০৩:৫৮ অপরাহ্ন, বুধবার, ১৯ জুন ২০২৪, ৫ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

‘তার চুরি র অপবাদে’ বিদ্যুৎকর্মীর আত্মহত্যা

print news -

নিউজ ডেস্ক:  বিদ্যুতের তার চুরির অপবাদ দেয়ায় রাজধানীর খিলগাঁও মধ্য নন্দীপাড়ায় গাছের সাথে ফাঁস দিয়ে পল্লী বিদ্যুতের এক অফিস সহায়ক আত্মহত্যা করেছেন বলে অভিযোগ করা হয়েছে। মৃত আবু মোহাম্মদ আলাউদ্দিন (৪৭) টাংগাইল সখিপুর উপজেলায় পল্লী বিদ্যুৎ অফিসে অফিস সহায়কের চাকরি করতেন।

সোমবার (২৫ ডিসেম্বর) সকালে খিলগাঁও থানা পুলিশ মরদেহটি উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজ মর্গে পাঠায়।

খিলগাঁও থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) সৈয়দ রুহুল আমিন জানান, খবর পেয়ে সকালে মধ্য নন্দিপাড়ার ৪ নম্বর রোডের একটি মাঠে কড়ই গাছের সাথে গলায় রশি পেঁচানো ওই ব্যক্তির ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার করা হয়। প্রাথমিকভাবে পরিবারের কাছ থেকে জানা গেছে, টাংগাইলের সখিপুরে পল্লী বিদ্যুতের অফিসের সহকর্মীরা তাকে বিদ্যুতের তার চুরির অপবাদ দিয়ে আসছিলেন। সেই মিথ্যা অপবাদে তিনি মানসিকভাবে বিপর্যস্ত ছিলেন। সেই কারণে তিনি গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছেন। তবুও বিস্তারিত তদন্ত করে দেখা হচ্ছে।

 
এদিকে মৃত আলাউদ্দিনের ছেলে নাসির উদ্দিন আসিফ জানান, তার বাবা ৩০ বছরের বেশি সময় ধরে পল্লী বিদ্যুতে চাকরি করছেন। গত আড়াই বছর ধরে চাকরি করেন টাঙ্গাইল সখিপুর উপজেলায়। তবে গত ৬-৭ মাস ধরে সেখানকার কর্মকর্তারা তাকে বিদ্যুতের তার চুরির অপবাদ দিয়ে আসছিলেন। তার বিরুদ্ধে মামলা করার হুমকি-ধমকি দিতেন। তবে বরাবরই বিষয়টি মিথ্যা বলে নিজেকে নির্দোষ দাবি করছিলেন তার বাবা। তবুও তাকে মানসিকভাবে টর্চার করতেন।
 
তিনি আরও জানান, সোমবার ভোর ৪টার দিকে টাঙ্গাইল থেকে ঢাকায় মধ্য নন্দিপাড়ায় এক নম্বর রোডে তাদের বাসায় আসেন আলাউদ্দিন। এসে বাসার ভেতর না ঢুকেই তার জ্যাকেট এবং মোবাইল ফোন তাদের হাতে তুলে দিয়ে বলেন, কিছুক্ষণ পরে বাসায় ফিরবেন। এর কয়েক ঘণ্টা পর এলাকাবাসীর মাধ্যমে খবর পান, ৪ নম্বর রোডে একটি গাছের সাথে গলায় ফাঁস দিয়েছেন তিনি। পরবর্তীতে তারা সেখানে গিয়ে ঝুলন্ত মরদেহ দেখতে পান।
 
এই ঘটনায় সুষ্ঠু তদন্ত দাবি করেছেন স্বজনরা। এছাড়া তাকে মিথ্যা অপবাদ দেয়ায় ওই কর্মকর্তাদের শাস্তি দাবি করেছেন তারা।
ট্যাগঃ
জনপ্রিয় সংবাদ

বন্যা পরিস্থিতির অবনতি সিলেট, সুনামগঞ্জ ও কুড়িগ্রাম

‘তার চুরি র অপবাদে’ বিদ্যুৎকর্মীর আত্মহত্যা

প্রকাশিত হয়েছেঃ ০৪:০৫:৫২ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৬ ডিসেম্বর ২০২৩
print news -

নিউজ ডেস্ক:  বিদ্যুতের তার চুরির অপবাদ দেয়ায় রাজধানীর খিলগাঁও মধ্য নন্দীপাড়ায় গাছের সাথে ফাঁস দিয়ে পল্লী বিদ্যুতের এক অফিস সহায়ক আত্মহত্যা করেছেন বলে অভিযোগ করা হয়েছে। মৃত আবু মোহাম্মদ আলাউদ্দিন (৪৭) টাংগাইল সখিপুর উপজেলায় পল্লী বিদ্যুৎ অফিসে অফিস সহায়কের চাকরি করতেন।

সোমবার (২৫ ডিসেম্বর) সকালে খিলগাঁও থানা পুলিশ মরদেহটি উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজ মর্গে পাঠায়।

খিলগাঁও থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) সৈয়দ রুহুল আমিন জানান, খবর পেয়ে সকালে মধ্য নন্দিপাড়ার ৪ নম্বর রোডের একটি মাঠে কড়ই গাছের সাথে গলায় রশি পেঁচানো ওই ব্যক্তির ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার করা হয়। প্রাথমিকভাবে পরিবারের কাছ থেকে জানা গেছে, টাংগাইলের সখিপুরে পল্লী বিদ্যুতের অফিসের সহকর্মীরা তাকে বিদ্যুতের তার চুরির অপবাদ দিয়ে আসছিলেন। সেই মিথ্যা অপবাদে তিনি মানসিকভাবে বিপর্যস্ত ছিলেন। সেই কারণে তিনি গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছেন। তবুও বিস্তারিত তদন্ত করে দেখা হচ্ছে।

আরো পড়ুন: পুলিশ হেফাজ তে কাপাসিয়ার বিএনপি নেতার মৃ ত্যু

 
এদিকে মৃত আলাউদ্দিনের ছেলে নাসির উদ্দিন আসিফ জানান, তার বাবা ৩০ বছরের বেশি সময় ধরে পল্লী বিদ্যুতে চাকরি করছেন। গত আড়াই বছর ধরে চাকরি করেন টাঙ্গাইল সখিপুর উপজেলায়। তবে গত ৬-৭ মাস ধরে সেখানকার কর্মকর্তারা তাকে বিদ্যুতের তার চুরির অপবাদ দিয়ে আসছিলেন। তার বিরুদ্ধে মামলা করার হুমকি-ধমকি দিতেন। তবে বরাবরই বিষয়টি মিথ্যা বলে নিজেকে নির্দোষ দাবি করছিলেন তার বাবা। তবুও তাকে মানসিকভাবে টর্চার করতেন।
 

আরো পড়ুন:সিলেটে সেতুর রেলিং ভেঙে খালে ট্রা ক

তিনি আরও জানান, সোমবার ভোর ৪টার দিকে টাঙ্গাইল থেকে ঢাকায় মধ্য নন্দিপাড়ায় এক নম্বর রোডে তাদের বাসায় আসেন আলাউদ্দিন। এসে বাসার ভেতর না ঢুকেই তার জ্যাকেট এবং মোবাইল ফোন তাদের হাতে তুলে দিয়ে বলেন, কিছুক্ষণ পরে বাসায় ফিরবেন। এর কয়েক ঘণ্টা পর এলাকাবাসীর মাধ্যমে খবর পান, ৪ নম্বর রোডে একটি গাছের সাথে গলায় ফাঁস দিয়েছেন তিনি। পরবর্তীতে তারা সেখানে গিয়ে ঝুলন্ত মরদেহ দেখতে পান।
 
এই ঘটনায় সুষ্ঠু তদন্ত দাবি করেছেন স্বজনরা। এছাড়া তাকে মিথ্যা অপবাদ দেয়ায় ওই কর্মকর্তাদের শাস্তি দাবি করেছেন তারা।