০১:৩৪ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ২৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১১ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ
জালালাবাদ হোমিওপ্যাথি মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালের সংবর্ধনা ও বিদায়ী অনুষ্ঠান

সিলেটের হোমিওরত্ন ডা. দিলীপ কুমার রায়কে সংবর্ধনা

print news -

বাংলাদেশ হোমিওপ্যাথিক চিকিৎসা শিক্ষা আইন-২০২৩ জাতীয় সংসদে পাশ হওয়ায় বাংলাদেশ হোমিওপ্যাথিক চিকিৎসা শিক্ষা কাউন্সিল এর নির্বাহী পরিষদের প্রথম চেয়ারম্যান হোমিওরত্ন ডা. দিলীপ কুমার রায়কে সংবর্ধনা ও ২০২১ সনের ডি এইচ এম এস ৪র্থ বর্ষের উত্তীর্ন শিক্ষাদের ইন্টার্নী সনদ বিতরণ ও বিদায়ী অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়েছে।
সোমবার (১২ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে নগরীর মির্জাজাঙ্গালস্থ একটি অভিজাত নির্বানা ইন হোটেলের কনফারেন্স হলরুমে জালালাবাদ হোমিওপ্যাথিক মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালের উদ্যোগে এই অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।
জালালাবাদ হোমিওপ্যাথিক মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালের ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ ডা. মো: আব্দুল্লাহ আল মুজাহিদ খানের সভাপতিত্বে সংবর্ধিত অতিথির বক্তব্যে ডা. দিলীপ কুমার রায় বলেন, আমি দীর্ঘ ৫৫ বছর ধরে বঙ্গবন্ধু-শেখ হাসিনার কর্মী। রাজপথে সকল আন্দোলনে আমি সবসময়ই মাঠে ছিলাম। তাই সরাসরি আমার ভালোবাসা, আমার শক্তি, আমার নেত্রী শেখ হাসিনা। প্রধানমন্ত্রীর কাছে আমি মেসেজ পাঠিয়েছিলাম, যে সংসদে আইন পাস করুন, হোমিওপ্যাথিক চিকিৎসকরাও যেনো ডাক্তার লিখতে পারে। অবশেষে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা “বাংলাদেশ হোমিওপ্যাথিক চিকিৎসা শিক্ষা আইন-২০২৩ জাতীয় সংসদে পাশ করেন। এখন থেকে আপনারা ডাক্তার শব্দ লিখতে পারবেন। আমি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রতি কৃতজ্ঞ। আজকেই এই সুন্দর আয়োজন করায় আমি জালালাবাদ হোমিওপ্যাথি মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালের সকল নেতৃবৃন্দ ধন্যবাদ জানাই।
জালালাবাদ হোমিওপ্যাথিক মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালে প্রভাষক ডা: ফরহাদ আহমদ এবং চতুর্থ বর্ষের শিক্ষার্থী তমালিকা দে এর যৌথ পরিচালনায় বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন ওসমানী নগর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মো: শামীম আহমদ (ভিপি), সিলেট মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক জাকির হোসেন, ডিএইচএমএস ডক্টরস এসোসিয়েশন কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি ডা. মো: শেখ ইফতেখার উদ্দিন, হোমিওপ্যাথিক মেডিকেল কলেজ শিক্ষক সমিতি বাংলাদেশের সাংগঠনিক সম্পাদক ডা. কায়েম উদ্দিন, হ্যানিম্যান হোমিওপ্যাথি সোসাইটি কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি ডা. ইমদাদুল হক, বাংলাদেশ হোমিওপ্যাথিক পরিষদ কেন্দ্রীয় কমিটির যুগ্ম মহাসচিব ডা: সৈয়দ মোহাম্মদ আলী কাজল, বাংলাদেশ হোমিওপ্যাথিক চিকিৎসা শিক্ষা কাউন্সিলের পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক ডা. মো: শহীদুল ইসলাম, সহকারী রেজিষ্ট্রার ডা. অমিত রায়, জালালাবাদ হোমিওপ্যাথি মেডিকেল এসোসিয়েশন সিলেটের সভাপতি ডা. আবুল হসান চৌধুরী প্রমূখ।
এছাড়াও সিলেট জালালাবাদ হোমিওপ্যাথিক মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালের শিক্ষক বৃন্দ, সিলেট বিভাগের হোমিওপ্যাথি চিকিৎসক ও ছাত্রছাত্রী উপস্থিত ছিলেন। বিজ্ঞপ্তি

ট্যাগঃ

জালালাবাদ হোমিওপ্যাথি মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালের সংবর্ধনা ও বিদায়ী অনুষ্ঠান

সিলেটের হোমিওরত্ন ডা. দিলীপ কুমার রায়কে সংবর্ধনা

প্রকাশিত হয়েছেঃ ০১:৩৯:০৩ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ১৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৪
print news -

বাংলাদেশ হোমিওপ্যাথিক চিকিৎসা শিক্ষা আইন-২০২৩ জাতীয় সংসদে পাশ হওয়ায় বাংলাদেশ হোমিওপ্যাথিক চিকিৎসা শিক্ষা কাউন্সিল এর নির্বাহী পরিষদের প্রথম চেয়ারম্যান হোমিওরত্ন ডা. দিলীপ কুমার রায়কে সংবর্ধনা ও ২০২১ সনের ডি এইচ এম এস ৪র্থ বর্ষের উত্তীর্ন শিক্ষাদের ইন্টার্নী সনদ বিতরণ ও বিদায়ী অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়েছে।
সোমবার (১২ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে নগরীর মির্জাজাঙ্গালস্থ একটি অভিজাত নির্বানা ইন হোটেলের কনফারেন্স হলরুমে জালালাবাদ হোমিওপ্যাথিক মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালের উদ্যোগে এই অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।
জালালাবাদ হোমিওপ্যাথিক মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালের ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ ডা. মো: আব্দুল্লাহ আল মুজাহিদ খানের সভাপতিত্বে সংবর্ধিত অতিথির বক্তব্যে ডা. দিলীপ কুমার রায় বলেন, আমি দীর্ঘ ৫৫ বছর ধরে বঙ্গবন্ধু-শেখ হাসিনার কর্মী। রাজপথে সকল আন্দোলনে আমি সবসময়ই মাঠে ছিলাম। তাই সরাসরি আমার ভালোবাসা, আমার শক্তি, আমার নেত্রী শেখ হাসিনা। প্রধানমন্ত্রীর কাছে আমি মেসেজ পাঠিয়েছিলাম, যে সংসদে আইন পাস করুন, হোমিওপ্যাথিক চিকিৎসকরাও যেনো ডাক্তার লিখতে পারে। অবশেষে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা “বাংলাদেশ হোমিওপ্যাথিক চিকিৎসা শিক্ষা আইন-২০২৩ জাতীয় সংসদে পাশ করেন। এখন থেকে আপনারা ডাক্তার শব্দ লিখতে পারবেন। আমি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রতি কৃতজ্ঞ। আজকেই এই সুন্দর আয়োজন করায় আমি জালালাবাদ হোমিওপ্যাথি মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালের সকল নেতৃবৃন্দ ধন্যবাদ জানাই।
জালালাবাদ হোমিওপ্যাথিক মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালে প্রভাষক ডা: ফরহাদ আহমদ এবং চতুর্থ বর্ষের শিক্ষার্থী তমালিকা দে এর যৌথ পরিচালনায় বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন ওসমানী নগর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মো: শামীম আহমদ (ভিপি), সিলেট মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক জাকির হোসেন, ডিএইচএমএস ডক্টরস এসোসিয়েশন কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি ডা. মো: শেখ ইফতেখার উদ্দিন, হোমিওপ্যাথিক মেডিকেল কলেজ শিক্ষক সমিতি বাংলাদেশের সাংগঠনিক সম্পাদক ডা. কায়েম উদ্দিন, হ্যানিম্যান হোমিওপ্যাথি সোসাইটি কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি ডা. ইমদাদুল হক, বাংলাদেশ হোমিওপ্যাথিক পরিষদ কেন্দ্রীয় কমিটির যুগ্ম মহাসচিব ডা: সৈয়দ মোহাম্মদ আলী কাজল, বাংলাদেশ হোমিওপ্যাথিক চিকিৎসা শিক্ষা কাউন্সিলের পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক ডা. মো: শহীদুল ইসলাম, সহকারী রেজিষ্ট্রার ডা. অমিত রায়, জালালাবাদ হোমিওপ্যাথি মেডিকেল এসোসিয়েশন সিলেটের সভাপতি ডা. আবুল হসান চৌধুরী প্রমূখ।
এছাড়াও সিলেট জালালাবাদ হোমিওপ্যাথিক মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালের শিক্ষক বৃন্দ, সিলেট বিভাগের হোমিওপ্যাথি চিকিৎসক ও ছাত্রছাত্রী উপস্থিত ছিলেন। বিজ্ঞপ্তি