসেবে কাজ করতেন।

বার্ন ইনস্টিটিউটে রাখা ১০টি লাশের পরিচয়

৩১. তানজিলা নওরীন (৩৫), পিতাঃ নুরুল আলম, পিরোজপুর সদর।
৩২. শিপন (২১), পিতা: ফজর আলী, শ্রীবরদী উপজেলা কালাচর, শেরপুর জেলা।
৩৩. আলি সা (১৩), পিতা: ফোরকা ন; কালারচর, রমনা, ১০৪ কাক রাইল।
৩৪. নাহিয়া ন আমিন (১৯), পিতা: রিয়াজু ল আমিন, বরিশাল সদর কাউনি য়া। বুয়েটে কম্পিউটার সায়েন্সে র ছাত্র।
৩৫. সংকল্প সান (৮), পিতা: শিপন পোদ্দার, যাত্রাবাড়ী, 26/সি দয়াগঞ্জ জেলেপাড়া।
৩৬. লামিশা ইসলাম (২০), পিতা: নাসিরুল ইসলাম, রমনা, মালিবাগ। পুলিশের অতিরিক্ত ডিআইজির মেয়ে।
৩৭. মোঃ নাঈম (১৮), পিতাঃ মোঃ নান্টু, বরগুনা।
৩৮. অভিশ্রুতি শাস্ত্রী (২৫), The Report.com নিউজপোর্টালের রিপোর্টার।
৩৯. আসিফ (২৫), পিতা: আবুল খায়ের। সেনাবাগ নোয়াখালী।

এছাড়া শুক্রবার রাতে ঢামেক মর্গে তিনজনের পরিচয় পাওয়া গেছে। তারা হল-

৪০. শাহ জালাল উদ্দিন (৩৪), পিতাঃ বীর মুক্তিযোদ্ধা ডাঃ আবুল কাশেম, পূর্ব গোয়ালিয়া, উখিয়া, কক্সবাজার। তিনি কেরানীগঞ্জের পানগাঁও অফিসে কাস্টমসের সহকারী রাজস্ব কর্মকর্তা হিসেবে কর্মরত ছিলেন।
৪১. মেহরুন নেশা জাহান হেলালী (২৪), পিতা: মুক্তার আলম হেলালী (শাহ জালাল উদ্দিনের স্ত্রী)
৪২. ফাইরুজ কাশেম জামিরা (৩), শাহ জালালউদ্দিন ও মেহরুন নেসা জাহান হেলালীর সন্তান।

যারা বার্ন ইনস্টিটিউট ও ঢাকা মেডিকেলে ভর্তি হয়েছেন

বার্ন ইনস্টিটিউ টে ভর্তি হয়েছেন— ফয়সাল আহমেদ (৩৮), সুজন মণ্ডল (২৪), প্রহিত (২৫), অবিনা (২৩), রাকিব হাসান (২৮), কাজী নওশাদ হাসান আনান (২০), আজাদ আবরার (২৪), মেহেদী হাসান (২৪)। 24)। ৩৫), রাকিব (২৫) ও সুমাই য়া (৩১)। ইকবাল হোসেন (২৪) ও জোবায়ের (২১)

https://youtube.com/shorts/KYhP-OjI_zU?feature=share