০৪:০৬ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ২৪ জুন ২০২৪, ৯ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

কলাবাগানে প্রেমিকা কে নিয়ে আবাসিক হোটেলে যুবক, অতঃপর আত্ম হ ত্যা

print news -

নিউজ ডেস্ক:  রাজধানীর কলাবাগানের ইমেজ আবাসিক হোটেলের একটি কক্ষে মো: সাব্বির হোসেন (২৬) নামের এক যুবক গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছেন। এর আগে, তিনি ওই হোটেলে তার প্রেমিকা মারুফা আক্তারকে নিয়ে যান। ঘটনার পর জিজ্ঞাসাবাদের জন্য মারুফাকে আটক করেছে পুলিশ।

শুক্রবার (২ ফেব্রুয়ারি) ভোর রাতে অচেতন অবস্থায় সাব্বিরকে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের জরুরি বিভাগে নিয়ে গেয়ে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন

বরিশাল জেলার বাবুগঞ্জ থানার জাহাঙ্গীর মিয়া ছেলে সাব্বির। তিনি বর্তমানে রাজধানীর শুক্রবাদে বসবাস করতেন।

সাব্বিরের বন্ধু পাভেল বলেন, ‘আমরা জানতে পেরেছি যে বৃহস্পতিবার রাতে কলাবাগানের ইমেজ হোটেলে তার এক গার্লফ্রেন্ডকে নিয়ে ওঠে। পরে গার্লফ্রেন্ডের সাথে কথা কাটাকাটির একপর্যায়ে গলায় ফাঁস দিয়ে সে আত্মহত্যা করে বলে জাননে পেরেছি। এর বেশি কিছু আমি বলতে পারব না।’

সাব্বিরের মামাত ভাই মো: রায়হান বলেন, ‘আমার ভাই ওর বাবার ব্যবসা দেখাশোনা করত। আমরা শুনতে পেরেছি, হোটেলে সে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছে। তবে কেন সে ওই আবাসিক হোটেলে গিয়েছিল তা এখনো জানতে পারিনি।’

কলাবাগান থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মফিজুল আলম বলেন, ‘আমরা খবর পেয়ে ভোর রাতে ঘটনাস্থলে যাই। তার লাশ বর্তমানে ঢাকা মেডিক্যালের মর্গে আছে।’

তিনি আরো জানান, ‘বৃহস্পতিবার রাতে সাব্বির তার প্রেমিকা মারুফা আক্তারকে নিয়ে ইমেজ আবাসিক হোটেলে উঠেন। পরে সাব্বির ওই আবাসিক হোটেলেই গলায় ফাঁস দেন। বর্তমানে তার প্রেমিকা মারুফা আক্তার জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আমাদের হেফাজতে রয়েছে। তার জিজ্ঞাসাবাদ চলছে, কী কারণে এই ঘটনাটি ঘটেছে সে বিষয়টি জানার চেষ্টা চলছে।’

বিস্তারিত পরে জানানো হবে বলেও জানান ওসি।

সুত্র: নয়াদিগন্ত 

ট্যাগঃ
জনপ্রিয় সংবাদ

বন্যা পরিস্থিতির অবনতি সিলেট, সুনামগঞ্জ ও কুড়িগ্রাম

কলাবাগানে প্রেমিকা কে নিয়ে আবাসিক হোটেলে যুবক, অতঃপর আত্ম হ ত্যা

প্রকাশিত হয়েছেঃ ০৫:১৯:২৭ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৪
print news -

নিউজ ডেস্ক:  রাজধানীর কলাবাগানের ইমেজ আবাসিক হোটেলের একটি কক্ষে মো: সাব্বির হোসেন (২৬) নামের এক যুবক গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছেন। এর আগে, তিনি ওই হোটেলে তার প্রেমিকা মারুফা আক্তারকে নিয়ে যান। ঘটনার পর জিজ্ঞাসাবাদের জন্য মারুফাকে আটক করেছে পুলিশ।

শুক্রবার (২ ফেব্রুয়ারি) ভোর রাতে অচেতন অবস্থায় সাব্বিরকে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের জরুরি বিভাগে নিয়ে গেয়ে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন

বরিশাল জেলার বাবুগঞ্জ থানার জাহাঙ্গীর মিয়া ছেলে সাব্বির। তিনি বর্তমানে রাজধানীর শুক্রবাদে বসবাস করতেন।

সাব্বিরের বন্ধু পাভেল বলেন, ‘আমরা জানতে পেরেছি যে বৃহস্পতিবার রাতে কলাবাগানের ইমেজ হোটেলে তার এক গার্লফ্রেন্ডকে নিয়ে ওঠে। পরে গার্লফ্রেন্ডের সাথে কথা কাটাকাটির একপর্যায়ে গলায় ফাঁস দিয়ে সে আত্মহত্যা করে বলে জাননে পেরেছি। এর বেশি কিছু আমি বলতে পারব না।’

সাব্বিরের মামাত ভাই মো: রায়হান বলেন, ‘আমার ভাই ওর বাবার ব্যবসা দেখাশোনা করত। আমরা শুনতে পেরেছি, হোটেলে সে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছে। তবে কেন সে ওই আবাসিক হোটেলে গিয়েছিল তা এখনো জানতে পারিনি।’

কলাবাগান থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মফিজুল আলম বলেন, ‘আমরা খবর পেয়ে ভোর রাতে ঘটনাস্থলে যাই। তার লাশ বর্তমানে ঢাকা মেডিক্যালের মর্গে আছে।’

তিনি আরো জানান, ‘বৃহস্পতিবার রাতে সাব্বির তার প্রেমিকা মারুফা আক্তারকে নিয়ে ইমেজ আবাসিক হোটেলে উঠেন। পরে সাব্বির ওই আবাসিক হোটেলেই গলায় ফাঁস দেন। বর্তমানে তার প্রেমিকা মারুফা আক্তার জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আমাদের হেফাজতে রয়েছে। তার জিজ্ঞাসাবাদ চলছে, কী কারণে এই ঘটনাটি ঘটেছে সে বিষয়টি জানার চেষ্টা চলছে।’

বিস্তারিত পরে জানানো হবে বলেও জানান ওসি।

সুত্র: নয়াদিগন্ত