০৩:৫৯ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ২৪ মে ২০২৪, ১০ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

বরিশালে ভোটে অনিয়মের অভিযোগ, মহাশড়ক অবরোধ ও বিক্ষোভ

print news -

নিউজ ডেক্স: বরিশালে ভোটে অনিয়ম ও প্রার্থীর ওপর হামলার অভিযোগ তুলে বরিশাল শহরে মহাসড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ করছে হাতপাখার কর্মী-সমর্থকরা।

সোমবার (১২ জুন) বেলা সোয়া ১২টার দিকে ঢাকা-বরিশালে মহাসড়কের অবোরধ করে তারা।

জানা গেছে, ২২ নম্বর ওয়ার্ডের ছাবেরা খাতুন বালিকা বিদ্যালয় কেন্দ্রে হাতপাখা প্রতীকের মেয়রপ্রার্থী ফয়জুল করিম এক-দেড় শতাধিক নেতাকর্মী নিয়ে প্রবেশ করতে গেলে পুলিশ বাধা দেয়। এর প্রতিবাদে বিক্ষোভ করে ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের নেতাকর্মীরা।

এক পর্যায়ে পার্শবর্তী কেন্দ্র থেকে প্রায় ৫ শতাধিক নেতকর্মী জোড় হয়ে ভোটে অনিয়ম ও প্রার্থীর ওপর হামলার অভিযোগ এনে ঢাকা-বরিশাল মহাসড়কের অবোরধ করে।

প্রায় ঘণ্টাব্যপী এ অবরোধ চলাকালে বিপুল সংখ্যক আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্য বিক্ষোভকারীদের চারপাশ ঘিরে রাখে।

পরে দুপুর সোয়া ১ টার দিকে মেট্রোপলিটন পুলিশের উপ- কমিশনার ফজলুল করিম হ্যান্ড মাইক নিয়ে বহিরাগতদের সড়ে যেতে বললে হাতপাখার কর্মীরা বিভিন্ন সড়কে অবস্থান নেয়। বর্তমানে পরিবেশ অনেকটাই উত্তেজনাকর।

সকাল সাড়ে ৯টার দিকে বরিশাল নগরীর কাউনিয়া মেইন রোডের একটি কেন্দ্রে প্রবেশ করাকে কেন্দ্র করে এই ঘটনা ঘটে। এই ঘটনায় দুই পক্ষের বেশ কয়েকজন আহত হয়েছেন। এর আগে কাউনিয়ার মেইন সড়কের এ কাদের চৌধুরী স্কুল কেন্দ্রে হাতপাখার ভোটার ও মানিক মিয়া স্কুল কেন্দ্র থেকে পোলিং এজেন্টকে বের করে দেয়ার অভিযোগ ওঠে। এই ঘটনা শুনে ফয়জুল কেন্দ্রগুলোতে প্রবেশ করে প্রিজাইডিং অফিসারকে অভিযোগগুলো জানান। এরপর মানিক মিয়া স্কুলের অপরদিকের কাউনিয়া বালিকা বিদ্যালয় ঢুকতে চান ফয়জুল।

এ সময় নৌকার নেতাকর্মীরা হাতপাখার প্রার্থীকে বলেন, কয়েকজন ভিতরে ঢুকতে পারবেন। আপনারা সবাই ঢুকলে আমরাও ঢুকবো। এরপর হাতপাখার প্রার্থীসহ নেতাকর্মী ও নৌকার নেতাকর্মীদের মধ্যে মারামারি শুরু হয়।

হাতপাখার প্রার্থীর অভিযোগ, কেন্দ্রে ঢুকতে চাইলে তাতে বাধা দেয় নৌকার লোকজন। তারপর আমরা ঢুকতে চাইলে আমাকেসহ নেতাকর্মীদের আহত করেন।

তবে নৌকার আহত কর্মী বিদ্যুৎ জানান, তারা দলবল নিয়ে কেন্দ্রে ঢুকতে চায়। তখন তাদের বলি এতো মানুষ ঢোকা যাবে না। তারপর আমার ওপর ওপর চাকু নিয়ে হামলা করেছে হাতপাখা। আমরা বহুজন আহত হয়েছি।

রিটার্নিং কর্মকর্তা হুমায়ুন কবির জানান, হাতপাখার প্রার্থী দলবল নিয়ে ঢুকতে চেয়েছিল।এই নিয়ে নাকি ঝামেলা হয়েছে।।বিষয়টি খতিয়ে দেখছি। এটি কেন্দ্রের বাইরের বিচ্ছিন্ন ঘটনা।

ট্যাগঃ
জনপ্রিয় সংবাদ

আনোয়ারুল আজীমকে খুন করতে ৫ কোটি টাকার চুক্তি

বরিশালে ভোটে অনিয়মের অভিযোগ, মহাশড়ক অবরোধ ও বিক্ষোভ

প্রকাশিত হয়েছেঃ ০৮:২৬:১৬ অপরাহ্ন, সোমবার, ১২ জুন ২০২৩
print news -

নিউজ ডেক্স: বরিশালে ভোটে অনিয়ম ও প্রার্থীর ওপর হামলার অভিযোগ তুলে বরিশাল শহরে মহাসড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ করছে হাতপাখার কর্মী-সমর্থকরা।

সোমবার (১২ জুন) বেলা সোয়া ১২টার দিকে ঢাকা-বরিশালে মহাসড়কের অবোরধ করে তারা।

জানা গেছে, ২২ নম্বর ওয়ার্ডের ছাবেরা খাতুন বালিকা বিদ্যালয় কেন্দ্রে হাতপাখা প্রতীকের মেয়রপ্রার্থী ফয়জুল করিম এক-দেড় শতাধিক নেতাকর্মী নিয়ে প্রবেশ করতে গেলে পুলিশ বাধা দেয়। এর প্রতিবাদে বিক্ষোভ করে ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের নেতাকর্মীরা।

এক পর্যায়ে পার্শবর্তী কেন্দ্র থেকে প্রায় ৫ শতাধিক নেতকর্মী জোড় হয়ে ভোটে অনিয়ম ও প্রার্থীর ওপর হামলার অভিযোগ এনে ঢাকা-বরিশাল মহাসড়কের অবোরধ করে।

প্রায় ঘণ্টাব্যপী এ অবরোধ চলাকালে বিপুল সংখ্যক আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্য বিক্ষোভকারীদের চারপাশ ঘিরে রাখে।

পরে দুপুর সোয়া ১ টার দিকে মেট্রোপলিটন পুলিশের উপ- কমিশনার ফজলুল করিম হ্যান্ড মাইক নিয়ে বহিরাগতদের সড়ে যেতে বললে হাতপাখার কর্মীরা বিভিন্ন সড়কে অবস্থান নেয়। বর্তমানে পরিবেশ অনেকটাই উত্তেজনাকর।

সকাল সাড়ে ৯টার দিকে বরিশাল নগরীর কাউনিয়া মেইন রোডের একটি কেন্দ্রে প্রবেশ করাকে কেন্দ্র করে এই ঘটনা ঘটে। এই ঘটনায় দুই পক্ষের বেশ কয়েকজন আহত হয়েছেন। এর আগে কাউনিয়ার মেইন সড়কের এ কাদের চৌধুরী স্কুল কেন্দ্রে হাতপাখার ভোটার ও মানিক মিয়া স্কুল কেন্দ্র থেকে পোলিং এজেন্টকে বের করে দেয়ার অভিযোগ ওঠে। এই ঘটনা শুনে ফয়জুল কেন্দ্রগুলোতে প্রবেশ করে প্রিজাইডিং অফিসারকে অভিযোগগুলো জানান। এরপর মানিক মিয়া স্কুলের অপরদিকের কাউনিয়া বালিকা বিদ্যালয় ঢুকতে চান ফয়জুল।

এ সময় নৌকার নেতাকর্মীরা হাতপাখার প্রার্থীকে বলেন, কয়েকজন ভিতরে ঢুকতে পারবেন। আপনারা সবাই ঢুকলে আমরাও ঢুকবো। এরপর হাতপাখার প্রার্থীসহ নেতাকর্মী ও নৌকার নেতাকর্মীদের মধ্যে মারামারি শুরু হয়।

হাতপাখার প্রার্থীর অভিযোগ, কেন্দ্রে ঢুকতে চাইলে তাতে বাধা দেয় নৌকার লোকজন। তারপর আমরা ঢুকতে চাইলে আমাকেসহ নেতাকর্মীদের আহত করেন।

তবে নৌকার আহত কর্মী বিদ্যুৎ জানান, তারা দলবল নিয়ে কেন্দ্রে ঢুকতে চায়। তখন তাদের বলি এতো মানুষ ঢোকা যাবে না। তারপর আমার ওপর ওপর চাকু নিয়ে হামলা করেছে হাতপাখা। আমরা বহুজন আহত হয়েছি।

রিটার্নিং কর্মকর্তা হুমায়ুন কবির জানান, হাতপাখার প্রার্থী দলবল নিয়ে ঢুকতে চেয়েছিল।এই নিয়ে নাকি ঝামেলা হয়েছে।।বিষয়টি খতিয়ে দেখছি। এটি কেন্দ্রের বাইরের বিচ্ছিন্ন ঘটনা।