০১:১২ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ২৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১১ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

রুনা অন্তর্জালে নতুন ছবি দিয়ে উত্তাপ ছড়িয়েছেন

print news -

বিনোদন ডেস্ক:  অভিনেত্রী রুনা খান সম্প্রতি নতুন ছবি দিয়ে অন্তর্জালে উত্তাপ ছড়িয়েছেন। এই ছবিগুলি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হয়েছে। রুনা খানের প্রকাশিত ও অপ্রকাশিত কয়েকটি স্থিরচিত্র দেখতে পারেন 12। এই ছবিগুলি তুলেছেন ফটোগ্রাফার নাসির হোসেন। রুনা খানের সৌজন্যে পাওয়া এসব ছবিগুলো অন্তর্জালে প্রকাশ করেও আগ্রহের কেন্দ্রবিন্দুতে এসেছেন। রুনা খান এই ফটোশুটের পেছনের গল্পটাও জানান 2

!রুনা খানের ছবি

অন্তর্জালে নতুন ছবি দিয়ে উত্তাপ ছড়িয়েছেন4 -

ওজন কমানোর পর করা সেই ফটোশুটের পর ফটোগ্রাফার নাসির যোগাযোগ করে। তার চাওয়া ছিল, ‘আমাকে নিয়ে একটা ফটোশুট করবে। এক বছরের চেষ্টা, গত মাসে তা সম্ভব হয়েছে।’ রুনা বললেন, ‘আমি আসলে ব্যস্ততার কারণে সময় করতে পারছিলাম না।

অন্তর্জালে নতুন ছবি দিয়ে উত্তাপ ছড়িয়েছেন2 -

এই ফটোশুটের উদ্যোগ আমার নয়। অবশেষে যখন ফটোশুটের বিষয়টি ফাইনাল হলো, তখন শুধু একটা বিষয় চেয়েছিলাম, মেকআপটা যেন আন্তর্জাতিক মানের হয়।’ছবি : রুনা খানের সৌজন্যে

অন্তর্জালে নতুন ছবি দিয়ে উত্তাপ ছড়িয়েছেন3 -

কারণ হিসেবে রুনা বললেন, ‘বাংলাদেশের মেকআপে অন্য রকম একটা ব্যাপার আছে, মোটা আইল্যাশ পরাবে। চোখের ওপর গ্লস দিয়ে ভরে ফেলবে। পারলার টাইপের মেকআপ যেটাকে বলে। আমি ধরে দেখিয়ে দিয়েছি, আমি দীপিকার এই লুক, প্রিয়াঙ্কার নো মেকআপ লুকটা চাই। চোখের পাপড়িটা চাই। চেহারার পুরো ব্যাপারটা যেন বোঝা যায়। এ চাওয়াটা ছিল।ছবি : রুনা খানের সৌজন্যে

অন্তর্জালে নতুন ছবি দিয়ে উত্তাপ ছড়িয়েছেন -

কথায় কথায় রুনা খান বললেন, ‘চাইলেই তো আর প্রিয়াঙ্কা, দীপিকা ও ক্যাটরিনার মতো সবকিছু সম্ভব নয়। কারণ, ওরা তো আমাদের চেয়ে হাজার গুণ পেশাদার। তাঁদের কাজের ধরনও আমাদের চেয়ে অনেকটা এগিয়ে। তারপর লুকওয়াইজ কাছাকাছি কিছু একটা করার চেষ্টা করেছি। আন্তর্জাতিক স্ট্যান্ডার্ডে যতটা ধরা যায়।

রুনা খান বললেন, ‘প্রিয়াঙ্কা চোপড়ার বয়স ৪১, ক্যাটরিনার ৪০, দীপিকারও ৪০ ছুঁই ছুঁই। আমাদের দেশের বাঁধন ও রুনা খানের বয়স ৪০ পার হয়েছে। ওদেরকে দেখতে যেমন দেখায়, অভিনয়ের ক্ষেত্রে বলব না, লুকের ক্ষেত্রে। তারপরও তো পুরোপুরি তা সম্ভব নয়। তারপরও এটা ভেবেছি, ওদের সেই ফরম্যাটে কাজ করলে, ওদের চেয়ে ভালো না লাগলেও খারাপ লাগবে না।’
রুনা খান বললেন, ‘প্রিয়াঙ্কা চোপড়ার বয়স ৪১, ক্যাটরিনার ৪০, দীপিকারও ৪০ ছুঁই ছুঁই। আমাদের দেশের বাঁধন ও রুনা খানের বয়স ৪০ পার হয়েছে। ওদেরকে দেখতে যেমন দেখায়, অভিনয়ের ক্ষেত্রে বলব না, লুকের ক্ষেত্রে। তারপরও তো পুরোপুরি তা সম্ভব নয়। তারপরও এটা ভেবেছি, ওদের সেই ফরম্যাটে কাজ করলে, ওদের চেয়ে ভালো না লাগলেও খারাপ লাগবে না।’ছবি : রুনা খানের সৌজন্যে

৬ / ৯
গত মাসে ঢাকার নিকেতনের একটি স্টুডিওতে ফটোশুট করেছেন। ফটোগ্রাফার নাসির পোশাক, মেকআপ থেকে শুরু করে সবকিছুর তদারক করেছেন।
গত মাসে ঢাকার নিকেতনের একটি স্টুডিওতে ফটোশুট করেছেন। ফটোগ্রাফার নাসির পোশাক, মেকআপ থেকে শুরু করে সবকিছুর তদারক করেছেন।

৭ / ৯
রুনা বললেন, ‘আমি ইনস্টাগ্রাম ব্যবহার করি। ইনস্টাগ্রামে দীপিকা, প্রিয়াঙ্কা, ক্যাটারিনা, কারিনা কাপুর, আলিয়া ভাট ওদের সবার ফটোশুট দেখি। সেই দেখা থেকে কিছুটা অনুপ্রাণিত হয়ে এমন একটা ফটোশুট করা।’
রুনা বললেন, ‘আমি ইনস্টাগ্রাম ব্যবহার করি। ইনস্টাগ্রামে দীপিকা, প্রিয়াঙ্কা, ক্যাটারিনা, কারিনা কাপুর, আলিয়া ভাট ওদের সবার ফটোশুট দেখি। সেই দেখা থেকে কিছুটা অনুপ্রাণিত হয়ে এমন একটা ফটোশুট করা।’ছবি : রুনা খানের সৌজন্যে

৮ / ৯
এক যুগ আগে রুনা খানের ওজন ছিল ৫৬ কেজি। ২০০৯ সালে তাঁর বিয়ে হয়। পরের বছরই সন্তান রাজেশ্বরীর জন্ম। একসময় রুনার ওজন ৯৫ কেজিতে গিয়ে ঠেকে।
এক যুগ আগে রুনা খানের ওজন ছিল ৫৬ কেজি। ২০০৯ সালে তাঁর বিয়ে হয়। পরের বছরই সন্তান রাজেশ্বরীর জন্ম। একসময় রুনার ওজন ৯৫ কেজিতে গিয়ে ঠেকে।ছবি : রুনা খানের সৌজন্যে

৯ / ৯
সন্তান জন্মের এক বছর পর, মানে ২০১১ সাল থেকে ওজন কমানোর মিশন শুরু করেন রুনা। কিন্তু কোনোভাবেই পারছিলেন না, বরং একপর্যায়ে ওজন আরও বেড়ে হয় ১০৫ কেজি। ওজন কমাতে ধানমন্ডির একাধিক জিম ও প্রশিক্ষকের শরণাপন্ন হন তিনি। শুরু করেন সাঁতার। ভর্তি হন ইয়োগা ও অ্যারোবিকস ক্লাসেও। স্বাস্থ্যকর খাবার খাওয়া শুরু করেন।
সন্তান জন্মের এক বছর পর, মানে ২০১১ সাল থেকে ওজন কমানোর মিশন শুরু করেন রুনা। কিন্তু কোনোভাবেই পারছিলেন না, বরং একপর্যায়ে ওজন আরও বেড়ে হয় ১০৫ কেজি। ওজন কমাতে ধানমন্ডির একাধিক জিম ও প্রশিক্ষকের শরণাপন্ন হন তিনি। শুরু করেন সাঁতার। ভর্তি হন ইয়োগা ও অ্যারোবিকস ক্লাসেও। স্বাস্থ্যকর খাবার খাওয়া শুরু করেন।ছবি : রুনা খানের সৌজন্যে
সুত্র: প্রথম আলো
ট্যাগঃ

রুনা অন্তর্জালে নতুন ছবি দিয়ে উত্তাপ ছড়িয়েছেন

প্রকাশিত হয়েছেঃ ০১:২২:১০ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ১৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৪
print news -

বিনোদন ডেস্ক:  অভিনেত্রী রুনা খান সম্প্রতি নতুন ছবি দিয়ে অন্তর্জালে উত্তাপ ছড়িয়েছেন। এই ছবিগুলি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হয়েছে। রুনা খানের প্রকাশিত ও অপ্রকাশিত কয়েকটি স্থিরচিত্র দেখতে পারেন 12। এই ছবিগুলি তুলেছেন ফটোগ্রাফার নাসির হোসেন। রুনা খানের সৌজন্যে পাওয়া এসব ছবিগুলো অন্তর্জালে প্রকাশ করেও আগ্রহের কেন্দ্রবিন্দুতে এসেছেন। রুনা খান এই ফটোশুটের পেছনের গল্পটাও জানান 2

!রুনা খানের ছবি

অন্তর্জালে নতুন ছবি দিয়ে উত্তাপ ছড়িয়েছেন4 -

ওজন কমানোর পর করা সেই ফটোশুটের পর ফটোগ্রাফার নাসির যোগাযোগ করে। তার চাওয়া ছিল, ‘আমাকে নিয়ে একটা ফটোশুট করবে। এক বছরের চেষ্টা, গত মাসে তা সম্ভব হয়েছে।’ রুনা বললেন, ‘আমি আসলে ব্যস্ততার কারণে সময় করতে পারছিলাম না।

অন্তর্জালে নতুন ছবি দিয়ে উত্তাপ ছড়িয়েছেন2 -

এই ফটোশুটের উদ্যোগ আমার নয়। অবশেষে যখন ফটোশুটের বিষয়টি ফাইনাল হলো, তখন শুধু একটা বিষয় চেয়েছিলাম, মেকআপটা যেন আন্তর্জাতিক মানের হয়।’ছবি : রুনা খানের সৌজন্যে

অন্তর্জালে নতুন ছবি দিয়ে উত্তাপ ছড়িয়েছেন3 -

কারণ হিসেবে রুনা বললেন, ‘বাংলাদেশের মেকআপে অন্য রকম একটা ব্যাপার আছে, মোটা আইল্যাশ পরাবে। চোখের ওপর গ্লস দিয়ে ভরে ফেলবে। পারলার টাইপের মেকআপ যেটাকে বলে। আমি ধরে দেখিয়ে দিয়েছি, আমি দীপিকার এই লুক, প্রিয়াঙ্কার নো মেকআপ লুকটা চাই। চোখের পাপড়িটা চাই। চেহারার পুরো ব্যাপারটা যেন বোঝা যায়। এ চাওয়াটা ছিল।ছবি : রুনা খানের সৌজন্যে

অন্তর্জালে নতুন ছবি দিয়ে উত্তাপ ছড়িয়েছেন -

কথায় কথায় রুনা খান বললেন, ‘চাইলেই তো আর প্রিয়াঙ্কা, দীপিকা ও ক্যাটরিনার মতো সবকিছু সম্ভব নয়। কারণ, ওরা তো আমাদের চেয়ে হাজার গুণ পেশাদার। তাঁদের কাজের ধরনও আমাদের চেয়ে অনেকটা এগিয়ে। তারপর লুকওয়াইজ কাছাকাছি কিছু একটা করার চেষ্টা করেছি। আন্তর্জাতিক স্ট্যান্ডার্ডে যতটা ধরা যায়।

রুনা খান বললেন, ‘প্রিয়াঙ্কা চোপড়ার বয়স ৪১, ক্যাটরিনার ৪০, দীপিকারও ৪০ ছুঁই ছুঁই। আমাদের দেশের বাঁধন ও রুনা খানের বয়স ৪০ পার হয়েছে। ওদেরকে দেখতে যেমন দেখায়, অভিনয়ের ক্ষেত্রে বলব না, লুকের ক্ষেত্রে। তারপরও তো পুরোপুরি তা সম্ভব নয়। তারপরও এটা ভেবেছি, ওদের সেই ফরম্যাটে কাজ করলে, ওদের চেয়ে ভালো না লাগলেও খারাপ লাগবে না।’
রুনা খান বললেন, ‘প্রিয়াঙ্কা চোপড়ার বয়স ৪১, ক্যাটরিনার ৪০, দীপিকারও ৪০ ছুঁই ছুঁই। আমাদের দেশের বাঁধন ও রুনা খানের বয়স ৪০ পার হয়েছে। ওদেরকে দেখতে যেমন দেখায়, অভিনয়ের ক্ষেত্রে বলব না, লুকের ক্ষেত্রে। তারপরও তো পুরোপুরি তা সম্ভব নয়। তারপরও এটা ভেবেছি, ওদের সেই ফরম্যাটে কাজ করলে, ওদের চেয়ে ভালো না লাগলেও খারাপ লাগবে না।’ছবি : রুনা খানের সৌজন্যে

৬ / ৯
গত মাসে ঢাকার নিকেতনের একটি স্টুডিওতে ফটোশুট করেছেন। ফটোগ্রাফার নাসির পোশাক, মেকআপ থেকে শুরু করে সবকিছুর তদারক করেছেন।
গত মাসে ঢাকার নিকেতনের একটি স্টুডিওতে ফটোশুট করেছেন। ফটোগ্রাফার নাসির পোশাক, মেকআপ থেকে শুরু করে সবকিছুর তদারক করেছেন।

৭ / ৯
রুনা বললেন, ‘আমি ইনস্টাগ্রাম ব্যবহার করি। ইনস্টাগ্রামে দীপিকা, প্রিয়াঙ্কা, ক্যাটারিনা, কারিনা কাপুর, আলিয়া ভাট ওদের সবার ফটোশুট দেখি। সেই দেখা থেকে কিছুটা অনুপ্রাণিত হয়ে এমন একটা ফটোশুট করা।’
রুনা বললেন, ‘আমি ইনস্টাগ্রাম ব্যবহার করি। ইনস্টাগ্রামে দীপিকা, প্রিয়াঙ্কা, ক্যাটারিনা, কারিনা কাপুর, আলিয়া ভাট ওদের সবার ফটোশুট দেখি। সেই দেখা থেকে কিছুটা অনুপ্রাণিত হয়ে এমন একটা ফটোশুট করা।’ছবি : রুনা খানের সৌজন্যে

৮ / ৯
এক যুগ আগে রুনা খানের ওজন ছিল ৫৬ কেজি। ২০০৯ সালে তাঁর বিয়ে হয়। পরের বছরই সন্তান রাজেশ্বরীর জন্ম। একসময় রুনার ওজন ৯৫ কেজিতে গিয়ে ঠেকে।
এক যুগ আগে রুনা খানের ওজন ছিল ৫৬ কেজি। ২০০৯ সালে তাঁর বিয়ে হয়। পরের বছরই সন্তান রাজেশ্বরীর জন্ম। একসময় রুনার ওজন ৯৫ কেজিতে গিয়ে ঠেকে।ছবি : রুনা খানের সৌজন্যে

৯ / ৯
সন্তান জন্মের এক বছর পর, মানে ২০১১ সাল থেকে ওজন কমানোর মিশন শুরু করেন রুনা। কিন্তু কোনোভাবেই পারছিলেন না, বরং একপর্যায়ে ওজন আরও বেড়ে হয় ১০৫ কেজি। ওজন কমাতে ধানমন্ডির একাধিক জিম ও প্রশিক্ষকের শরণাপন্ন হন তিনি। শুরু করেন সাঁতার। ভর্তি হন ইয়োগা ও অ্যারোবিকস ক্লাসেও। স্বাস্থ্যকর খাবার খাওয়া শুরু করেন।
সন্তান জন্মের এক বছর পর, মানে ২০১১ সাল থেকে ওজন কমানোর মিশন শুরু করেন রুনা। কিন্তু কোনোভাবেই পারছিলেন না, বরং একপর্যায়ে ওজন আরও বেড়ে হয় ১০৫ কেজি। ওজন কমাতে ধানমন্ডির একাধিক জিম ও প্রশিক্ষকের শরণাপন্ন হন তিনি। শুরু করেন সাঁতার। ভর্তি হন ইয়োগা ও অ্যারোবিকস ক্লাসেও। স্বাস্থ্যকর খাবার খাওয়া শুরু করেন।ছবি : রুনা খানের সৌজন্যে
সুত্র: প্রথম আলো