১২:১১ অপরাহ্ন, রবিবার, ১৯ মে ২০২৪, ৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

বিয়ানীবাজার উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ভবনে বীর মুক্তিযোদ্ধাসহ দুটি বিশেষ কেবিন এর আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন

print news -

বিয়ানীবাজার প্রতিনিধি::
সিলেটের বিয়ানীবাজার উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ভবনে বীর মুক্তিযোদ্ধা কেবিন এর আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করা হয়। সোমবার (১৫ আগষ্ঠ) ফিতা কেটে বীর মুক্তিযোদ্ধা কেবিন এর আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন, বিয়ানীবাজার উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আবুল কাশেম পল্লব, নবনির্বাচিত মেয়র জিএস ফারুকুল হক, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আশিক নুর, সহকারী কমিশনার (ভুমি) তানিয়া আক্তার, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান রুকশানা বেগম লিমা।10 -

হাজার বছরের শ্রেষ্ট বাঙ্গালী জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৭ তম শাহাদাৎ বার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষ্যে বিয়ানীবাজার উপজেলা স্বাস্থ্য বিভাগ কর্তৃক মুক্তিযোদ্ধা দের প্রতি সম্মান প্রদান করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স এর ২য় তলায় বিয়ানীবাজারে এই প্রথম বীর মুক্তিযোদ্ধাদের জন্য একটি কেবিন এবং  সাধারন মানুষের জন্য দুটি কেবিন উদ্বোধন করা হয়েছে। এতে করে সাধারণ মানুষরা এখন থেকে কেবিন ব্লকে চিকিৎসা সেবা গ্রহণ করতে পারবে।উদ্বোধন শেষে বক্তারা বলেন, আওয়ামী লীগ সরকার ক্ষমতায় আছে বলেই স্বাস্থ্যখাতকে মানুষের দোড়গড়ায় পৌঁছে দেওয়া সম্ভব হয়েছে। বিনামূল্যে ওষুধ, চিকিৎসা সেবা, খাওয়া থেকে শুরু করে নানা ধরনের সেবা মানুষকে দেয়া হচ্ছে। স্বাস্থ্যখাতকে আমরা আরও উন্নত করার জন্য নানামূখী প্রদক্ষেপ গ্রহণ করেছি।11 -

উপস্থিত ছিলেন,উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাঃ মোঃ দেলোয়ার হোসেন, মুক্তিযুদ্ধা কমান্ডার  আব্দুল কাদির, আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডাঃ আবু ইসহাক আজাদ, জুনিয়র কন্সাল্টেন্ট এনেস্থিসিয়া ডাঃ মেহদী আহমদ মুন্না, এছাড়াও উপস্থিত ছিলেন, উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের মেডিকেল অফিসারগন, সিনিয়র স্টাফ নার্স গন, এবং স্বাস্থ্য বিভাগের সকল কর্মকর্তা-কর্মচারী বৃন্দ।

১৫ আগস্ট জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে সারা দেশের ন্যায় বিয়ানীবাজার উপজেলার ২৩টি কমিউনিটি ক্লিনিকে বিশেষ স্বাস্থ্যসেবা প্রদান করা হয়েছে। সকাল ৯ টা থেকে দুপুর ১২ টা পর্যন্ত উপজেলার ২৩টি কমিউনিটি ক্লিনিকে ১৫ই আগষ্ট জাতিয় শোক দিবস উপলক্ষ্যে জাতীয় পতাকা উত্তোলন,আলোচনা সভা ও স্বাস্থ্যশিক্ষা অধিবেশন সহ বিভিন্ন কর্মসূচি পালন করতে দেখা যায়।

সরকারি তালিকায় ছুটির দিন হলেও জাতীয় শোক দিবস পড়ায় খোলা ছিল বিয়ানীবাজার উপজেলার ২৩টি কমিউনিটি ক্লিনিক। তবে, অন্যান্য দিনের তুলনায় রোগির উপস্থিতির পরিমাণ ছিল কম। তবু সরকারি সেবা পেয়ে খুশি গ্রামীণ জনপদের মানুষগুলো। সরকারিভাবে চালুকৃত এসব কমিউনিটি ক্লিনিকে সকল প্রকার প্রাথমিক চিকিৎসা সেবা পাওয়া যায়। জটিল রোগি হলে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে রেফার করা হয়। এখানে গর্ভবতী মায়েদের এএনসি এবং পিএনসিসহ সকল সেবা প্রদান করা হয়।

শোক দিবসে বক্তারা বাঙালী জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মজিবুর রহমানের জীবনাদর্শ নিয়ে আলোচানা করেন। আলোচনা শেষে বঙ্গবন্ধু, তার পরিবারের অন্যান্য সদস্যসহ সকল শহীদদের আত্মার মাগফিরাত কামনায় দোয়া করা হয়।

ট্যাগঃ
জনপ্রিয় সংবাদ

উপজেলা পরিষদ নির্বাচন : ২০৪ নেতাকে বহিষ্কার করল বি.এন.পি

বিয়ানীবাজার উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ভবনে বীর মুক্তিযোদ্ধাসহ দুটি বিশেষ কেবিন এর আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন

প্রকাশিত হয়েছেঃ ০২:০২:০৫ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ১৬ অগাস্ট ২০২২
print news -

বিয়ানীবাজার প্রতিনিধি::
সিলেটের বিয়ানীবাজার উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ভবনে বীর মুক্তিযোদ্ধা কেবিন এর আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করা হয়। সোমবার (১৫ আগষ্ঠ) ফিতা কেটে বীর মুক্তিযোদ্ধা কেবিন এর আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন, বিয়ানীবাজার উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আবুল কাশেম পল্লব, নবনির্বাচিত মেয়র জিএস ফারুকুল হক, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আশিক নুর, সহকারী কমিশনার (ভুমি) তানিয়া আক্তার, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান রুকশানা বেগম লিমা।10 -

হাজার বছরের শ্রেষ্ট বাঙ্গালী জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৭ তম শাহাদাৎ বার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষ্যে বিয়ানীবাজার উপজেলা স্বাস্থ্য বিভাগ কর্তৃক মুক্তিযোদ্ধা দের প্রতি সম্মান প্রদান করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স এর ২য় তলায় বিয়ানীবাজারে এই প্রথম বীর মুক্তিযোদ্ধাদের জন্য একটি কেবিন এবং  সাধারন মানুষের জন্য দুটি কেবিন উদ্বোধন করা হয়েছে। এতে করে সাধারণ মানুষরা এখন থেকে কেবিন ব্লকে চিকিৎসা সেবা গ্রহণ করতে পারবে।উদ্বোধন শেষে বক্তারা বলেন, আওয়ামী লীগ সরকার ক্ষমতায় আছে বলেই স্বাস্থ্যখাতকে মানুষের দোড়গড়ায় পৌঁছে দেওয়া সম্ভব হয়েছে। বিনামূল্যে ওষুধ, চিকিৎসা সেবা, খাওয়া থেকে শুরু করে নানা ধরনের সেবা মানুষকে দেয়া হচ্ছে। স্বাস্থ্যখাতকে আমরা আরও উন্নত করার জন্য নানামূখী প্রদক্ষেপ গ্রহণ করেছি।11 -

উপস্থিত ছিলেন,উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাঃ মোঃ দেলোয়ার হোসেন, মুক্তিযুদ্ধা কমান্ডার  আব্দুল কাদির, আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডাঃ আবু ইসহাক আজাদ, জুনিয়র কন্সাল্টেন্ট এনেস্থিসিয়া ডাঃ মেহদী আহমদ মুন্না, এছাড়াও উপস্থিত ছিলেন, উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের মেডিকেল অফিসারগন, সিনিয়র স্টাফ নার্স গন, এবং স্বাস্থ্য বিভাগের সকল কর্মকর্তা-কর্মচারী বৃন্দ।

১৫ আগস্ট জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে সারা দেশের ন্যায় বিয়ানীবাজার উপজেলার ২৩টি কমিউনিটি ক্লিনিকে বিশেষ স্বাস্থ্যসেবা প্রদান করা হয়েছে। সকাল ৯ টা থেকে দুপুর ১২ টা পর্যন্ত উপজেলার ২৩টি কমিউনিটি ক্লিনিকে ১৫ই আগষ্ট জাতিয় শোক দিবস উপলক্ষ্যে জাতীয় পতাকা উত্তোলন,আলোচনা সভা ও স্বাস্থ্যশিক্ষা অধিবেশন সহ বিভিন্ন কর্মসূচি পালন করতে দেখা যায়।

সরকারি তালিকায় ছুটির দিন হলেও জাতীয় শোক দিবস পড়ায় খোলা ছিল বিয়ানীবাজার উপজেলার ২৩টি কমিউনিটি ক্লিনিক। তবে, অন্যান্য দিনের তুলনায় রোগির উপস্থিতির পরিমাণ ছিল কম। তবু সরকারি সেবা পেয়ে খুশি গ্রামীণ জনপদের মানুষগুলো। সরকারিভাবে চালুকৃত এসব কমিউনিটি ক্লিনিকে সকল প্রকার প্রাথমিক চিকিৎসা সেবা পাওয়া যায়। জটিল রোগি হলে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে রেফার করা হয়। এখানে গর্ভবতী মায়েদের এএনসি এবং পিএনসিসহ সকল সেবা প্রদান করা হয়।

শোক দিবসে বক্তারা বাঙালী জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মজিবুর রহমানের জীবনাদর্শ নিয়ে আলোচানা করেন। আলোচনা শেষে বঙ্গবন্ধু, তার পরিবারের অন্যান্য সদস্যসহ সকল শহীদদের আত্মার মাগফিরাত কামনায় দোয়া করা হয়।