১০:৫৮ অপরাহ্ন, সোমবার, ২৪ জুন ২০২৪, ১০ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

২৬ ফেব্রুয়ারি করোনা টিকার প্রথম ডোজ দেওয়া বন্ধ: স্বাস্থ্যের ডিজি

করোনা টিকার প্রথম ডোজ দেওয়া বন্ধ: স্বাস্থ্যের ডিজি

print news -

বিয়ানীবাজার প্রতিনিধি:

আগামী ২৬ ফেব্রুয়ারি শেষ হচ্ছে করোনা টিকার ১ম ডোজ দেয়ার কার্যক্রম বলে জানিয়েছেন স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক অধ্যাপক এ বি এম খুরশীদ আলম।

মঙ্গলবার (১৫ ফেব্রুয়ারি) সাংবাদিকদের একথা জানিয়েছেন তিনি।  যারা এখনও টিকা নেননি তাদের সবাইকে টিকা নেয়ার আহ্বান জানান স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক।

তিনি বলেন, আগামী ২৬ ফেব্রুয়ারি সারাদেশে একদিনে এক কোটি করোনা টিকা ক্যাম্পেইনের মধ্য দিয়ে প্রথম ডোজ টিকাদান সম্পন্ন হবে। এরপরে দ্বিতীয় ডোজ ও বুস্টার ডোজ প্রদানের কার্যক্রম আরও জোরদার করা হবে। যারা এখনও নেননি আজই নিকটস্থ কেন্দ্র থেকে ভ্যাক্সিন নিন, সুরক্ষিত থাকুন।

স্বাস্থ্য মহাপরিচালক বলেন, সম্প্রতি এক সমীক্ষায় দেখা গেছে, করোনা সংক্রমণে আক্রান্ত হয়ে যারা হাসপাতালে ভর্তি হয়েছিলেন এবং তাদের মধ্যে যারা মারা গিয়েছেন, তাদের বেশিরভাগই টিকা নেননি। আমরা দেখেছি, যারা টিকা নিয়েছেন তাদের মধ্যে মৃত্যুর হার কম। পাশাপাশি হাসপাতালে ভর্তির সংখ্যাও কম। এই অবস্থায় আমরা আহ্বান করছি দ্রুততম সময়ে সবাই টিকা নিন। এর মাধ্যমে নিজে সুরক্ষিত থাকুন ও দেশকে সুরক্ষিত রাখুন।

গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ঐকান্তিক প্রচেষ্টায় করোনা রোধকল্পে জনগণকে বিনামূল্যে করোনা ভ্যাক্সিন প্রদান কার্যক্রম সফল করতে ১৭ ফেব্রুয়ারী উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে বিভিন্ন দপ্তরের কর্মকর্তা বৃন্দ বিভিন্ন রাজনৈতিক নেত্রীবৃন্দ, সামাজিক সংগঠন, ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান এবং প্রেসক্লাবের প্রতিনিধি দের নিয়ে এক মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়। এতে উপস্থিত ছিলেন বিয়ানীবাজার উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান  আবুল কাশেম পল্লব, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আশিক নুর, উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাঃ মোঃ দেলোয়ার হোসেন, আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডাঃআবু ইসহাক আজাদ।

উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাঃ মোঃ দেলোয়ার হোসেন বলেন, পৌরসভা সহ, প্রতিটি ইউনিয়নে ওয়ার্ড ভিত্তিক এবং বিয়ানীবাজারের ২৩ কমিউনিটি ক্লিনিকে আজ থেকে এই কার্যক্রম চলমান থাকবে এবং ২৬ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত সারা দেশে ‘এক দিনে এক কোটি’ কোভিড টিকা দেওয়ার কার্যক্রম পরিচালিত হবে। এরপর দ্বিতীয় ও বুস্টার ডোজ কার্যক্রম আরও গতিশীল করা হবে।

তিনি আরোও বলেন, ‘তখন আমরা দ্বিতীয় ও বুস্টার ডোজ নিয়ে ব্যস্ত থাকব। ফলে যাঁরা এখনো করোনাভাইরাসের টিকার প্রথম ডোজ নেননি, তাঁরা বিলম্ব না করে নিকটস্থ টিকাদানকেন্দ্র থেকে টিকা নেওয়ার আহ্বান জানান।

টিকা নিন, মাস্ক পড়ুন, করোনা প্রতিরোধ করুন।

জনপ্রিয় সংবাদ

বন্যা পরিস্থিতির অবনতি সিলেট, সুনামগঞ্জ ও কুড়িগ্রাম

২৬ ফেব্রুয়ারি করোনা টিকার প্রথম ডোজ দেওয়া বন্ধ: স্বাস্থ্যের ডিজি

প্রকাশিত হয়েছেঃ ০৯:৩৬:৪৪ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৭ ফেব্রুয়ারী ২০২২
print news -

বিয়ানীবাজার প্রতিনিধি:

আগামী ২৬ ফেব্রুয়ারি শেষ হচ্ছে করোনা টিকার ১ম ডোজ দেয়ার কার্যক্রম বলে জানিয়েছেন স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক অধ্যাপক এ বি এম খুরশীদ আলম।

মঙ্গলবার (১৫ ফেব্রুয়ারি) সাংবাদিকদের একথা জানিয়েছেন তিনি।  যারা এখনও টিকা নেননি তাদের সবাইকে টিকা নেয়ার আহ্বান জানান স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক।

তিনি বলেন, আগামী ২৬ ফেব্রুয়ারি সারাদেশে একদিনে এক কোটি করোনা টিকা ক্যাম্পেইনের মধ্য দিয়ে প্রথম ডোজ টিকাদান সম্পন্ন হবে। এরপরে দ্বিতীয় ডোজ ও বুস্টার ডোজ প্রদানের কার্যক্রম আরও জোরদার করা হবে। যারা এখনও নেননি আজই নিকটস্থ কেন্দ্র থেকে ভ্যাক্সিন নিন, সুরক্ষিত থাকুন।

স্বাস্থ্য মহাপরিচালক বলেন, সম্প্রতি এক সমীক্ষায় দেখা গেছে, করোনা সংক্রমণে আক্রান্ত হয়ে যারা হাসপাতালে ভর্তি হয়েছিলেন এবং তাদের মধ্যে যারা মারা গিয়েছেন, তাদের বেশিরভাগই টিকা নেননি। আমরা দেখেছি, যারা টিকা নিয়েছেন তাদের মধ্যে মৃত্যুর হার কম। পাশাপাশি হাসপাতালে ভর্তির সংখ্যাও কম। এই অবস্থায় আমরা আহ্বান করছি দ্রুততম সময়ে সবাই টিকা নিন। এর মাধ্যমে নিজে সুরক্ষিত থাকুন ও দেশকে সুরক্ষিত রাখুন।

গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ঐকান্তিক প্রচেষ্টায় করোনা রোধকল্পে জনগণকে বিনামূল্যে করোনা ভ্যাক্সিন প্রদান কার্যক্রম সফল করতে ১৭ ফেব্রুয়ারী উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে বিভিন্ন দপ্তরের কর্মকর্তা বৃন্দ বিভিন্ন রাজনৈতিক নেত্রীবৃন্দ, সামাজিক সংগঠন, ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান এবং প্রেসক্লাবের প্রতিনিধি দের নিয়ে এক মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়। এতে উপস্থিত ছিলেন বিয়ানীবাজার উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান  আবুল কাশেম পল্লব, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আশিক নুর, উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাঃ মোঃ দেলোয়ার হোসেন, আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডাঃআবু ইসহাক আজাদ।

উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাঃ মোঃ দেলোয়ার হোসেন বলেন, পৌরসভা সহ, প্রতিটি ইউনিয়নে ওয়ার্ড ভিত্তিক এবং বিয়ানীবাজারের ২৩ কমিউনিটি ক্লিনিকে আজ থেকে এই কার্যক্রম চলমান থাকবে এবং ২৬ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত সারা দেশে ‘এক দিনে এক কোটি’ কোভিড টিকা দেওয়ার কার্যক্রম পরিচালিত হবে। এরপর দ্বিতীয় ও বুস্টার ডোজ কার্যক্রম আরও গতিশীল করা হবে।

তিনি আরোও বলেন, ‘তখন আমরা দ্বিতীয় ও বুস্টার ডোজ নিয়ে ব্যস্ত থাকব। ফলে যাঁরা এখনো করোনাভাইরাসের টিকার প্রথম ডোজ নেননি, তাঁরা বিলম্ব না করে নিকটস্থ টিকাদানকেন্দ্র থেকে টিকা নেওয়ার আহ্বান জানান।

টিকা নিন, মাস্ক পড়ুন, করোনা প্রতিরোধ করুন।