০৩:১৯ অপরাহ্ন, সোমবার, ২৪ জুন ২০২৪, ১০ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

নরসিংদীর শিবপুরে নিখোঁজের ৮ ঘণ্টা পর প্রতিবেশির ঘরের আলমারীতে পাওয়া গেল ৮ বছরের এক শিশুর বস্তাবন্দি লাশ

print news -

নরসিংদীর শিবপুরে নিখোঁজের ৮ ঘণ্টা পর প্রতিবেশির ঘরের আলমারির ভেতর থেকে সায়মা আক্তার নামে (৮) এক শিশুর বস্তাবন্দি লাশ উদ্ধার করা হয়েছে।

মঙ্গলবার (১৩ সেপ্টেম্বর) রাত নয়টার দিকে উপজেলার জয়নগর বাজার এলাকা হতে এই মরদেহ উদ্ধার করেছে এলাকাবাসী ও পুলিশ। গতকাল দুপুর থেকে মেয়েটি নিখোঁজ হয়েছিল। নিহত সায়মা আক্তার যোশর এলাকার মুন্সিবাড়ির সারোয়ার জাহানের মেয়ে। স্থানীয় একটি বিদ্যালয়ের ২য় শ্রেণির শিক্ষার্থী সায়মা।

প্রত্যক্ষদর্শীরা  জানায়, দুপুর একটার পর থেকে সায়মা আক্তার নামে ওই শিশুকে কোথাও খুঁজে পাওয়া যাচ্ছিলো না। বিকেল নাগাদ শিশুটিকে খুঁজে পেতে মাইকিং করে তার পরিবারের সদস্যরা। এতেও কোনো খোঁজ না হলে বিষয়টি পুলিশে জানায় শিশুটির পরিবার। সন্ধ্যা নাগাদ পুলিশ নিখোঁজ শিশুটির বাড়িতে এসে পরিবারের সদস্যদের সহযোগিতায় সন্দেহভাজন প্রতিবেশি হানিফা মিয়ার বাড়িতে খোঁজ করে। পরে, হানিফা মিয়ার ঘরে থাকা একটি কাঠের আলমারির ভেতরে বস্তাবন্দি অবস্থায় শিশু সায়মার মরদেহ পাওয়া যায়।

এ ঘটনার সাথে জড়িত থাকতে পারে সন্দেহকারি হিসাবে এক মহিলাকে আটক করে পুলিশের কাছে সোপর্দ করেছে। এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত ঘটনার মূল রহস্য উদ্ঘাটন করতে জেলা পুলিশ তৎপরতা চালাচ্ছে।

ট্যাগঃ
জনপ্রিয় সংবাদ

বন্যা পরিস্থিতির অবনতি সিলেট, সুনামগঞ্জ ও কুড়িগ্রাম

নরসিংদীর শিবপুরে নিখোঁজের ৮ ঘণ্টা পর প্রতিবেশির ঘরের আলমারীতে পাওয়া গেল ৮ বছরের এক শিশুর বস্তাবন্দি লাশ

প্রকাশিত হয়েছেঃ ০৮:২৩:৪৬ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৫ সেপ্টেম্বর ২০২২
print news -

নরসিংদীর শিবপুরে নিখোঁজের ৮ ঘণ্টা পর প্রতিবেশির ঘরের আলমারির ভেতর থেকে সায়মা আক্তার নামে (৮) এক শিশুর বস্তাবন্দি লাশ উদ্ধার করা হয়েছে।

মঙ্গলবার (১৩ সেপ্টেম্বর) রাত নয়টার দিকে উপজেলার জয়নগর বাজার এলাকা হতে এই মরদেহ উদ্ধার করেছে এলাকাবাসী ও পুলিশ। গতকাল দুপুর থেকে মেয়েটি নিখোঁজ হয়েছিল। নিহত সায়মা আক্তার যোশর এলাকার মুন্সিবাড়ির সারোয়ার জাহানের মেয়ে। স্থানীয় একটি বিদ্যালয়ের ২য় শ্রেণির শিক্ষার্থী সায়মা।

প্রত্যক্ষদর্শীরা  জানায়, দুপুর একটার পর থেকে সায়মা আক্তার নামে ওই শিশুকে কোথাও খুঁজে পাওয়া যাচ্ছিলো না। বিকেল নাগাদ শিশুটিকে খুঁজে পেতে মাইকিং করে তার পরিবারের সদস্যরা। এতেও কোনো খোঁজ না হলে বিষয়টি পুলিশে জানায় শিশুটির পরিবার। সন্ধ্যা নাগাদ পুলিশ নিখোঁজ শিশুটির বাড়িতে এসে পরিবারের সদস্যদের সহযোগিতায় সন্দেহভাজন প্রতিবেশি হানিফা মিয়ার বাড়িতে খোঁজ করে। পরে, হানিফা মিয়ার ঘরে থাকা একটি কাঠের আলমারির ভেতরে বস্তাবন্দি অবস্থায় শিশু সায়মার মরদেহ পাওয়া যায়।

এ ঘটনার সাথে জড়িত থাকতে পারে সন্দেহকারি হিসাবে এক মহিলাকে আটক করে পুলিশের কাছে সোপর্দ করেছে। এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত ঘটনার মূল রহস্য উদ্ঘাটন করতে জেলা পুলিশ তৎপরতা চালাচ্ছে।