০৫:২২ অপরাহ্ন, সোমবার, ২৪ জুন ২০২৪, ১০ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

রাতের অন্ধকারে ত্রাণ পৌঁছে দিল পুলিশ

print news -

বন্যায় বিপর্যস্ত সিলেট জেলার বিয়ানীবাজার উপজেলার বিভিন্ন বন্যাদুর্গত এলাকায় সিলেট জেলা পুলিশের পক্ষ থেকে ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ অব্যাহত রয়েছে।Screenshot 20220627 152228 Facebook -
তারই ধারাবাহিকতায় সোমবার (২৭জুন) সকাল থেকে রাত অবধি সিলেট জেলার পুলিশ সুপার অতিরিক্ত ডিআইজি মোহাম্মদ ফরিদ উদ্দিন পিপিএম এর নেতৃত্বে বিয়ানীবাজার উপজেলার ৫নং কুড়ারবাজার ইউনিয়নের বিভিন্ন আশ্রয় কেন্দ্রে বন্যায় ক্ষতিগ্রস্হ পানিবন্দী অসহায় মানুষের পাশাপাশি যারা আশ্রয় কেন্দ্রে যায়নি এবং বাসা/বাড়িতে অবস্থান করছে ঘরে পানি নেই রোজগারের কোন রাস্তা চারিদিকে পানি আর পানি অসহায়ত্ব নিয়ে জীবন যাপন করতে হচ্ছে সাধারণ মানুষের। প্রত্যন্ত অঞ্চলে মানুষের দোরগোড়ায় গিয়ে গিয়ে মানুষের খবরা-খবর নিচ্ছেন বিয়ানীবাজার থানার এসআই অঞ্জন   কুমার দেব ওইসব মানুষের মাঝে ত্রান সামগ্রী বিতরণ করে যাচ্ছেন। তিনি বলেন, বিয়ানীবাজার থানার অফিসার ইনচার্জ হিল্লোল রায় এর দিকনির্দেশনায় কুড়ার বাজার ইউনিয়ন এর বন্যা দুর্গত মানুষের মাঝে জেলা পুলিশের দেওয়া ত্রাণ সামগ্রী বিতরন অব্যাহত আছে। তিনি আরো বলেন,যারা আশ্রয়কেন্দ্রে আছে তাহারা সরকারি-বেসরকারি ত্রাণ সামগ্রী পাচ্ছে কিন্তু যারা বাসা/বাড়িতে আছে তাহারা ত্রাণ সামগ্রী পাচ্ছে না গ্রামে  গিয়ে তাদের মাঝে ত্রাণ সামগ্রী বিতরনের চেষ্টা করছি।
নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একজন উপকারভোগী বলেন , আজ ২ সপ্তাহ ধরে আমরা চারটি পরিবার পানিবন্দি অবস্থায় আছি। বাড়ির উঠোনে পানি দুটি পরিবারের পানি ঘরে ঢুকেছে কোন আশ্রয় কেন্দ্রে যাইনি। সরকারি-বেসরকারি ত্রাণ সামগ্রী আমাদের ভাগ্যে জোটেনি চক্ষুলজ্জায় কাউকে বলতেও পারছি না।অনেক কষ্ট করে ছেলে সন্তান নিয়ে জীবন যাপন করছি।

মোবাইল ফোনে বিট অফিসার অঞ্জন কুমার দেবের সাথে যোগাযোগ করলে তিনি অফিসার ইনচার্জ বিয়ানীবাজার থানা মহোদয়ের সাথে কথা বলে স্যার এর নির্দেশে দ্রুততম সময়ে প্রাণ সামগ্রী পৌঁছে দেন। ব্যক্তিগত পক্ষ থেকে ৪ পরিবারের পক্ষ থেকে বাংলাদেশ পুলিশকে অসংখ্য ধন্যবাদ জানাচ্ছি।

বন্যা মোকাবেলা ও প্রাকৃতিক দূর্যোগ কালীন আইনশৃঙ্খলা রক্ষায় আন্তরিকতার সাথে কাজ করে যাচ্ছে বিয়ানীবাজার থানা পুলিশ।
ইতোমধ্যে বন্যা দুর্গত এলাকার আশ্রয় কেন্দ্রগুলোতে বিয়ানীবাজার থানার পক্ষ থেকে রান্না করা প্যাকেট খাবার, প্যাকেট শুকনো খাদ্য সামগ্রী, পানি বিশুদ্ধকরন ট্যাবলেট, খাবার স্যালাইন, প্রয়োজনীয় ঔষধ সামগ্রী বিতরণ করা হয়েছে।

ট্যাগঃ
জনপ্রিয় সংবাদ

বন্যা পরিস্থিতির অবনতি সিলেট, সুনামগঞ্জ ও কুড়িগ্রাম

রাতের অন্ধকারে ত্রাণ পৌঁছে দিল পুলিশ

প্রকাশিত হয়েছেঃ ০৯:৫০:৪০ অপরাহ্ন, সোমবার, ২৭ জুন ২০২২
print news -

বন্যায় বিপর্যস্ত সিলেট জেলার বিয়ানীবাজার উপজেলার বিভিন্ন বন্যাদুর্গত এলাকায় সিলেট জেলা পুলিশের পক্ষ থেকে ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ অব্যাহত রয়েছে।Screenshot 20220627 152228 Facebook -
তারই ধারাবাহিকতায় সোমবার (২৭জুন) সকাল থেকে রাত অবধি সিলেট জেলার পুলিশ সুপার অতিরিক্ত ডিআইজি মোহাম্মদ ফরিদ উদ্দিন পিপিএম এর নেতৃত্বে বিয়ানীবাজার উপজেলার ৫নং কুড়ারবাজার ইউনিয়নের বিভিন্ন আশ্রয় কেন্দ্রে বন্যায় ক্ষতিগ্রস্হ পানিবন্দী অসহায় মানুষের পাশাপাশি যারা আশ্রয় কেন্দ্রে যায়নি এবং বাসা/বাড়িতে অবস্থান করছে ঘরে পানি নেই রোজগারের কোন রাস্তা চারিদিকে পানি আর পানি অসহায়ত্ব নিয়ে জীবন যাপন করতে হচ্ছে সাধারণ মানুষের। প্রত্যন্ত অঞ্চলে মানুষের দোরগোড়ায় গিয়ে গিয়ে মানুষের খবরা-খবর নিচ্ছেন বিয়ানীবাজার থানার এসআই অঞ্জন   কুমার দেব ওইসব মানুষের মাঝে ত্রান সামগ্রী বিতরণ করে যাচ্ছেন। তিনি বলেন, বিয়ানীবাজার থানার অফিসার ইনচার্জ হিল্লোল রায় এর দিকনির্দেশনায় কুড়ার বাজার ইউনিয়ন এর বন্যা দুর্গত মানুষের মাঝে জেলা পুলিশের দেওয়া ত্রাণ সামগ্রী বিতরন অব্যাহত আছে। তিনি আরো বলেন,যারা আশ্রয়কেন্দ্রে আছে তাহারা সরকারি-বেসরকারি ত্রাণ সামগ্রী পাচ্ছে কিন্তু যারা বাসা/বাড়িতে আছে তাহারা ত্রাণ সামগ্রী পাচ্ছে না গ্রামে  গিয়ে তাদের মাঝে ত্রাণ সামগ্রী বিতরনের চেষ্টা করছি।
নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একজন উপকারভোগী বলেন , আজ ২ সপ্তাহ ধরে আমরা চারটি পরিবার পানিবন্দি অবস্থায় আছি। বাড়ির উঠোনে পানি দুটি পরিবারের পানি ঘরে ঢুকেছে কোন আশ্রয় কেন্দ্রে যাইনি। সরকারি-বেসরকারি ত্রাণ সামগ্রী আমাদের ভাগ্যে জোটেনি চক্ষুলজ্জায় কাউকে বলতেও পারছি না।অনেক কষ্ট করে ছেলে সন্তান নিয়ে জীবন যাপন করছি।

মোবাইল ফোনে বিট অফিসার অঞ্জন কুমার দেবের সাথে যোগাযোগ করলে তিনি অফিসার ইনচার্জ বিয়ানীবাজার থানা মহোদয়ের সাথে কথা বলে স্যার এর নির্দেশে দ্রুততম সময়ে প্রাণ সামগ্রী পৌঁছে দেন। ব্যক্তিগত পক্ষ থেকে ৪ পরিবারের পক্ষ থেকে বাংলাদেশ পুলিশকে অসংখ্য ধন্যবাদ জানাচ্ছি।

বন্যা মোকাবেলা ও প্রাকৃতিক দূর্যোগ কালীন আইনশৃঙ্খলা রক্ষায় আন্তরিকতার সাথে কাজ করে যাচ্ছে বিয়ানীবাজার থানা পুলিশ।
ইতোমধ্যে বন্যা দুর্গত এলাকার আশ্রয় কেন্দ্রগুলোতে বিয়ানীবাজার থানার পক্ষ থেকে রান্না করা প্যাকেট খাবার, প্যাকেট শুকনো খাদ্য সামগ্রী, পানি বিশুদ্ধকরন ট্যাবলেট, খাবার স্যালাইন, প্রয়োজনীয় ঔষধ সামগ্রী বিতরণ করা হয়েছে।