০৫:১৪ অপরাহ্ন, রবিবার, ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১৩ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

মায়ের চিকিৎসার খরচ জোগাতে চাকরি করতেন কলেজ ছাত্র, স ড় ক দুর্ঘটনায় গেল প্রা ণ

print news -

নিউজ ডেস্ক:  ফেনী সদর উপজেলায় ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে রিকশায় অজ্ঞাত গাড়ির ধাক্কায় এক তরুণ নিহত হয়েছেন। আজ বুধবার দুপুর ১২টার দিকে উপজেলার বিসিক সড়কের মাথা এলাকায় এই দুর্ঘটনা ঘটে। নিহত ইহাদুল ইসলাম (২০) উপজেলার লেমুয়া ইউনিয়নের লেমুয়া গ্রামের মো. স্বপন মিয়ার ছেলে এবং ফেনীর ফাজিলপুর সাউথইস্ট ডিগ্রি কলেজের উচ্চমাধ্যমিক দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্র ছিল।

ছেলের মৃত্যুর খবর পেয়ে নিহত ইহাদুলের বাবা মো. স্বপন মিয়ার ছুটে যান ফেনী সদর হাসপাতালের সামনে। তিনি বলেন, ইহাদুল ইসলাম তাঁর অসুস্থ মায়ের চিকিৎসার টাকা জোগাতে লেখাপড়ার পাশাপাশি ফেনী শহরে একটি খণ্ডকালীন চাকরি নিয়েছিলেন। আজ বুধবার সকালে তিনি রিকশায় ফেনীর বিসিক এলাকার একটি প্রতিষ্ঠানে মালামাল পৌঁছে দিতে যাচ্ছিলেন। এ সময় অজ্ঞাত গাড়ির ধাক্কায় আহত হন তিনি ও রিকশাটির চালক। স্থানীয় ব্যক্তিরা তাঁদের উদ্ধার করে ফেনী সদর জেনারেল হাসপাতালের জরুরি বিভাগে নিলে চিকিৎসক ইহাদুলকে মৃত ঘোষণা করেন। হাসপাতালে এসে ছেলের মৃত্যুর খবর জানতে পারেন স্বপন মিয়া। ততক্ষণে লাশ মর্গে নিয়ে যাওয়া হয়। কথা বলতে গিয়ে একপর্যায়ে কান্নায় ভেঙে পড়েন স্বপন মিয়া।

মহিপাল হাইওয়ে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোস্তফা কামাল বলেন, নিহতের লাশ ময়নাতদন্তের জন্য হাসপাতালের মর্গে রাখা হয়েছে। এ ঘটনায় আইনগত প্রক্রিয়া চলমান আছে।

সুত্র: প্রথম আলো

ট্যাগঃ

মায়ের চিকিৎসার খরচ জোগাতে চাকরি করতেন কলেজ ছাত্র, স ড় ক দুর্ঘটনায় গেল প্রা ণ

প্রকাশিত হয়েছেঃ ০৪:৪০:০১ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১ ফেব্রুয়ারী ২০২৪
print news -

নিউজ ডেস্ক:  ফেনী সদর উপজেলায় ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে রিকশায় অজ্ঞাত গাড়ির ধাক্কায় এক তরুণ নিহত হয়েছেন। আজ বুধবার দুপুর ১২টার দিকে উপজেলার বিসিক সড়কের মাথা এলাকায় এই দুর্ঘটনা ঘটে। নিহত ইহাদুল ইসলাম (২০) উপজেলার লেমুয়া ইউনিয়নের লেমুয়া গ্রামের মো. স্বপন মিয়ার ছেলে এবং ফেনীর ফাজিলপুর সাউথইস্ট ডিগ্রি কলেজের উচ্চমাধ্যমিক দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্র ছিল।

ছেলের মৃত্যুর খবর পেয়ে নিহত ইহাদুলের বাবা মো. স্বপন মিয়ার ছুটে যান ফেনী সদর হাসপাতালের সামনে। তিনি বলেন, ইহাদুল ইসলাম তাঁর অসুস্থ মায়ের চিকিৎসার টাকা জোগাতে লেখাপড়ার পাশাপাশি ফেনী শহরে একটি খণ্ডকালীন চাকরি নিয়েছিলেন। আজ বুধবার সকালে তিনি রিকশায় ফেনীর বিসিক এলাকার একটি প্রতিষ্ঠানে মালামাল পৌঁছে দিতে যাচ্ছিলেন। এ সময় অজ্ঞাত গাড়ির ধাক্কায় আহত হন তিনি ও রিকশাটির চালক। স্থানীয় ব্যক্তিরা তাঁদের উদ্ধার করে ফেনী সদর জেনারেল হাসপাতালের জরুরি বিভাগে নিলে চিকিৎসক ইহাদুলকে মৃত ঘোষণা করেন। হাসপাতালে এসে ছেলের মৃত্যুর খবর জানতে পারেন স্বপন মিয়া। ততক্ষণে লাশ মর্গে নিয়ে যাওয়া হয়। কথা বলতে গিয়ে একপর্যায়ে কান্নায় ভেঙে পড়েন স্বপন মিয়া।

মহিপাল হাইওয়ে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোস্তফা কামাল বলেন, নিহতের লাশ ময়নাতদন্তের জন্য হাসপাতালের মর্গে রাখা হয়েছে। এ ঘটনায় আইনগত প্রক্রিয়া চলমান আছে।

সুত্র: প্রথম আলো