০৫:০২ অপরাহ্ন, রবিবার, ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১৩ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

পাইলস বা অর্শ কেন হয়, কাদের এর আশঙ্কা বেশি?

print news -

অনেকেই পাইলসের সমস্যায় ভোগেন। কিন্তু এই সমস্যাটি আসলে কী? কাদের এর আশঙ্কা বেশি?

জীবনে মোবাইল ফোনের ব্যবহার এতটাই বেড়ে গিয়েছে যে, আমরা ফোন নিয়ে সব জায়গায় পৌঁছে যাই। রাতে ঘুমানোর সময়ও আমরা ফোন ব্যবহার করি। এমনকী মোবাইলের কারণে আমরা অনেক রোগেরও শিকার হচ্ছি।

অনেকেই টয়লেটে মোবাইল ফোন নিয়ে যান। সেখানে টয়লেট সিটে বসে মোবাইল ব্যবহার করলে পাইলস অর্থাৎ অর্শের মতো রোগের ঝুঁকি বেড়ে যায়।

পাইলস কী?

পাইলস এমন একটি রোগ যাতে রোগীর মলদ্বারের ভিতরে ও বাইরে ফুলে যায়। যার কারণে মলদ্বারের ভিতরের বা বাইরের অংশে চামড়া জমে গিয়ে আঁচিলের মতো তৈরি করে। যাতে নানা সময়ে ব্যথা-সহ রক্তপাত হয়।

এই আঁচিলগুলি মলত্যাগের সময় চাপের কারণে বেরিয়ে আসে। এই সমস্যার কারণে ব্যক্তির বসতেও অসুবিধা হয়।

চিকিৎসকদের মতে, অনেক সময়ে মানুষ শুরুতে এই ধরনের সমস্যার দিকে মনোযোগ দেন না, যার কারণে পরে সমস্যা বাড়ে।

 

আরো পড়ুন: পাইলস বা অর্শ রোগের লক্ষন ও করনিয়

 

পাইলসের কারণ

  • কোষ্ঠকাঠিন্যের সমস্যা থাকলে অর্শ হতে পারে। কোষ্ঠকাঠিন্যের কারণে পেট পরিষ্কার থাকে না এবং মলত্যাগে শক্তি প্রয়োগ করতে হয়, যার কারণে পাইলসের সমস্যা হয়।
  • যাঁরা দীর্ঘক্ষণ দাঁড়িয়ে কাজ করেন, তাঁদেরও পাইলসের সমস্যা হয়।
  • মেদের কারণেও পাইলসের সমস্যা হতে পারে।
  • এমনকী গর্ভাবস্থায় অনেক নারীই পাইলসের সমস্যার সম্মুখীন হন। সন্তান প্রসবের পরেও এই সমস্যা হতে পারে।
  • পরিবারের কারও যদি পাইলস থাকে, তাহলে ঝুঁকি বেশি থাকে।

পাইলসের লক্ষণ

  • মলত্যাগের সময় ব্যথা এবং রক্ত বা মিউকাস পড়া।
  • মলদ্বারের চারপাশে ফোলা বা পিণ্ড।
  • মলদ্বারের চারপাশে চুলকানি।
  • মলত্যাগের পরেও পেট পরিষ্কার হয়নি বলে মনে হওয়া।
  • পাইলসের আঁচিলগুলি থেকে রক্তপাত।

আরো পড়ুন:  কোষ্ঠকাঠিন্য দূর করার উপায় ঘরোয়া উপায়

কী কী সতর্কতা দরকারি

  • চিকিৎসকের পরামর্শ মতো ডায়েটে বদল।
  • বেশি করে ফাইবার যুক্ত খাবার খাওয়া।
  • রেড মিট জাতীয় খাবার এড়িয়ে চলা।
  • প্রয়োজনে চিকিৎসকের নির্দেশ মতো ওষুধ খাওয়া।
  • জল বেশি কর খাওয়া।

আরো পড়ুন: কোষ্ঠকাঠিন্য দূর করার উপায়

আর কোন কোন বিষয়ে সতর্ক হতে হবে

আমরা আমাদের বাড়ির টয়লেট নিজের মতো করে সম্পূর্ণ পরিষ্কার রাখি। তবে বাড়ির বাইরে, অফিসে, ট্রেনে বা অন্য কোথাও পাবলিক টয়লেট ব্যবহার করার সময় বেশির ভাগ মানুষই সেদিকে খেয়াল রাখেন না। ফলে সেখানে জীবাণু, ময়লা এবং ধুলো থেকে যায়। তাতে থাকে বিভিন্ন রোগের ভয়ও।

পাবলিক টয়লেট দেখতে পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন হতে পারে কিন্তু সব ধরনের মানুষই এটি ব্যবহার করেন, তাই নোংরা পাবলিক টয়লেট ব্যবহার করলে সংক্রমণ ও রোগের ঝুঁকি থাকে।

যাঁদের পাইলস জাতীয় সমস্যা আছে, তাঁদের এই বিষয়টিতে আরও সাবধান হওয়া উচিত। না হলে রোগের আশঙ্কা আরও বাড়তে পারে।

 

ট্যাগঃ

পাইলস বা অর্শ কেন হয়, কাদের এর আশঙ্কা বেশি?

প্রকাশিত হয়েছেঃ ০৩:০৮:১৮ অপরাহ্ন, বুধবার, ২৪ জানুয়ারী ২০২৪
print news -

অনেকেই পাইলসের সমস্যায় ভোগেন। কিন্তু এই সমস্যাটি আসলে কী? কাদের এর আশঙ্কা বেশি?

জীবনে মোবাইল ফোনের ব্যবহার এতটাই বেড়ে গিয়েছে যে, আমরা ফোন নিয়ে সব জায়গায় পৌঁছে যাই। রাতে ঘুমানোর সময়ও আমরা ফোন ব্যবহার করি। এমনকী মোবাইলের কারণে আমরা অনেক রোগেরও শিকার হচ্ছি।

অনেকেই টয়লেটে মোবাইল ফোন নিয়ে যান। সেখানে টয়লেট সিটে বসে মোবাইল ব্যবহার করলে পাইলস অর্থাৎ অর্শের মতো রোগের ঝুঁকি বেড়ে যায়।

পাইলস কী?

পাইলস এমন একটি রোগ যাতে রোগীর মলদ্বারের ভিতরে ও বাইরে ফুলে যায়। যার কারণে মলদ্বারের ভিতরের বা বাইরের অংশে চামড়া জমে গিয়ে আঁচিলের মতো তৈরি করে। যাতে নানা সময়ে ব্যথা-সহ রক্তপাত হয়।

এই আঁচিলগুলি মলত্যাগের সময় চাপের কারণে বেরিয়ে আসে। এই সমস্যার কারণে ব্যক্তির বসতেও অসুবিধা হয়।

চিকিৎসকদের মতে, অনেক সময়ে মানুষ শুরুতে এই ধরনের সমস্যার দিকে মনোযোগ দেন না, যার কারণে পরে সমস্যা বাড়ে।

 

আরো পড়ুন: পাইলস বা অর্শ রোগের লক্ষন ও করনিয়

 

পাইলসের কারণ

  • কোষ্ঠকাঠিন্যের সমস্যা থাকলে অর্শ হতে পারে। কোষ্ঠকাঠিন্যের কারণে পেট পরিষ্কার থাকে না এবং মলত্যাগে শক্তি প্রয়োগ করতে হয়, যার কারণে পাইলসের সমস্যা হয়।
  • যাঁরা দীর্ঘক্ষণ দাঁড়িয়ে কাজ করেন, তাঁদেরও পাইলসের সমস্যা হয়।
  • মেদের কারণেও পাইলসের সমস্যা হতে পারে।
  • এমনকী গর্ভাবস্থায় অনেক নারীই পাইলসের সমস্যার সম্মুখীন হন। সন্তান প্রসবের পরেও এই সমস্যা হতে পারে।
  • পরিবারের কারও যদি পাইলস থাকে, তাহলে ঝুঁকি বেশি থাকে।

পাইলসের লক্ষণ

  • মলত্যাগের সময় ব্যথা এবং রক্ত বা মিউকাস পড়া।
  • মলদ্বারের চারপাশে ফোলা বা পিণ্ড।
  • মলদ্বারের চারপাশে চুলকানি।
  • মলত্যাগের পরেও পেট পরিষ্কার হয়নি বলে মনে হওয়া।
  • পাইলসের আঁচিলগুলি থেকে রক্তপাত।

আরো পড়ুন:  কোষ্ঠকাঠিন্য দূর করার উপায় ঘরোয়া উপায়

কী কী সতর্কতা দরকারি

  • চিকিৎসকের পরামর্শ মতো ডায়েটে বদল।
  • বেশি করে ফাইবার যুক্ত খাবার খাওয়া।
  • রেড মিট জাতীয় খাবার এড়িয়ে চলা।
  • প্রয়োজনে চিকিৎসকের নির্দেশ মতো ওষুধ খাওয়া।
  • জল বেশি কর খাওয়া।

আরো পড়ুন: কোষ্ঠকাঠিন্য দূর করার উপায়

আর কোন কোন বিষয়ে সতর্ক হতে হবে

আমরা আমাদের বাড়ির টয়লেট নিজের মতো করে সম্পূর্ণ পরিষ্কার রাখি। তবে বাড়ির বাইরে, অফিসে, ট্রেনে বা অন্য কোথাও পাবলিক টয়লেট ব্যবহার করার সময় বেশির ভাগ মানুষই সেদিকে খেয়াল রাখেন না। ফলে সেখানে জীবাণু, ময়লা এবং ধুলো থেকে যায়। তাতে থাকে বিভিন্ন রোগের ভয়ও।

পাবলিক টয়লেট দেখতে পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন হতে পারে কিন্তু সব ধরনের মানুষই এটি ব্যবহার করেন, তাই নোংরা পাবলিক টয়লেট ব্যবহার করলে সংক্রমণ ও রোগের ঝুঁকি থাকে।

যাঁদের পাইলস জাতীয় সমস্যা আছে, তাঁদের এই বিষয়টিতে আরও সাবধান হওয়া উচিত। না হলে রোগের আশঙ্কা আরও বাড়তে পারে।