০৬:০৫ অপরাহ্ন, রবিবার, ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১৩ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

গর্ভে র সন্তানের লি ঙ্গ পরিচয় প্রকাশ করা যাবে না- স্বাস্থ্য অধিদপ্তরে র নীতিমালা

print news -

নিউজ ডেস্ক:  মাতৃগর্ভে থাকা অবস্থায় শিশুর লিঙ্গ পরিচয় প্রকাশ কেন অবৈধ নয়, তা জানতে চেয়ে ২০২০ সালের ৩ ফেব্রুয়ারি রুল জারি করেছিলেন হাইকোর্ট। একই বছরের ২৬ জানুয়ারি এ বিষয়ে হাইকোর্টে রিট আবেদন করা হয়।

মাতৃগর্ভের সন্তানের লিঙ্গ পরিচয় প্রকাশ করা যাবে না জানিয়ে নতুন নীতিমালা করে হাইকোর্টে প্রতিবেদন জমা দিয়েছে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর। এতে বলা হয়েছে, হাসপাতাল, ডায়াগনস্টিক সেন্টার ও চিকিৎসকসহ সবাইকে এ নীতিমালা মানতে হবে।

gnsdvehicle benar add -

সোমবার (২৯ জানুয়ারি) স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের প্রাথমিক স্বাস্থ্য পরিচর্যার পরিচালক ডা. তাহমিনা সুলতানা এ প্রতিবেদন জমা দেন।

ন্যাশনাল গাইডলাইন ফর দ্য প্রিভেনশন অব সন প্রিফারেন্স অ্যান্ড দ্য রিস্ক অব জেন্ডার-বায়াসড সেক্স সিলেকশন নীতিমালা বলছে, এ নির্দেশনার উদ্দেশ্য হলো গর্ভাবস্থায় যেকোনো সময়ে ভ্রুণের লিঙ্গ নির্ণয়ের পদ্ধতি ও পরীক্ষার অপব্যবহার বন্ধে সচেতনতা তৈরি করা।

এর আগে, মাতৃগর্ভে থাকা অবস্থায় শিশুর লিঙ্গ পরিচয় প্রকাশ কেন অবৈধ নয়, তা জানতে চেয়ে ২০২০ সালের ৩ ফেব্রুয়ারি রুল জারি করেছিলেন হাইকোর্ট। একই বছরের ২৬ জানুয়ারি এ বিষয়ে হাইকোর্টে রিট আবেদন করা হয়।

fdgsfg -

অ্যাডভোকেট ইশরাত হাসান স্বাস্থ্য সচিব, নারী ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সচিব ও সমাজ কল্যাণ সচিবকে এ নোটিশ পাঠান। নোটিশে তাদের তিন দিনের মধ্যে সকল সরকারি-বেসরকারি হাসপাতাল, ডায়াগনস্টিক সেন্টার ও ক্লিনিক কর্তৃপক্ষকে গর্ভের শিশুর লিঙ্গ পরিচয় জানার উদ্দেশে পরীক্ষা ও লিঙ্গ পরিচয় প্রকাশ বন্ধে নির্দেশনা জারি করতে বলা হয়।

উল্লেখ্য, মাতৃগর্ভের সন্তানের লিঙ্গ পরিচয় প্রকাশ করা সম্পর্কে ইতিপূর্বেই আইনে নিষেধ করা হয়। এবার স্বাস্থ্য অধিদপ্তর এটি তাদের নতুন নীতিমালায় অন্তর্ভুক্ত করল।

সুত্র: টিবিএস

ট্যাগঃ

গর্ভে র সন্তানের লি ঙ্গ পরিচয় প্রকাশ করা যাবে না- স্বাস্থ্য অধিদপ্তরে র নীতিমালা

প্রকাশিত হয়েছেঃ ০৩:৫৫:১১ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ৩১ জানুয়ারী ২০২৪
print news -

নিউজ ডেস্ক:  মাতৃগর্ভে থাকা অবস্থায় শিশুর লিঙ্গ পরিচয় প্রকাশ কেন অবৈধ নয়, তা জানতে চেয়ে ২০২০ সালের ৩ ফেব্রুয়ারি রুল জারি করেছিলেন হাইকোর্ট। একই বছরের ২৬ জানুয়ারি এ বিষয়ে হাইকোর্টে রিট আবেদন করা হয়।

মাতৃগর্ভের সন্তানের লিঙ্গ পরিচয় প্রকাশ করা যাবে না জানিয়ে নতুন নীতিমালা করে হাইকোর্টে প্রতিবেদন জমা দিয়েছে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর। এতে বলা হয়েছে, হাসপাতাল, ডায়াগনস্টিক সেন্টার ও চিকিৎসকসহ সবাইকে এ নীতিমালা মানতে হবে।

gnsdvehicle benar add -

সোমবার (২৯ জানুয়ারি) স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের প্রাথমিক স্বাস্থ্য পরিচর্যার পরিচালক ডা. তাহমিনা সুলতানা এ প্রতিবেদন জমা দেন।

ন্যাশনাল গাইডলাইন ফর দ্য প্রিভেনশন অব সন প্রিফারেন্স অ্যান্ড দ্য রিস্ক অব জেন্ডার-বায়াসড সেক্স সিলেকশন নীতিমালা বলছে, এ নির্দেশনার উদ্দেশ্য হলো গর্ভাবস্থায় যেকোনো সময়ে ভ্রুণের লিঙ্গ নির্ণয়ের পদ্ধতি ও পরীক্ষার অপব্যবহার বন্ধে সচেতনতা তৈরি করা।

এর আগে, মাতৃগর্ভে থাকা অবস্থায় শিশুর লিঙ্গ পরিচয় প্রকাশ কেন অবৈধ নয়, তা জানতে চেয়ে ২০২০ সালের ৩ ফেব্রুয়ারি রুল জারি করেছিলেন হাইকোর্ট। একই বছরের ২৬ জানুয়ারি এ বিষয়ে হাইকোর্টে রিট আবেদন করা হয়।

fdgsfg -

অ্যাডভোকেট ইশরাত হাসান স্বাস্থ্য সচিব, নারী ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সচিব ও সমাজ কল্যাণ সচিবকে এ নোটিশ পাঠান। নোটিশে তাদের তিন দিনের মধ্যে সকল সরকারি-বেসরকারি হাসপাতাল, ডায়াগনস্টিক সেন্টার ও ক্লিনিক কর্তৃপক্ষকে গর্ভের শিশুর লিঙ্গ পরিচয় জানার উদ্দেশে পরীক্ষা ও লিঙ্গ পরিচয় প্রকাশ বন্ধে নির্দেশনা জারি করতে বলা হয়।

উল্লেখ্য, মাতৃগর্ভের সন্তানের লিঙ্গ পরিচয় প্রকাশ করা সম্পর্কে ইতিপূর্বেই আইনে নিষেধ করা হয়। এবার স্বাস্থ্য অধিদপ্তর এটি তাদের নতুন নীতিমালায় অন্তর্ভুক্ত করল।

সুত্র: টিবিএস