০১:১১ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ২৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১১ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

সিলেটে ৬টি আসনে ভোটা র ২৭ লাখ ১৫ হাজার

print news -

নিউজ ডেস্ক: ছয়টি আসন নিয়ে গঠিত সিলেট। নির্বাচনকে সামনে রেখে প্রার্থীরা চালিয়ে যাচ্ছেন প্রচারণা। তবে দ্বাদশ সংসদ নির্বাচনে ভোটারদের মধ্যে তেমন কোন আগ্রহ লক্ষ্য করা যাচ্ছে না। সিলেটের ছয়টি আসনের মধ্যে সবচেয়ে বেশি ভোটার রয়েছে সিলেট-১ আসনে।  দ্বাদশ সংসদ নির্বাচনে সিলেটের ছয়টি আসনে ২৭ লাখ ১৫ হাজার ৩৩১ ভোটার রয়েছেন। এর মধ্যে পুরুষ ভোটার ১৩ লাখ ৯২ হাজার ৩৯৫ ও মহিলা ভোটার রয়েছেন ১৩ লাখ ২২ হাজার ৯২৬ জন। তৃতীয় লিঙ্গের ভোটার রয়েছেন ১০ জন। এবারের নির্বাচনে ভোটকেন্দ্র রয়েছে এক হাজার ১৩টি ও ভোট কক্ষ রয়েছে ছয় হাজার ছয়টি।

সূত্র জানিয়েছে, সিলেট সিটি করপোরেশনের ৩৬টি ওয়ার্ড, সাত ইউনিয়ন ও একটি ক্যান্টনমেন্ট বোর্ড নিয়ে গঠিত সিলেট-১ আসন। এই আসনে স্থায়ী ভোটকেন্দ্র রয়েছে ২১৫টি। এর মধ্যে মহানগরীতে ১৫২টি ও ইউনিয়নে আরও ৬৩টি স্থায়ী ভোটকেন্দ্র রয়েছে। একইসঙ্গে এ আসনে ভোট কক্ষ রয়েছে ১৩৬৮টি। এর মধ্যে মহানগরীতে রয়েছে ৯৬৭টি ও ইউনিয়নে রয়েছে আরও ৪০১টি। এ আসনে ভোটার রয়েছেন ছয় লাখ ৩৪ হাজার ২১ জন। এর মধ্যে পুরুষ ভোটার তিন লাখ ৩০ হাজার ৮৩৩ জন এবং নারী ভোটার রয়েছেন তিন লাখ ৩১ হাজার ৮১ জন।

মহানগরীতে মহিলা-পুরুষ মিলিয়ে চার লাখ ৫৩ হাজার ৪৮৬ জন ও ইউনিয়নে রয়েছেন এক লাখ ৮০ হাজার ৫৩৫ জন ভোটার রয়েছেন। এ ছাড়া মহানগরী এলাকায় ছয় ও ইউনিয়নে আরও ১ জন তৃতীয় লিঙ্গের ভোটার রয়েছেন।

বিশ্বনাথ আর ওসমানীনগর উপজেলা নিয়ে গঠিত সিলেট-২ আসন। এই দুই উপজেলায় রয়েছে ১৬টি ইউনিয়ন। এর মধ্যে বিশ্বনাথে আটটি ওয়ার্ড ও ওসমানীনগরে রয়েছে আরও আটটি ইউনিয়ন। এই আসনে ভোটকেন্দ্র রয়েছে ১২৮টি। এর মধ্যে বিশ্বনাথ উপজেলায় স্থায়ী ভোটকেন্দ্র রয়েছে ৭৪টি ও ওসমানীনগরে রয়েছে ৫৩টি। ওসমানীনগরে রয়েছে অস্থায়ী ভোটকেন্দ্র আরও একটি। একইসঙ্গে ভোট কক্ষ রয়েছে ৭৭৩টি। এর মধ্যে বিশ্বনাথে ৩৯২টি ও ওসমানীনগরে ৩৫২টি স্থায়ী ভোটকেন্দ্র রয়েছে। বিশ্বনাথে আরও ২৯টি অস্থায়ী ভোটকেন্দ্র রয়েছে। এ আসনে ভোটার রয়েছেন তিন লাখ ৪৪ হাজার ৭২৯ জন। এর মধ্যে পুরুষ ভোটার এক লাখ ৭৬ হাজার ১৪৭ এবং নারী ভোটার এক লাখ ৬৮ হাজার ৫৮২ জন।
বিশ্বনাথে নারী-পুরুষ মিলিয়ে ভোটার রয়েছেন এক লাখ ৮৪ হাজার ১৪৯ জন ও ওসমানীনগরে এক লাখ ৬০ হাজার ৫৮০ জন।

সিসিকের আটক ওয়ার্ড, দক্ষিণ সুরমা, ফেঞ্চুগঞ্জ ও বালাগঞ্জ উপজেলা নিয়ে গঠিত সিলেট-৩ আসন। এখানে সিসিকের আটটি ওয়ার্ড ও ১১টি ইউনিয়ন রয়েছে। এই আসনে ভোটকেন্দ্র রয়েছে ১৫১টি। এর মধ্যে সিসিকের ওয়ার্ডগুলোতে রয়েছে ১৬টি ভোটকেন্দ্র, দক্ষিণ সুরমা উপজেলায় রয়েছে ৬৩টি, ফেঞ্চুগঞ্জ উপজেলায় রয়েছে ৩৬টি ও বালাগঞ্জ উপজেলায় রয়েছে আরও ৩৬টি ভোটকেন্দ্র। একইসঙ্গে এখানে ভোট কক্ষ রয়েছে ৮৭৬টি।

এর মধ্যে সিসিকের আট ওয়ার্ডে ৭৮টি স্থায়ী ও ৫টি অস্থায়ী ভোটকেন্দ্র রয়েছে। এ ছাড়া দক্ষিণ সুরমায় ৩৫৮টি স্থায়ী ও ১৬টি অস্থায়ী ভোটকেন্দ্র আছে। ফেঞ্চুগঞ্জে রয়েছে ১৭০টি স্থায়ী ও ২৯টি অস্থায়ী ভোটকেন্দ্র। বালাগঞ্জে রয়েছে ১৮৫টি স্থায়ী ও ৩৫টি অস্থায়ী ভোটকক্ষ রয়েছে। এ আসনে ভোটার আছেন তিন লাখ ৮৬ হাজার ৪১২ জন। এর মধ্যে পুরুষ ভোটার এক লাখ ৯৬ হাজার ১৪২ জন এবং মহিলা ভোটার এক লাখ ৯০ হাজার ২৬৯ জন। এ আসনে তৃতীয় লিঙ্গের একজন ভোটার রয়েছেন।

কোম্পানীগঞ্জ, গোয়াইনঘাট ও জৈন্তাপুর উপজেলা নিয়ে গঠিত সিলেট-৪ আসন। এখানে ২৫টি ইউনিয়ন রয়েছে। এর মধ্যে কোম্পানীগঞ্জে রয়েছে ছয়টি, গোয়াইনঘাটে ১৩ ও জৈন্তাপুরে রয়েছে আরও ছয়টি ইউনিয়ন। এই তিন উপজেলায় ১৬৯টি স্থায়ী ভোটকেন্দ্র রয়েছে। এর মধ্যে কোম্পানীগঞ্জে ৪০টি, গোয়াইনঘাটে ৮৩টি ও জৈন্তাপুরে ৪৬টি। একইসঙ্গে ভোট কক্ষ রয়েছে এক হাজার ২৯টি। কোম্পানীগঞ্জে ২৩৮টি, গোয়াইনঘাটে ৪৭১টি ও জৈন্তাপুরে ২৫১টি স্থায়ী ভোটকেন্দ্র রয়েছে। এ ছাড়া কোম্পানীগঞ্জে রয়েছে অস্থায়ী ভোটকেন্দ্র পাঁচটি, গোয়াইনঘাটে ৩৩টি ও জৈন্তাপুরে ৩১টি।
সবমিলিয়ে কোম্পানীগঞ্জে রয়েছে ২৪৩টি ভোটকেন্দ্র, গোয়াইনঘাটে রয়েছে ৫০৪টি ও জৈন্তাপুরে রয়েছে ২৮২টি। এ আসনে ভোটার সংখ্যা চার লাখ ৭৫ হাজার ১২১। এর মধ্যে পুরুষ ভোটার দুই লাখ ৪৬ হাজার ১০৭ ও নারী ভোটার দুই লাখ ২৯ হাজার ১৩ জন। এ আসনে তৃতীয় লিঙ্গের একজন ভোটার রয়েছেন। এখানে কোম্পানীগঞ্জের নারী-পুরুষ মিলিয়ে ভোটার রয়েছেন এক লাখ ১৭ হাজার ৭১৮ জন। গোয়াইনঘাটের নারী-পুরুষ মিলিয়ে ভোটার রয়েছেন দুই লাখ ২৫ হাজার ৪৫৫ জন। এ ছাড়া জৈন্তাপুরে মহিলা-পুরুষ মিলিয়ে ভোটার রয়েছেন এক লাখ ৩১ হাজার ৯৪৮ জন।

কানাইঘাট ও জকিগঞ্জ নিয়ে গঠিত সিলেট-৫ আসন। ৯টি করে এই দুটি ওয়ার্ডে রয়েছে ১৮টি ওয়ার্ড। এখানে ভোটকেন্দ্র রয়েছে ১৫৮টি। এর মধ্যে কানাইঘাটে রয়েছে ৮১টি ও জকিগঞ্জ রয়েছে ৭৭টি স্থায়ী ভোটকেন্দ্র। একই সাথে এই দুটি পৌরসভায় রয়েছে ৮৭১টি ভোট কক্ষ। এর মধ্যে জকিগঞ্জে রয়েছে ৪০৯টি স্থায়ী ভোটকেন্দ্র ও ৩৬টি অস্থায়ী ভোটকেন্দ্র। এ ছাড়া কানাইঘাট পৌরসভায় রয়েছে ৪০৯টি স্থায়ী ভোটকেন্দ্র ও ১৭টি অস্থায়ী ভোটকেন্দ্র। এ আসনে ভোটার রয়েছেন চার লাখ ২২ হাজার ৯৯ জন। এর মধ্যে পুরুষ ভোটার দুই লাখ ৫৬ হাজার ৫৭ এবং নারী ভোটার এক লাখ ৯৬ হাজার ৬৪২ জন। এখানে কানাইঘাটের নারী-পুরুষ মিলিয়ে ভোটার রয়েছেন দুই লাখ ১৪ হাজার ২৯৫ জন। জকিগঞ্জের নারী-পুরুষ মিলিয়ে ভোটার রয়েছেন ৯৬ হাজার ৬৬৩ জন।

বিয়ানীবাজার ও গোলাপগঞ্জ নিয়ে গঠিত সিলেট-৬ আসন। বিয়ানীবাজার পৌরসভায় রয়েছে ১০টি ও গোলাপগঞ্জ পৌরসভায় রয়েছে ১১টি ওয়ার্ড। এখানে ভোটকেন্দ্র রয়েছে ১৯২টি। এর মধ্যে বিয়ানীবাজারে রয়েছে ৮৯টি ও গোলাপগঞ্জে ১০৩টি স্থায়ী ভোটকেন্দ্র। একইসঙ্গে এই দুটি পৌরসভায় রয়েছে এক হাজার ৮৯টি ভোট কক্ষ। এর মধ্যে বিয়ানীবাজারে রয়েছে ৪৮০টি স্থায়ী ও ৯টি অস্থায়ী ভোটকেন্দ্র। গোলাপগঞ্জে রয়েছে ৬০০টি স্থায়ী ও ৩৫টি অস্থায়ী ভোটকেন্দ্র। এ আসনে ভোটার রয়েছেন চার লাখ ৭২ হাজার ৭৪৯ জন। এর মধ্যে বিয়ানীবাজার পুরুষ ভোটার এক লাখ ২৫ হাজার ৮৩ ও নারী ভোটার এক লাখ ৩৪ হাজার ৫৫ জন। সবমিলিয়ে বিয়ানীবাজারে নারী-পুরুষ ভোটার রয়েছেন দুই লাখ ৬০ হাজার ৩৮ জন। এ ছাড়া গোলাপগঞ্জে পুরুষ ভোটার রয়েছেন এক লাখ ৩৪ হাজার ৯২৬ ও নারী ভোটার রয়েছেন এক লাখ ৩১ হাজার ৭৮৪ জন। এখানে নারী-পুরুষ মিলিয়ে ভোটার রয়েছেন দুই লাখ ৬৬ হাজার ৭১১ জন।

ট্যাগঃ

সিলেটে ৬টি আসনে ভোটা র ২৭ লাখ ১৫ হাজার

প্রকাশিত হয়েছেঃ ০৩:৩১:৪৭ অপরাহ্ন, রবিবার, ৩১ ডিসেম্বর ২০২৩
print news -

নিউজ ডেস্ক: ছয়টি আসন নিয়ে গঠিত সিলেট। নির্বাচনকে সামনে রেখে প্রার্থীরা চালিয়ে যাচ্ছেন প্রচারণা। তবে দ্বাদশ সংসদ নির্বাচনে ভোটারদের মধ্যে তেমন কোন আগ্রহ লক্ষ্য করা যাচ্ছে না। সিলেটের ছয়টি আসনের মধ্যে সবচেয়ে বেশি ভোটার রয়েছে সিলেট-১ আসনে।  দ্বাদশ সংসদ নির্বাচনে সিলেটের ছয়টি আসনে ২৭ লাখ ১৫ হাজার ৩৩১ ভোটার রয়েছেন। এর মধ্যে পুরুষ ভোটার ১৩ লাখ ৯২ হাজার ৩৯৫ ও মহিলা ভোটার রয়েছেন ১৩ লাখ ২২ হাজার ৯২৬ জন। তৃতীয় লিঙ্গের ভোটার রয়েছেন ১০ জন। এবারের নির্বাচনে ভোটকেন্দ্র রয়েছে এক হাজার ১৩টি ও ভোট কক্ষ রয়েছে ছয় হাজার ছয়টি।

সূত্র জানিয়েছে, সিলেট সিটি করপোরেশনের ৩৬টি ওয়ার্ড, সাত ইউনিয়ন ও একটি ক্যান্টনমেন্ট বোর্ড নিয়ে গঠিত সিলেট-১ আসন। এই আসনে স্থায়ী ভোটকেন্দ্র রয়েছে ২১৫টি। এর মধ্যে মহানগরীতে ১৫২টি ও ইউনিয়নে আরও ৬৩টি স্থায়ী ভোটকেন্দ্র রয়েছে। একইসঙ্গে এ আসনে ভোট কক্ষ রয়েছে ১৩৬৮টি। এর মধ্যে মহানগরীতে রয়েছে ৯৬৭টি ও ইউনিয়নে রয়েছে আরও ৪০১টি। এ আসনে ভোটার রয়েছেন ছয় লাখ ৩৪ হাজার ২১ জন। এর মধ্যে পুরুষ ভোটার তিন লাখ ৩০ হাজার ৮৩৩ জন এবং নারী ভোটার রয়েছেন তিন লাখ ৩১ হাজার ৮১ জন।

মহানগরীতে মহিলা-পুরুষ মিলিয়ে চার লাখ ৫৩ হাজার ৪৮৬ জন ও ইউনিয়নে রয়েছেন এক লাখ ৮০ হাজার ৫৩৫ জন ভোটার রয়েছেন। এ ছাড়া মহানগরী এলাকায় ছয় ও ইউনিয়নে আরও ১ জন তৃতীয় লিঙ্গের ভোটার রয়েছেন।

বিশ্বনাথ আর ওসমানীনগর উপজেলা নিয়ে গঠিত সিলেট-২ আসন। এই দুই উপজেলায় রয়েছে ১৬টি ইউনিয়ন। এর মধ্যে বিশ্বনাথে আটটি ওয়ার্ড ও ওসমানীনগরে রয়েছে আরও আটটি ইউনিয়ন। এই আসনে ভোটকেন্দ্র রয়েছে ১২৮টি। এর মধ্যে বিশ্বনাথ উপজেলায় স্থায়ী ভোটকেন্দ্র রয়েছে ৭৪টি ও ওসমানীনগরে রয়েছে ৫৩টি। ওসমানীনগরে রয়েছে অস্থায়ী ভোটকেন্দ্র আরও একটি। একইসঙ্গে ভোট কক্ষ রয়েছে ৭৭৩টি। এর মধ্যে বিশ্বনাথে ৩৯২টি ও ওসমানীনগরে ৩৫২টি স্থায়ী ভোটকেন্দ্র রয়েছে। বিশ্বনাথে আরও ২৯টি অস্থায়ী ভোটকেন্দ্র রয়েছে। এ আসনে ভোটার রয়েছেন তিন লাখ ৪৪ হাজার ৭২৯ জন। এর মধ্যে পুরুষ ভোটার এক লাখ ৭৬ হাজার ১৪৭ এবং নারী ভোটার এক লাখ ৬৮ হাজার ৫৮২ জন।
বিশ্বনাথে নারী-পুরুষ মিলিয়ে ভোটার রয়েছেন এক লাখ ৮৪ হাজার ১৪৯ জন ও ওসমানীনগরে এক লাখ ৬০ হাজার ৫৮০ জন।

সিসিকের আটক ওয়ার্ড, দক্ষিণ সুরমা, ফেঞ্চুগঞ্জ ও বালাগঞ্জ উপজেলা নিয়ে গঠিত সিলেট-৩ আসন। এখানে সিসিকের আটটি ওয়ার্ড ও ১১টি ইউনিয়ন রয়েছে। এই আসনে ভোটকেন্দ্র রয়েছে ১৫১টি। এর মধ্যে সিসিকের ওয়ার্ডগুলোতে রয়েছে ১৬টি ভোটকেন্দ্র, দক্ষিণ সুরমা উপজেলায় রয়েছে ৬৩টি, ফেঞ্চুগঞ্জ উপজেলায় রয়েছে ৩৬টি ও বালাগঞ্জ উপজেলায় রয়েছে আরও ৩৬টি ভোটকেন্দ্র। একইসঙ্গে এখানে ভোট কক্ষ রয়েছে ৮৭৬টি।

এর মধ্যে সিসিকের আট ওয়ার্ডে ৭৮টি স্থায়ী ও ৫টি অস্থায়ী ভোটকেন্দ্র রয়েছে। এ ছাড়া দক্ষিণ সুরমায় ৩৫৮টি স্থায়ী ও ১৬টি অস্থায়ী ভোটকেন্দ্র আছে। ফেঞ্চুগঞ্জে রয়েছে ১৭০টি স্থায়ী ও ২৯টি অস্থায়ী ভোটকেন্দ্র। বালাগঞ্জে রয়েছে ১৮৫টি স্থায়ী ও ৩৫টি অস্থায়ী ভোটকক্ষ রয়েছে। এ আসনে ভোটার আছেন তিন লাখ ৮৬ হাজার ৪১২ জন। এর মধ্যে পুরুষ ভোটার এক লাখ ৯৬ হাজার ১৪২ জন এবং মহিলা ভোটার এক লাখ ৯০ হাজার ২৬৯ জন। এ আসনে তৃতীয় লিঙ্গের একজন ভোটার রয়েছেন।

কোম্পানীগঞ্জ, গোয়াইনঘাট ও জৈন্তাপুর উপজেলা নিয়ে গঠিত সিলেট-৪ আসন। এখানে ২৫টি ইউনিয়ন রয়েছে। এর মধ্যে কোম্পানীগঞ্জে রয়েছে ছয়টি, গোয়াইনঘাটে ১৩ ও জৈন্তাপুরে রয়েছে আরও ছয়টি ইউনিয়ন। এই তিন উপজেলায় ১৬৯টি স্থায়ী ভোটকেন্দ্র রয়েছে। এর মধ্যে কোম্পানীগঞ্জে ৪০টি, গোয়াইনঘাটে ৮৩টি ও জৈন্তাপুরে ৪৬টি। একইসঙ্গে ভোট কক্ষ রয়েছে এক হাজার ২৯টি। কোম্পানীগঞ্জে ২৩৮টি, গোয়াইনঘাটে ৪৭১টি ও জৈন্তাপুরে ২৫১টি স্থায়ী ভোটকেন্দ্র রয়েছে। এ ছাড়া কোম্পানীগঞ্জে রয়েছে অস্থায়ী ভোটকেন্দ্র পাঁচটি, গোয়াইনঘাটে ৩৩টি ও জৈন্তাপুরে ৩১টি।
সবমিলিয়ে কোম্পানীগঞ্জে রয়েছে ২৪৩টি ভোটকেন্দ্র, গোয়াইনঘাটে রয়েছে ৫০৪টি ও জৈন্তাপুরে রয়েছে ২৮২টি। এ আসনে ভোটার সংখ্যা চার লাখ ৭৫ হাজার ১২১। এর মধ্যে পুরুষ ভোটার দুই লাখ ৪৬ হাজার ১০৭ ও নারী ভোটার দুই লাখ ২৯ হাজার ১৩ জন। এ আসনে তৃতীয় লিঙ্গের একজন ভোটার রয়েছেন। এখানে কোম্পানীগঞ্জের নারী-পুরুষ মিলিয়ে ভোটার রয়েছেন এক লাখ ১৭ হাজার ৭১৮ জন। গোয়াইনঘাটের নারী-পুরুষ মিলিয়ে ভোটার রয়েছেন দুই লাখ ২৫ হাজার ৪৫৫ জন। এ ছাড়া জৈন্তাপুরে মহিলা-পুরুষ মিলিয়ে ভোটার রয়েছেন এক লাখ ৩১ হাজার ৯৪৮ জন।

কানাইঘাট ও জকিগঞ্জ নিয়ে গঠিত সিলেট-৫ আসন। ৯টি করে এই দুটি ওয়ার্ডে রয়েছে ১৮টি ওয়ার্ড। এখানে ভোটকেন্দ্র রয়েছে ১৫৮টি। এর মধ্যে কানাইঘাটে রয়েছে ৮১টি ও জকিগঞ্জ রয়েছে ৭৭টি স্থায়ী ভোটকেন্দ্র। একই সাথে এই দুটি পৌরসভায় রয়েছে ৮৭১টি ভোট কক্ষ। এর মধ্যে জকিগঞ্জে রয়েছে ৪০৯টি স্থায়ী ভোটকেন্দ্র ও ৩৬টি অস্থায়ী ভোটকেন্দ্র। এ ছাড়া কানাইঘাট পৌরসভায় রয়েছে ৪০৯টি স্থায়ী ভোটকেন্দ্র ও ১৭টি অস্থায়ী ভোটকেন্দ্র। এ আসনে ভোটার রয়েছেন চার লাখ ২২ হাজার ৯৯ জন। এর মধ্যে পুরুষ ভোটার দুই লাখ ৫৬ হাজার ৫৭ এবং নারী ভোটার এক লাখ ৯৬ হাজার ৬৪২ জন। এখানে কানাইঘাটের নারী-পুরুষ মিলিয়ে ভোটার রয়েছেন দুই লাখ ১৪ হাজার ২৯৫ জন। জকিগঞ্জের নারী-পুরুষ মিলিয়ে ভোটার রয়েছেন ৯৬ হাজার ৬৬৩ জন।

বিয়ানীবাজার ও গোলাপগঞ্জ নিয়ে গঠিত সিলেট-৬ আসন। বিয়ানীবাজার পৌরসভায় রয়েছে ১০টি ও গোলাপগঞ্জ পৌরসভায় রয়েছে ১১টি ওয়ার্ড। এখানে ভোটকেন্দ্র রয়েছে ১৯২টি। এর মধ্যে বিয়ানীবাজারে রয়েছে ৮৯টি ও গোলাপগঞ্জে ১০৩টি স্থায়ী ভোটকেন্দ্র। একইসঙ্গে এই দুটি পৌরসভায় রয়েছে এক হাজার ৮৯টি ভোট কক্ষ। এর মধ্যে বিয়ানীবাজারে রয়েছে ৪৮০টি স্থায়ী ও ৯টি অস্থায়ী ভোটকেন্দ্র। গোলাপগঞ্জে রয়েছে ৬০০টি স্থায়ী ও ৩৫টি অস্থায়ী ভোটকেন্দ্র। এ আসনে ভোটার রয়েছেন চার লাখ ৭২ হাজার ৭৪৯ জন। এর মধ্যে বিয়ানীবাজার পুরুষ ভোটার এক লাখ ২৫ হাজার ৮৩ ও নারী ভোটার এক লাখ ৩৪ হাজার ৫৫ জন। সবমিলিয়ে বিয়ানীবাজারে নারী-পুরুষ ভোটার রয়েছেন দুই লাখ ৬০ হাজার ৩৮ জন। এ ছাড়া গোলাপগঞ্জে পুরুষ ভোটার রয়েছেন এক লাখ ৩৪ হাজার ৯২৬ ও নারী ভোটার রয়েছেন এক লাখ ৩১ হাজার ৭৮৪ জন। এখানে নারী-পুরুষ মিলিয়ে ভোটার রয়েছেন দুই লাখ ৬৬ হাজার ৭১১ জন।