১১:২০ অপরাহ্ন, সোমবার, ২৪ জুন ২০২৪, ১০ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

যৌবন ধরে রাখতে তিন ধরনের বাদাম খান

print news -

অনেকেই ভাবেন নামী-দামি প্রসাধনী ব্যবহার করলেই বয়স বাগে আনা সম্ভব। তবে পাশাপাশি ডায়েটেও যে নজর রাখতে হবে, তা ভুলে যাই আমরা। তবে উপায়?

জীবনচক্রের নিয়ম মেনে শৈশব থেকে কৈশোর, তার পর যৌবন হয়ে শেষে বৃদ্ধাবস্থায় পৌঁছন মানুষ। কিন্তু সেই স্বাভাবিক জৈবিক নিয়মকে কি সহজে মানতে পারি সকলে? বয়স ত্রিশের কোঠা পেরোতে না পেরোতেই মাথায় শুধু একটিই চিন্তা, ‘আমাকে বয়স্ক দেখাচ্ছে না তো?’ অনেকেই ভাবেন নামী-দামি প্রসাধনী ব্যবহার করলেই বুঝি বয়স বাগে আনা সম্ভব! তবে তার পাশাপাশি ডায়েটেও যে নজর রাখতে হবে, সে বিষয়টি ভুলে যাই আমরা। রেস্তরাঁর মশলাদার খাবার, ভাজাভুজি কেবল আমাদের শরীরের ভিতরের ক্ষতি করে এমনটা নয়, এর প্রভাব পড়ে ত্বকেও। বয়স ধরে রাখতে বিভিন্ন ধরনের বাদাম ভীষণ উপকারী। জেনে নিন কোন কোন বাদাম ডায়েটে রাখলেই যৌবন বজায় থাকবে আপনার।

কা‌ঠবাদাম: এই বাদাম ভিটামিন ই-র একটি দারুণ উৎস। ভিটামিন ই আপনার ত্বককে অতিবেগুনি রশ্মি থেকে রক্ষা করতে, আর্দ্রতা ধরে রাখতে এবং ত্বকের টিস্যু মেরামত করতে সাহায্য করে। ক্যালিফোর্নিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের এক গবেষণায় দেখা গিয়েছে, নিয়মিত কাঠবাদাম খেলে ঋতুবন্ধের পর ত্বকের বলিরেখার সমস্যা থেকে মুক্তি পাওয়া সম্ভব।

আখরোট: এতে আছে প্রদাহরোধী ওমেগা ৩ ফ্যাটি অ্যাসিড। তা ত্বকের ঔজ্জ্বল্য বাড়ায়। আখরোট পলিফেনলের ভাল উৎস। এর মধ্যে থাকা অ্যান্টি-অক্সিড্যান্ট উপাদান যে কোনও রকম প্রদাহ দূর করতে সাহায্য করে। ত্বক টানটান রাখতেও সাহায্য করে।

পেস্তা: এই বাদামে ভরপুর মাত্রায় পলিফেনল ও ফ্ল্যাভোনয়েড থাকে। ত্বকের স্বাস্থ্য ভাল রাখতে এই দুই উপাদান বেশ জরুরি। এর মধ্যে থাকা অ্যান্টি-অক্সিড্যান্ট ত্বকের জেল্লা বাড়ায়। ত্বকের কোষের ক্ষয় রোধ করে। ব্রণ কমাতেও সাহায্য করে এই বাদাম।

জনপ্রিয় সংবাদ

বন্যা পরিস্থিতির অবনতি সিলেট, সুনামগঞ্জ ও কুড়িগ্রাম

যৌবন ধরে রাখতে তিন ধরনের বাদাম খান

প্রকাশিত হয়েছেঃ ০১:২৯:১৮ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ১৯ অক্টোবর ২০২২
print news -

অনেকেই ভাবেন নামী-দামি প্রসাধনী ব্যবহার করলেই বয়স বাগে আনা সম্ভব। তবে পাশাপাশি ডায়েটেও যে নজর রাখতে হবে, তা ভুলে যাই আমরা। তবে উপায়?

জীবনচক্রের নিয়ম মেনে শৈশব থেকে কৈশোর, তার পর যৌবন হয়ে শেষে বৃদ্ধাবস্থায় পৌঁছন মানুষ। কিন্তু সেই স্বাভাবিক জৈবিক নিয়মকে কি সহজে মানতে পারি সকলে? বয়স ত্রিশের কোঠা পেরোতে না পেরোতেই মাথায় শুধু একটিই চিন্তা, ‘আমাকে বয়স্ক দেখাচ্ছে না তো?’ অনেকেই ভাবেন নামী-দামি প্রসাধনী ব্যবহার করলেই বুঝি বয়স বাগে আনা সম্ভব! তবে তার পাশাপাশি ডায়েটেও যে নজর রাখতে হবে, সে বিষয়টি ভুলে যাই আমরা। রেস্তরাঁর মশলাদার খাবার, ভাজাভুজি কেবল আমাদের শরীরের ভিতরের ক্ষতি করে এমনটা নয়, এর প্রভাব পড়ে ত্বকেও। বয়স ধরে রাখতে বিভিন্ন ধরনের বাদাম ভীষণ উপকারী। জেনে নিন কোন কোন বাদাম ডায়েটে রাখলেই যৌবন বজায় থাকবে আপনার।

কা‌ঠবাদাম: এই বাদাম ভিটামিন ই-র একটি দারুণ উৎস। ভিটামিন ই আপনার ত্বককে অতিবেগুনি রশ্মি থেকে রক্ষা করতে, আর্দ্রতা ধরে রাখতে এবং ত্বকের টিস্যু মেরামত করতে সাহায্য করে। ক্যালিফোর্নিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের এক গবেষণায় দেখা গিয়েছে, নিয়মিত কাঠবাদাম খেলে ঋতুবন্ধের পর ত্বকের বলিরেখার সমস্যা থেকে মুক্তি পাওয়া সম্ভব।

আখরোট: এতে আছে প্রদাহরোধী ওমেগা ৩ ফ্যাটি অ্যাসিড। তা ত্বকের ঔজ্জ্বল্য বাড়ায়। আখরোট পলিফেনলের ভাল উৎস। এর মধ্যে থাকা অ্যান্টি-অক্সিড্যান্ট উপাদান যে কোনও রকম প্রদাহ দূর করতে সাহায্য করে। ত্বক টানটান রাখতেও সাহায্য করে।

পেস্তা: এই বাদামে ভরপুর মাত্রায় পলিফেনল ও ফ্ল্যাভোনয়েড থাকে। ত্বকের স্বাস্থ্য ভাল রাখতে এই দুই উপাদান বেশ জরুরি। এর মধ্যে থাকা অ্যান্টি-অক্সিড্যান্ট ত্বকের জেল্লা বাড়ায়। ত্বকের কোষের ক্ষয় রোধ করে। ব্রণ কমাতেও সাহায্য করে এই বাদাম।