০৫:৫৩ অপরাহ্ন, রবিবার, ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১৩ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ
প্রবাসী বাংলাদেশীরা দেশের উন্নয়নে নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছেন -ড. এ. কে. আব্দুল মোমেন

সিলেট এডুকেশন ট্রাস্ট ইউকের উদ্যোগে ছাত্র-ছাত্রীদের ভর্তি ফি অনুদান প্রদান

print news -

সিলেট বৃহত্তর সিলেট এডুকেশন ট্রাস্ট ইউকের উদ্যোগে ও বাগিরঘাট যুব সংঘের সহযোগিতায় শুক্রবার (১৯ জানুয়ারি) সন্ধ্যা ৬টায় নগরীর হিলভিউ কনভেনশন হলে অস্বচ্ছল ছাত্র-ছাত্রীদের ভর্তি ফি অনুদান প্রদান করা হয়েছে।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে সিলেট-১ আসনের নবনির্বাচিত সংসদ সদস্য ও সাবেক পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ. কে. আব্দুল মোমেন এমপি বলেন, প্রবাসী বাংলাদেশীরা দেশের উন্নয়নে নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছেন। তারা দেশ ও সমাজের উন্নয়নে এক পর এক প্রদক্ষেণ গ্রহণ করে যাচ্ছেন। আমি প্রত্যেক প্রবাসীদের সম্মান ও শ্রদ্ধা জানাই। আশা করি অতিতের ন্যায় তারা ভবিষ্যতেও দেশের কল্যাণে কাজ করে যাবেন। যে সকল প্রবাসীরা এই উদ্যোগ গ্রহণ করেছেন তারা জাতীয় বীর। তাদের এ মহতি উদ্যোগ ভবিষ্যতেও চলমান থাকবে এই আশাবাদ ব্যক্ত করি।
শুরুতে স্বাগত বক্তব্য রাখেন ট্রাস্টের সভাপতি মুহিব উদ্দিন। তিনি বলেন, আমরা প্রবাসীরা প্রবাসে থাকলেও দেশের প্রতি আমাদের হৃদয়ের টান সব সময় থাকে। দেশের উন্নয়নের জন্য প্রবাসীরা নিরলস ভাবে কাজ করে যাচ্ছেন। বৃহত্তর সিলেট এডুকেশন ট্রাস্ট ইউকে প্রতি বছর সিলেট বিভাগের অস্বচ্ছল ছাত্র-ছাত্রীদের সহায়তা করে যাচ্ছে। এরই ধারাবাহিকতায় এ বছর সিলেট বিভাগের ৪৪টি স্কুলের ২ হাজার ছাত্র-ছাত্রীদের সহায়তা করা হচ্ছে। শুধু দেশেই নয় সিলেট বিভাগের যেসব ছাত্র-ছাত্রী ব্রিটেনে উচ্চ শিক্ষার্থে অবস্থান করেন, তাদেরকেও এই ট্রাস্ট সহায়তা করে থাকে। আগামীতে সিলেট বিভাগের আরো বেশি স্কুলের ছাত্র-ছাত্রীদের সহায়তা করার আন্তরিক ইচ্ছা রয়েছে। সিলেটে অটিজম শিশুদের নিয়ে কাজ করার আগ্রহ রয়েছে।  তাই সকলকে এ ব্যাপারে সহযোগিতার আহ্বান জানান তিনি।
বিশেষ অতিথির বক্তব্যে সিলেট সিটি কর্পোরেশনের মেয়র আনোয়ারুজ্জামান চৌধুরী বলেন, আমিও একজন প্রবাসী। প্রবাসীরা কিভাবে তাদের দেশ মাটির কথা চিন্তা করে সেটা আমি অনুধাবন করি। প্রবাসীদের এই প্রয়াস সিলেটের অস্বচ্ছল ছাত্র-ছাত্রীদের ভবিষ্যত শিক্ষা জীবন গঠনে সহায়ক হবে।
ট্রাস্টের সেক্রেটারী জামাল উদ্দিন ও ইসি মেম্বার মইনুদ্দিন আনসারের যৌথ পরিচালনায় বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন ট্রাস্টের এডভাইজার সৈয়দ আবুল বাসার মাসুম, গোলাপগঞ্জ উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মঞ্জুর কাদির শাফি চৌধুরী এলিম, সিলেট সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আশফাক আহমদ।
অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন ট্রাস্টের ট্রাস্টি মামুনুর রশিদ, অলিউর রহমান মলাই, সিলেট শিক্ষা বোর্ডের স্কুল পরিদর্শক মইনুল হোসেন, সিলেট জেলা স্কাউটের সম্পাদক মো. হিফজুর রহমান খাঁন সহ বাগিরঘাট যুব সংঘের কর্মকর্তাবৃন্দ। এ সময় সিলেট বিভাগের অনুদান প্রাপ্ত স্কুলের সভাপতি ও প্রধান শিক্ষক উপস্থিত ছিলেন। বিজ্ঞপ্তি

ট্যাগঃ

প্রবাসী বাংলাদেশীরা দেশের উন্নয়নে নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছেন -ড. এ. কে. আব্দুল মোমেন

সিলেট এডুকেশন ট্রাস্ট ইউকের উদ্যোগে ছাত্র-ছাত্রীদের ভর্তি ফি অনুদান প্রদান

প্রকাশিত হয়েছেঃ ০১:৩৭:৩৬ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ২১ জানুয়ারী ২০২৪
print news -

সিলেট বৃহত্তর সিলেট এডুকেশন ট্রাস্ট ইউকের উদ্যোগে ও বাগিরঘাট যুব সংঘের সহযোগিতায় শুক্রবার (১৯ জানুয়ারি) সন্ধ্যা ৬টায় নগরীর হিলভিউ কনভেনশন হলে অস্বচ্ছল ছাত্র-ছাত্রীদের ভর্তি ফি অনুদান প্রদান করা হয়েছে।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে সিলেট-১ আসনের নবনির্বাচিত সংসদ সদস্য ও সাবেক পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ. কে. আব্দুল মোমেন এমপি বলেন, প্রবাসী বাংলাদেশীরা দেশের উন্নয়নে নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছেন। তারা দেশ ও সমাজের উন্নয়নে এক পর এক প্রদক্ষেণ গ্রহণ করে যাচ্ছেন। আমি প্রত্যেক প্রবাসীদের সম্মান ও শ্রদ্ধা জানাই। আশা করি অতিতের ন্যায় তারা ভবিষ্যতেও দেশের কল্যাণে কাজ করে যাবেন। যে সকল প্রবাসীরা এই উদ্যোগ গ্রহণ করেছেন তারা জাতীয় বীর। তাদের এ মহতি উদ্যোগ ভবিষ্যতেও চলমান থাকবে এই আশাবাদ ব্যক্ত করি।
শুরুতে স্বাগত বক্তব্য রাখেন ট্রাস্টের সভাপতি মুহিব উদ্দিন। তিনি বলেন, আমরা প্রবাসীরা প্রবাসে থাকলেও দেশের প্রতি আমাদের হৃদয়ের টান সব সময় থাকে। দেশের উন্নয়নের জন্য প্রবাসীরা নিরলস ভাবে কাজ করে যাচ্ছেন। বৃহত্তর সিলেট এডুকেশন ট্রাস্ট ইউকে প্রতি বছর সিলেট বিভাগের অস্বচ্ছল ছাত্র-ছাত্রীদের সহায়তা করে যাচ্ছে। এরই ধারাবাহিকতায় এ বছর সিলেট বিভাগের ৪৪টি স্কুলের ২ হাজার ছাত্র-ছাত্রীদের সহায়তা করা হচ্ছে। শুধু দেশেই নয় সিলেট বিভাগের যেসব ছাত্র-ছাত্রী ব্রিটেনে উচ্চ শিক্ষার্থে অবস্থান করেন, তাদেরকেও এই ট্রাস্ট সহায়তা করে থাকে। আগামীতে সিলেট বিভাগের আরো বেশি স্কুলের ছাত্র-ছাত্রীদের সহায়তা করার আন্তরিক ইচ্ছা রয়েছে। সিলেটে অটিজম শিশুদের নিয়ে কাজ করার আগ্রহ রয়েছে।  তাই সকলকে এ ব্যাপারে সহযোগিতার আহ্বান জানান তিনি।
বিশেষ অতিথির বক্তব্যে সিলেট সিটি কর্পোরেশনের মেয়র আনোয়ারুজ্জামান চৌধুরী বলেন, আমিও একজন প্রবাসী। প্রবাসীরা কিভাবে তাদের দেশ মাটির কথা চিন্তা করে সেটা আমি অনুধাবন করি। প্রবাসীদের এই প্রয়াস সিলেটের অস্বচ্ছল ছাত্র-ছাত্রীদের ভবিষ্যত শিক্ষা জীবন গঠনে সহায়ক হবে।
ট্রাস্টের সেক্রেটারী জামাল উদ্দিন ও ইসি মেম্বার মইনুদ্দিন আনসারের যৌথ পরিচালনায় বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন ট্রাস্টের এডভাইজার সৈয়দ আবুল বাসার মাসুম, গোলাপগঞ্জ উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মঞ্জুর কাদির শাফি চৌধুরী এলিম, সিলেট সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আশফাক আহমদ।
অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন ট্রাস্টের ট্রাস্টি মামুনুর রশিদ, অলিউর রহমান মলাই, সিলেট শিক্ষা বোর্ডের স্কুল পরিদর্শক মইনুল হোসেন, সিলেট জেলা স্কাউটের সম্পাদক মো. হিফজুর রহমান খাঁন সহ বাগিরঘাট যুব সংঘের কর্মকর্তাবৃন্দ। এ সময় সিলেট বিভাগের অনুদান প্রাপ্ত স্কুলের সভাপতি ও প্রধান শিক্ষক উপস্থিত ছিলেন। বিজ্ঞপ্তি